Advertisement
১৪ এপ্রিল ২০২৪
East Bengal

ওড়িশাকে গুরুত্ব দিলেও সমীহ করছেন না নন্দকুমার, চিন্তিত নন হিজাজির না থাকা নিয়েও

চেন্নাইয়নের বিরুদ্ধে তিন পয়েন্ট আত্মবিশ্বাসী করে তুলেছে ইস্টবেঙ্গলকে। সেই আত্মবিশ্বাস নিয়েই পরের ম্যাচে ওড়িশার বিরুদ্ধে তিন পয়েন্টের জন্য ঝাঁপাতে চান নন্দকুমারেরা।

picture of nandhakumar sekar

নন্দকুমার। ছবি: এক্স (টুইটার)।

আনন্দবাজার অনলাইন ডেস্ক
কলকাতা শেষ আপডেট: ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ২২:০৬
Share: Save:

চেন্নাইয়ন এফসির বিরুদ্ধে জয়ের পর আত্মবিশ্বাসী ইস্টবেঙ্গল শিবির। চলতি মরসুমে একাধিক গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে লাল-হলুদের হয়ে গোল করা নন্দকুমার শেকরও আত্মবিশ্বাসী। তাঁর গোলেই সোমবার এ বারের আইএসএলের চতুর্থ জয় পেয়েছে ইস্টবেঙ্গল। এ বার সামনে প্রতিযোগিতার অন্যতম সেরা দল ওড়িশা এফসি। নন্দকুমার আত্মবিশ্বাসী সেই ম্যাচ নিয়েও।

কিছু দিন আগেই ওড়িশা এফসিকে হারিয়ে কলিঙ্গ সুপার কাপ চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল ইস্টবেঙ্গল। ওড়িশার সেই দলের সঙ্গে এখনকার দলের পার্থক্য অনেক। তবু দলকে আরও একটা জয় এনে দেওয়ার ব্যাপারে আত্মবিশ্বাসী লাল-হলুদ উইঙ্গার। আইএসএলের ওয়েবসাইটকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে সে কথাই বলেছেন তিনি। চেন্নাইয়ন ম্যাচ নিয়ে তিনি বলেছেন, ‘‘চেন্নাইয়ন এফসি-র বিরুদ্ধে কঠিন ম্যাচে গোল করতে পেরে আমি খুব খুশি। ম্যাচটা আমাদের কাছে খুব গুরুত্বপূর্ণ ছিল। অনেকগুলো ড্র ও হারের পর তিন পয়েন্ট পাওয়া জরুরি ছিল। তাই আমি খুব খুশি।’’ এ বারের আইএসএলে নন্দকুমারের পা থেকে এসেছে পাঁচটি গোল। আরও তিনটি গোল করতে সাহায্য করেছেন সতীর্থদের। যদিও সন্তুষ্ট নন তিনি। নন্দকুমার চান দলের জন্য আরও কিছু করতে। বলেছেন, ‘‘শুধু নিজের জন্য নয়, দলকে পরের স্তরে নিয়ে যাওয়ার জন্য আরও করতে হবে আমাকে।’’

গত মরসুমে ওড়িশা এফসির হয়ে খেলেছেন নন্দকুমার। তাই পরের ম্যাচের প্রতিপক্ষ সম্পর্কে তাঁর যথেষ্ট ধারণা রয়েছে। নিজের প্রাক্তন দলের বিরুদ্ধে ম্যাচ নিয়ে লাল-হলুদ ফুটবলার বলেছেন, ‘‘আরও একটা কঠিন ম্যাচ খেলব আমরা। ওড়িশা এফসি এখন প্রতিযোগিতার এক নম্বর দল। আমরাও লড়াইয়ের জন্য প্রস্তুত। তিন পয়েন্টের লক্ষ্য নিয়েই খেলব আমরা।’’

চেন্নাইয়ন ম্যাচে হলুদ কার্ড দেখায় ওড়িশার বিরুদ্ধে খেলতে পারবেন না ইস্টবেঙ্গল রক্ষণের অন্যতম ভরসা হিজাজি মাহের। বিষয়টা যে সহজ হবে না মেনে নিয়েছেন নন্দকুমার। ২৮ বছরের ফুটবলার বলেছেন, ‘‘হিজাজিকে ছাড়া ওদের সামলানো কঠিন। তবে আমাদের দলে এমন কিছু খেলোয়াড় আছে যারা দায়িত্ব নিতে প্রস্তুত। বেঞ্চের খেলোয়াড়দের কাছে এটা বড় সুযোগ। আশা করি, সেই ওরা এই সুযোগ কাজে লাগাবে।’’ নন্দকুমার বুঝিয়ে দিয়েছেন, কে আছে কে নেই— তা নিয়ে ভাবছেনা কার্লেস কুয়াদ্রাতের দল। তাঁদের একটাই ভাবনা। পরের ম্যাচেও তিন পয়েন্ট।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE