Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

১৬ অগস্ট ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ধোনির আগমন, একদিনের ক্রিকেটে সচিনের বিদায়ের দিন

২০০৪ সালের ২৩ ডিসেম্বর চট্টগ্রামে বাংলাদেশের বিরুদ্ধে ওয়ানডে অভিষেক হয়েছিল ধোনির। আবার ২০১২  সালের ২৩ ডিসেম্বরই ওয়ানডে ক্রিকেটকে বিদায় জানিয়

নিজস্ব প্রতিবেদন
কলকাতা ২৩ ডিসেম্বর ২০২০ ১৬:২৫
Save
Something isn't right! Please refresh.
মহেন্দ্র সিংহ ধোনি ও সচিন তেন্ডুলকর।

মহেন্দ্র সিংহ ধোনি ও সচিন তেন্ডুলকর।

Popup Close

২৩ ডিসেম্বর। ভারতীয় ক্রিকেটের এক উল্লেখযোগ্য দিন। কারণ, এই দিনেই আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে পা রেখেছিলেন মহেন্দ্র সিংহ ধোনি। আবার, এই দিনেই একদিনের ক্রিকেটকে বিদায় জানানোর কথা ঘোষণা করেছিলেন সচিন তেন্ডুলকর

২০০৪ সালের ২৩ ডিসেম্বর চট্টগ্রামে বাংলাদেশের বিরুদ্ধে ওয়ানডে অভিষেক হয়েছিল ধোনির। তবে অভিষেক সুখের হয়নি। কোনও রান না করে ফিরতে হয়েছিল ধোনিকে। হয়েছিলেন রান আউট। খেলেছিলেন মাত্র ১ বল।

সেই ম্যাচ ১১ রানে জিতেছিল সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের দল। প্রথমে ব্যাট করে মহম্মদ কাইফের ৮০ ও রাহুল দ্রাবিড়ের ৫৩ রানের সুবাদে ভারত ৮ উইকেট হারিয়ে তুলেছিল ২৪৫। জবাবে বাংলাদেশ ৬ উইকেট হারিয়ে থামে ২৩৪ রানে। ভারতের শ্রীধরন শ্রীরাম নেন ৩ উইকেট। ম্যাচের সেরা হন কাইফ।

Advertisement

আরও পড়ুন: বক্সিং ডে টেস্টের প্রস্তুতি শুরু, নেটে নজর কাড়লেন শুভমন

আরও পড়ুন: আরও শক্তিশালী হয়ে ফিরবে ভারত, বিশ্বাস অজি স্পিনারের​

৩ ম্যাচের সেই ওয়ানডে সিরিজে ধোনি তেমন কোনও সাফল্য পাননি। ৩ ম্যাচে করেন ১৯ রান। পরের বছর এপ্রিলে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে কেরিয়ারের পঞ্চম একদিনের ম্যাচে ১২৩ বলে ১৪৮ রানের ইনিংসে তাক লাগিয়ে দেন তিনি।

এদিকে, ২০১২ সালের ২৩ ডিসেম্বরই ওয়ানডে ক্রিকেটকে বিদায় জানিয়েছিলেন মাস্টার ব্লাস্টার সচিন, যা ক্রিকেটপ্রেমীদের কাছে যন্ত্রণার মুহূর্ত হয়েই থেকে গিয়েছে। লম্বা কেরিয়ারে ৪৬৩ ওয়ানডে খেলেছেন সচিন। করেছেন ১৮,৪২৬ রান। ৪৯ ওয়ানডে সেঞ্চুরির রেকর্ডও মুম্বইকরের দখলে। ২০১১ বিশ্বকাপ জয় সচিনের একদিনের কেরিয়ারকে পূর্ণতা দিয়েছে।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)


Something isn't right! Please refresh.

Advertisement