Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২০ অক্টোবর ২০২১ ই-পেপার

ধোনি পেয়েছিলেন ক্রিকেট সম্প্রীতির পুরস্কার, ১০ বছর পরে দোষ স্বীকার ইংরেজ ক্রিকেটারের

নিজস্ব প্রতিবেদন
কলকাতা ১৪ মে ২০২১ ১১:৩২
ফিরে এল ২০১১ সালের সেই রান আউটের ঘটনার স্মৃতি।

ফিরে এল ২০১১ সালের সেই রান আউটের ঘটনার স্মৃতি।

ঘটনার ১০ বছর পর দোষ স্বীকার করলেন ইংল্যান্ডের প্রাক্তন ক্রিকেটার ইয়ান বেল। ২০১১ সালের সেই ঘটনার জন্য দশকের সেরা ‘স্পিরিট অব ক্রিকেট’ পুরস্কার পেয়েছিলেন মহেন্দ্র সিংহ ধোনি। যে ঘটনার জন্য তিনি পুরস্কার পেয়েছিলেন সেখানে তাঁর দোষ ছিল বলে স্বীকার করলেন বেল। কী ঘটেছিল ২০১১ সালে?

ইংল্যান্ড সফরে গিয়েছিল ভারত। দ্বিতীয় টেস্টের তৃতীয় দিনে ঘটনাটি ঘটে। চা বিরতিতে যাওয়ার আগের বলটি খেলেন অইন মর্গ্যান। উল্টো দিকে নন স্ট্রাইকার হিসেবে দাঁড়িয়েছিলেন বেল। বলটি মারার পর মর্গ্যান ভেবেছিলেল বাউন্ডারিতে পৌঁছে গিয়েছে। মাঠ ছাড়ার জন্য এগিয়ে যান তিনি, সঙ্গী হন বেলও। কিন্তু প্রবীণ কুমার বলটি আটকে দেন। ধোনির কাছে বল ফেরৎ পাঠান তিনি। কালবিলম্ব না করে ধোনি বল ছুড়ে দেন অভিনব মুকুন্দকে। বেলকে রান আউট করেন তিনি। অবাক হয়ে যান ইংরেজ ব্যাটসম্যান। তিনি তখন ১৩৭ রানে ব্যাট করছিলেন। ইংরেজ সমর্থকরা ভারতীয় ক্রিকেটারদের উদ্দেশে ব্যঙ্গাত্মক আওয়াজও করতে থাকে।

বিরতির পর দেখা যায় মর্গ্যানের সঙ্গে ব্যাট করতে নামছেন বেল। জানা যায় ধোনি আউটের আবেদন ফিরিয়ে নিয়েছেন। বেল বলেন, “এতদিন পর ওই ঘটনার কথা যখন ভাবি, অবাক লাগে। আমাদের খিদে পেয়ে গিয়েছিল মনে হয়। তাই তাড়াহুড়ো করে হাঁটা লাগিয়েছিলাম সাজঘরের দিকে। একটু দেখে নিলেই কোনও ঘটনা ঘটত না। ধোনি ‘স্পিরিট অব ক্রিকেট’ পুরস্কার পায়। তবে দোষ আমার ছিল। এমন করা উচিত নয়।”

Advertisement

সেই ম্যাচে ১৫৬ রান করেন বেল। ইংল্যান্ডের কাছে ৩১৯ রানে হারতে হয় ভারতকে। সিরিজেও ০-৪ ব্যবধানে পর্যুদস্ত হন ধোনিরা।

আরও পড়ুন

Advertisement