Advertisement
১৫ জুন ২০২৪
Emiliano Martínez in Kolkata

বিশ্বজয়ী মার্তিনেসকে ঘিরে বিশৃঙ্খলা কলকাতায়, মঞ্চে প্রাক্তনদের হুড়োহুড়ি, হিমশিম পুলিশ

এমিলিয়ানো মার্তিনেসের সঙ্গে ছবি তুলতে মঞ্চে উঠে পড়েন প্রাক্তন ফুটবলারেরা। বিশৃঙ্খলা সামলাতে হিমশিম খেতে হয় পুলিশকে। দর্শকের চাপে ব্যারিকেড ভেঙে পড়ার উপক্রম হয়।

Emiliano Martinez in stage

মঞ্চে লোকের ভিড়ে ঢাকা পড়ে গিয়েছেন এমিলিয়ানো মার্তিনেস। —নিজস্ব চিত্র

আনন্দবাজার অনলাইন সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ০৪ জুলাই ২০২৩ ১৪:২৭
Share: Save:

কলকাতাবাসীর সামনে এলেন এমিলিয়ানো মার্তিনেস। বিশ্বকাপজয়ী আর্জেন্টিনার ফুটবলারকে দেখতে ভিড় উপচে পড়ল মিলনমেলা প্রাঙ্গণে। মঞ্চে উঠে পড়লেন প্রাক্তন ফুটবলারেরা। বিশৃঙ্খলা সামলাতে হিমশিম খেতে হল পুলিশকে। দর্শকদের চাপে ব্যারিকেড ভেঙে পড়ার উপক্রম হয়। লিয়োনেল মেসির দলের ফুটবলারকে কাছ থেকে দেখতে মঞ্চে উঠে পড়েন এক ভক্তও। যদিও বিশ্বকাপ ফাইনালে আর্জেন্টিনাকে টাইব্রেকারে জেতানো মার্তিনেসের কাছে পৌঁছতে পারেননি তিনি।

মঙ্গলবার অনুষ্ঠান শুরুর নির্ধারিত সময়ের প্রায় ২০-২৫ মিনিট পরে মিলনমেলা প্রাঙ্গণে পৌঁছন মার্তিনেস। তার অনেক আগে থেকেই ভিড় জমেছিল সেখানে। মার্তিনেস মঞ্চে ওঠার পরে তাঁর ছবি তোলার জন্য এগোতে থাকেন দর্শকেরা। তাতেই ব্যারিকেড ভেঙে পড়ার মতো পরিস্থিতি তৈরি হয়। প্রায় ২০ মিনিট পরে পুলিশ এসে পরিস্থিতি সামলায়।

Chaos at Milanmela

মার্তিনেসকে দেখতে দর্শকদের ভিড়। —নিজস্ব চিত্র

প্রথমেই ইস্টবেঙ্গলের কর্তারা মার্তিনেসকে সংবর্ধনা জানান। ইস্টবেঙ্গলের জার্সি পরেন মার্তিনেস। মুখে বলেন, ‘‘জয় ইস্টবেঙ্গল।’’ পরে মোহনবাগান কর্তারাও তাঁকে সংবর্ধনা দেন। সেখানে উদ্যোক্তাদের একটি ভুল চোখে পড়ে। ইস্টবেঙ্গল জার্সির লোগোতে ‘এসসি’ ও মোহনবাগান জার্সির লোগোতে ‘এটিকে’ লেখা ছিল। শুধু জার্সিই নয়, পরে যখন মঞ্চের পিছনে পর্দায় দুই প্রধানের নাম ফুটে ওঠে সেখানেও ভুল লোগো ছিল।

Wrong logo

মঞ্চে মোহনবাগান ও ইস্টবেঙ্গলের ভুল লোগো। —নিজস্ব চিত্র

এর পর মঞ্চে বিশৃঙ্খলা শুরু হয়। অলোক মুখোপাধ্যায়, সন্দীপ নন্দী, হেমন্ত ডোরার মতো প্রাক্তন ফুটবলারেরা মার্তিনেসের সঙ্গে ছবি তোলার জন্য মঞ্চে উঠে পড়েন। অনেকের সঙ্গে স্ত্রী-সন্তানেরাও ছিলেন। উদ্যোক্তাদের তরফে বার বার তাঁদের নামতে অনুরোধ করা হলেও তাঁরা সেটা শোনেননি। মঞ্চের সামনে হুড়োহুড়ি শুরু হয়ে যায়। ব্যারিকেড টপকে অনেকে ঢুকে পড়তে থাকেন। অনুষ্ঠান শেষ হওয়ার পরে বেরিয়ে যান মার্তিনেস।

Emiliano martinez with EB and MB member

ইস্টবেঙ্গল কর্তা দেবব্রত সরকার (বাঁ দিকে) ও মোহনবাগান সচিব দেবাশিস দত্তের (ডান দিকে) সঙ্গে এমিলিয়ানো মার্তিনেস। ছবি: সংগৃহীত

বিশৃঙ্খলার জন্য উদ্যোক্তাদেরই দায়ী করেছেন সেখানে থাকা পুলিশকর্মীরা। অনুষ্ঠানের মূল আয়োজক শতদ্রু দত্তের কোনও বক্তব্য এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত পাওয়া যায়নি। তবে সেখানে উপস্থিত অন্য কর্তারা বিশৃঙ্খলার কথা মানতে চাননি। তাঁদের দাবি, পুলিশ পরিস্থিতি ভাল ভাবে সামলেছে। এই গোটা ঘটনায় অবশ্য মার্তিনেসকে খুব একটা বিরক্ত লাগেনি। যদিও অনুষ্ঠানের বেশির ভাগ সময় মঞ্চে অনেক লোকের মাঝে ঢাকাই পড়ে ছিলেন তিনি। তাঁকে দেখতেই পাওয়া যাচ্ছিল না।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)

অন্য বিষয়গুলি:

Emiliano Martínez East Bengal Mohun Bagan
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE