Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

০৪ ডিসেম্বর ২০২১ ই-পেপার

পিছিয়ে পড়ে ফিল্ডিংকে দায়ী করলেন স্টার্ক

নিজস্ব প্রতিবেদন 
কলকাতা ২৮ ডিসেম্বর ২০২০ ০৪:৫৭
ব্যর্থ: স্লিপে সহজ ক্যাচ ফেলছেন স্মিথ। রবিবার মেলবোর্নে। রয়টার্স

ব্যর্থ: স্লিপে সহজ ক্যাচ ফেলছেন স্মিথ। রবিবার মেলবোর্নে। রয়টার্স

মেলবোর্নে রবিবার ২৫০ টেস্ট উইকেটের মালিক হলেন মিচেল স্টার্ক। তবুও অস্ট্রেলিয়া প্রথম ইনিংসে পিছিয়ে পড়ায় ক্ষুব্ধ তারকা বাঁ-হাতি পেসার। তিনি মানছেন, রাহানের ইনিংস অসাধারণ, কিন্তু চার থেকে পাঁচটি সুযোগ নষ্ট না করলে রাহানে আগেই হয়তো ফিরে যেতেন ড্রেসিংরুমে।

দ্বিতীয় দিনের শেষে সাংবাদিক বৈঠকে স্টার্ক বলেছেন, “বোলার হিসেবে দিনটা হতাশজনক। তবে বলা যাবে না সব চেয়ে খারাপ দিন। কারণ ম্যাচে ফেরার প্রচুর সুযোগও তৈরি করেছি আমরা। যা কাজে লাগানো উচিত ছিল।”

রাহানে সেঞ্চুরি করলেও তিনি যে বেশ কয়েকটি সুযোগ দিয়েছেন, তা উল্লেখ করতে ভোলেননি স্টার্ক। তাঁর কথায়, ‘‘চাপ সামলে ভাল ইনিংস গড়েছে রাহানে। ভারত যখন ম্যাচ থেকে হারিয়ে যেতে শুরু করে, তখনই ঢাল হয়ে দাঁড়ায়।” তিনি যদিও যোগ করেছেন, ‘‘রাহানেকে না হলেও পাঁচ বার আউট করার সুযোগ পেয়েছি। কিন্তু এক বারও কাজে লাগাতে পারিনি। ভাগ্য একেবারে ভারতের সঙ্গ দিয়েছে। এই বেশ কয়েকটি সুযোগের সদ্ব্যবহার করে বড় ইনিংস সাজিয়েছে ও। যার উপরে দাঁড়িয়ে বড় রানে এগিয়ে গিয়েছে ভারত।”

Advertisement

টেস্টে ২৫০ উইকেট নেওয়ার কীর্তি গড়েছেন। তবুও গর্বিত নন স্টার্ক। বললেন, “আমি এমন একজন ক্রিকেটার যে রেকর্ড নিয়ে কখনও ভাবে না। অবসর নেওয়ার পরে যদিও এ ধরনের পরিসংখ্যান আমাকে খুশি করবে। কিন্তু এখন এই সব নিয়ে চিন্তা করি না। বর্তমান ম্যাচ নিয়ে ভাবছি। এখনও ১৫টি উইকেট তুলতে হবে আমাদের। কাল ওদের দ্রুত ফেরাতে না পারলে ম্যাচ থেকে বেরিয়ে যেতে পারি। তবে হ্যাঁ, ২৫০ উইকেট নেওয়ার জন্য বেশ কিছু দিন ধরে ক্রিকেট খেলতে হয়। সেটা পেরেছি ভেবেই ভাল লাগছে।”

ব্যাটিং নিয়ে স্টার্ক বেশ চিন্তিত। অ্যাডিলেডে প্রথম টেস্টে অস্ট্রেলিয়ার কাঁটা হয়ে দাঁড়ান যশপ্রীত বুমরা ও আর অশ্বিন। দ্বিতীয় টেস্টেও বদলায়নি সেই ছবি। স্টার্ক মনে করেন, ম্যাচে ফিরতে হলে বড় রান করতেই হবে ব্যাটসম্যানদের। স্টার্কের প্রতিক্রিয়া, “একেবারে বড় রান করতে পারছি না আমরা। কোনও সুযোগই কাজে লাগানো যাচ্ছে না। দ্বিতীয় ইনিংসে বড় রান করতে না পারলে ম্যাচে ফেরা কোনও ভাবেই সম্ভব নয়। ব্যাটসম্যানদের দায়িত্ব নিতে হবে বড় রান করে দলকে ম্যাচে ফেরানোর।”

স্টার্কের নতুন কীর্তির দিন নজির গড়লেন অস্ট্রেলীয় অধিনায়ক টিম পেন। রবিবার মেলবোর্নে দ্রুততম ১৫০ শিকারের নজির গড়েন তিনি। টপকে গেলেন দক্ষিণ আফ্রিকার উইকেটকিপার কুইন্টন ডি›কক-কে। মোট ৩৩ ইনিংসে দেড়শো শিকারে পৌঁছন পেন। এত দিনে শীর্ষে থাকা ডি’ককের লেগেছিল ৩৪ ইনিংস। অ্যাডাম গিলক্রিস্টকেও এই তালিকায় টপকে গেলেন পেন। মোট ৩৬ ইনিংসে এই কীর্তি ছিল কিংবদন্তি অস্ট্রেলীয় উইকেটকিপারের।

আরও পড়ুন

Advertisement