Advertisement
১৪ জুন ২০২৪
ICC Women’s T20 World Cup

মেয়েদের সামলাবেন মেয়েরাই, ছেলেদের বাদ দেওয়া হল টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ থেকে

কেপ টাউনে দক্ষিণ আফ্রিকা ও শ্রীলঙ্কার ম্যাচ দিয়ে ১০ ফেব্রুয়ারি শুরু হচ্ছে মেয়েদের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। ভারত নামছে ১২ ফেব্রুয়ারি। সে দিন পার্লে পাকিস্তানের সঙ্গে ভারতের ম্যাচ।

কেপ টাউনে দক্ষিণ আফ্রিকা ও শ্রীলঙ্কার ম্যাচ দিয়ে ১০ ফেব্রুয়ারি মেয়েদের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ শুরু হচ্ছে।

কেপ টাউনে দক্ষিণ আফ্রিকা ও শ্রীলঙ্কার ম্যাচ দিয়ে ১০ ফেব্রুয়ারি মেয়েদের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ শুরু হচ্ছে। —ফাইল চিত্র

নিজস্ব প্রতিবেদন
শেষ আপডেট: ২৮ জানুয়ারি ২০২৩ ১৫:৫৮
Share: Save:

এক মাস পরেই মেয়েদের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। দক্ষিণ আফ্রিকায় হবে এ বারের প্রতিযোগিতা। হরমনপ্রীত কৌরদের সেই বিশ্বকাপে মহিলা আম্পায়ারদের উপর দায়িত্ব দেওয়া হবে। কোনও পুরুষ আম্পায়ার বা ম্যাচ রেফারি রাখা হবে না। এমনটাই জানিয়ে দিল আইসিসি।

এর আগে মেয়েদের বিভিন্ন প্রতিযোগিতায় পুরুষ আম্পায়ারদের উপর দায়িত্ব দেওয়া হত। কিছু মহিলা আম্পায়ার অবশ্য থাকতেন। এ বার শুধুই মহিলা আম্পায়ারদের দিয়ে ম্যাচ পরিচালনা করাতে চাইছে আইসিসি। মোট ১৩ জনকে রাখা হয়েছে ম্যাচ পরিচালনা করার জন্য। এর মধ্যে ১০ জন আম্পায়ার এবং ৩ জন ম্যাচ রেফারি। আইসিসির জেনারেল ম্যানেজার ওয়াসিম খান বলেন, “আমরা কী ভাবছি তার পরিচয় এই সিদ্ধান্ত। আমরা চাই ছেলে এবং মেয়েরা সমান সুযোগ পাক। সেটার দিকেই এগিয়ে যাচ্ছি আমরা। সারা বিশ্বে আমরা মহিলা আম্পায়ারদের বেশি করে সুযোগ দিতে চাই।”

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে প্রথম বার খেলাবেন এমন ৭ জন অফিসিয়াল রয়েছেন। আইসিসির মহিলা ক্রিকেটের ম্যানেজার স্নেহল প্রধান বলেন, “আগামী প্রজন্ম দেখছে যে শুধু ক্রিকেটার হয়ে ওঠা নয়, আরও অনেক ধরনের কেরিয়ারের সুযোগ রয়েছে। এমন সুযোগ যা বিশ্বকাপের সঙ্গে নাম জুড়ে দিতে পারে।”

মহিলা আম্পায়ারদের মধ্যে সব থেকে অভিজ্ঞ ক্লেয়ার পোলোসাক। তিনি ২০১৬ সাল থেকে মহিলাদের সব বিশ্বকাপের অংশ ছিলেন। আম্পায়ারদের তালিকায় সব থেকে কনিষ্ঠ অ্যানা হ্যারিস। মাত্র ২৪ বছর বয়স তাঁর। এরকম বড় প্রতিযোগিতায় প্রথম বার দেখা যাবে তাঁকে। ভারত থেকে থাকবেন ম্যাচ রেফারি গন্দিকোটা সর্বা লক্ষ্মী। আম্পায়ার থাকবেন দু’জন, বৃন্দা রথী এবং জননী নারায়ণ।

কেপ টাউনে দক্ষিণ আফ্রিকা ও শ্রীলঙ্কার ম্যাচ দিয়ে ১০ ফেব্রুয়ারি প্রতিযোগিতা শুরু হচ্ছে। এই গ্রুপের বাকি তিনটি দল অস্ট্রেলিয়া, বাংলাদেশ এবং নিউজিল্যান্ড। প্রতিটি গ্রুপের সেরা দু’টি দল শেষ চারে উঠবে। দু’টি সেমিফাইনাল ম্যাচ ২৩ ও ২৪ ফেব্রুয়ারি। ফাইনাল ২৬ ফেব্রুয়ারি। এই তিনটি ম্যাচই কেপ টাউনে। ভারত নামছে ১২ ফেব্রুয়ারি। সে দিন পার্লে পাকিস্তানের সঙ্গে ভারতের ম্যাচ। ভারতের গ্রুপে পাকিস্তান ছাড়াও রয়েছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ, ইংল্যান্ড, আয়ারল্যান্ড। ভারতের পরের ম্যাচ কেপ টাউনে ১৫ ফেব্রুয়ারি ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে। তিন দিন পরে ১৮ ফেব্রুয়ারি ভারত খেলবে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে। এই ম্যাচ জেবেরহায়। গ্রুপ পর্বে ভারতের শেষ ম্যাচ জেবেরহাতেই ২০ ফেব্রুয়ারি, বিপক্ষে আয়ারল্যান্ড।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE