Advertisement
২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২
Emami East Bengal

East Bengal: অভিষেকের দল আটকে দিল ইস্টবেঙ্গলকে, সুযোগ নষ্টে হতাশ লাল-হলুদ কোচ

ডায়মন্ড হারবার এফসির বিরুদ্ধে প্রস্তুতি ম্যাচে ইস্টবেঙ্গল মূলত রিজার্ভ দলের ফুটবলারদের খেলিয়েছে। গোল করতে পারল না কোনও পক্ষই।

প্রথম দলের ফুটবলারদের প্রস্তুতি ম্যাচে খেলায়নি ইস্টবেঙ্গল।

প্রথম দলের ফুটবলারদের প্রস্তুতি ম্যাচে খেলায়নি ইস্টবেঙ্গল। ছবি: টুইটার।

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ১৬ অগস্ট ২০২২ ২১:১৯
Share: Save:

মরসুমের প্রথম ম্যাচেই আটকে গেল ইমামি ইস্টবেঙ্গল। লাল-হলুদ ব্রিগেডকে আটকে দিল কলকাতা ময়দানের নতুন দল ডায়মন্ড হারবার এফসি। গোলশূন্য শেষ হল মঙ্গলবারের প্রস্ততি ম্যাচ।

তৃণমূল সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের ক্লাব ডায়মন্ড হারবার এফসি-র বিরুদ্ধে আটকে গেল ইস্টবেঙ্গল। ম্যাচটি হেরেও যেতে পারত ইমামি ইস্টবেঙ্গল। অনবদ্য খেললেন লাল- হলুদের গোলকিপার দেবনাথ কুন্ডু। তিনি না থাকলে ইমামি ইস্টবেঙ্গল ম্যাচটা হারতেও পারত। ইমামি ইস্টবেঙ্গল এই ম্যাচে মূলত রিজার্ভ দলের ফুটবলারদের নামায়। আক্রমণ, প্রতিআক্রমণে দু’দলের হাড্ডাহাড্ডি লড়াই হয়। গোলের সুযোগ পাওয়ার ক্ষেত্রে ইমামি ইস্টবেঙ্গলকে টেক্কা দেয় ডায়মন্ড হারবার এফসি। বিক্রমজিত সিংহ সহজ সুযোগ নষ্ট করেন। ইমামি ইস্টবেঙ্গলের খেলায় প্রস্তুতির অভাব ছিল স্পষ্ট। প্রায় গোটা ম্যাচ প্রেস বক্সে বসেই দেখেন কোচ স্টিভন কনস্ট্যানটাইন। মাঝে মাঝে হতাশায় মাথা নাড়তে দেখে গিয়েছে তাঁকেও।

প্রস্তুতি ম্যাচে দলের খেলায় অবশ্য খুশি সহকারী কোচ বিনো জর্জ। ম্যাচের পর বিনো বলেন, ‘‘সবে ১৫-১৬ দিন হল দলটা তৈরি হয়েছে। ম্যাচ খেলা তো আর চা তৈরির মতো সহজ ব্যাপার নয়। প্রধান কোচকে অনুরোধ করে মূল দল থেকে তিন জন ফুটবলারকে নিয়েছিলাম। তাদের খেলিয়েছি। এই দলেও বেশ কিছু ফুটবলার রয়েছে, যারা ভবিষ্যতে সিনিয়র দলে সুযোগ পেতে পারে। তবে কম সময়ে দল তৈরি এবং অনুশীলনের পরেও ফুটবলাররা যা খেলেছে তাতে আমি খুশি। কনস্ট্যানটাইন নিজে পুরো খেলা দেখেছেন। বিরতিতে তিনি কিছু খেলোয়াড় পরিবর্তন করতে বলেন। কিন্তু হাতে বেশি ফুটবলার না থাকায় তা সম্ভব হয়নি।’’

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.