Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১ ই-পেপার

নজির গড়ে দেশকে জেতালেন মিতালি

নিজস্ব প্রতিবেদন
কলকাতা ০৪ জুলাই ২০২১ ০৫:৫৮
ফাইল চিত্র।

ফাইল চিত্র।

৮৬ বলে অপরাজিত ৭৫ রানের ইনিংস উপহার দিয়ে তিনি শুধু দলকে জেতালেনই না, তারই সঙ্গে গড়ে ফেললেন অভিনব এক কীর্তি। মহিলাদের তিন ফর্ম্যাটের ক্রিকেটে প্রাক্তন ইংল্যান্ড অধিনায়ক শার্লট এডওয়ার্ডসের ১০,২৭৩ রানকে পিছনে ফেলে দিলেন মিতালি রাজ। এই মুহূর্তে ভারতীয় মহিলা দলের অধিনায়কের মোট রান দাঁড়াল ১০,২৭৭ (টেস্টে ৬৬৯, একদিনের ক্রিকেটে এখনও পর্যন্ত ৭২৪৪ এবং টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে ২৩৬৪)। তিনিই এই মুহূর্তে আন্তর্জাতিক মহিলা ক্রিকেটে সবচেয়ে বেশি রানের অধিকারী।

একদিনের সিরিজের ফয়সালা হয়ে গিয়েছিল আগেই। শনিবার নিয়মরক্ষার ম্যাচে ঘাড়ের চোট সারিয়ে ফেরা মিতালি খেললেন অধিনায়কোচিত ইনিংস। ইংল্যান্ডের ২১৯ রান তাড়া করতে নেমে ভারত তোলে ৬ উইকেটে ২২০ রান, তিন বল বাকি থাকতেই। মিতালির ইনিংসে ছিল আটটি চার। ম্যাচের সেরা ভারত অধিনায়ক বলেছেন, “ডাগআউটে বসে থেকে ম্যাচ জেতা যায় না। তাই আমি দলের স্বার্থেই এই ম্যাচে খেলার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলাম। ব্যাট করার সময় বুঝেছিলাম, এই রান তাড়া করতে হলে একটা ভাল পার্টনারশিপ তৈরি করা দরকার। সেখানে সতীর্থরা দারুণ সাহায্য করেছে। ম্যাচের শেষ বল পর্যন্ত উইকেটে থাকতে চেয়েছিলাম। সেই লক্ষ্যেও সফল হয়েছি। এই জয়টা তাই বেশি তৃপ্তিদায়ক মনে হচ্ছে।”

২১৯ রান তাড়া করতে নেমে ভারতের শুরুটা ভালই করেন স্মৃতি মন্ধানা এবং শেফালি বর্মা। ২৯ বলে ১৯ রান করে শেফালি ফিরে গেলেও স্মৃতি উপহার দেন ৫৭ বলে ৪৯ রানের ইনিংস। তিনি মারেন আটটি চার। ওপেনিং জুটিতে ওঠে ৪৬ রান। তার পরেই শুরু হয়ে যায় মিতালির শাসন। প্রথমে হরমনপ্রীত কৌরের (১৬) সঙ্গে ৭৫ বলে ৫০, দীপ্তি শর্মার (১৮) সঙ্গে জুটি বেঁধে মূল্যবান ৩৩ রান এবং পরে স্নেহ রানার (২৪) সঙ্গেও ৫০ রানের জুটি গড়েন অধিনায়ক। তারই সঙ্গে চলতি সফরে ভারতীয় দলকে প্রথম জয়ও এনে দেন মিতালি।

Advertisement

বৃষ্টির কারণে শনিবারের ম্যাচ হয় ৪৭ ওভারের। ভেজা আবহাওয়ায় টসে জিতে মিতালি আগে ইংল্যান্ডকে ব্যাটিং করার আমন্ত্রণ জানান। ম্যাচের দ্বিতীয় ওভারে স্নেহ রানা শূন্য রানে ফিরিয়ে দেন ছন্দে থাকা ওপেনার ট্যামি বিউমোন্টকে। ইংল্যান্ডকে এই জায়গা থেকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার দায়িত্ব নেন অধিনায়ক হিদার নাইট (৭১ বলে ৪৬) এবং ন্যাট শিভার (৫৯ বলে ৪৯)। ভারতীয় বোলিংকে এ দিন নেতৃত্ব দেন দীপ্তি শর্মা। এই অফস্পিনার ১০ ওভারে ৪৭ রানে তুলে নেন তিন উইকেট।

সংক্ষিপ্ত স্কোর: ইংল্যান্ড ২১৯ (হিদার নাইট ৪৬। দীপ্তি ৩-৪৭)। ভারত ২২০-৬ (মিতালি অপরাজিত ৭৫, স্মৃতি মন্ধানা ৪৯, স্নেহ রানা ২৪। সোফি এক্লেস্টোন ২-৩৬)। ভারত জয়ী ৪ উইকেটে।

আরও পড়ুন

More from My Kolkata
Advertisement