Advertisement
২২ ফেব্রুয়ারি ২০২৪
Asian Badminton Championship

ব্যাডমিন্টনে ভারতের ইতিহাস নতুন এশীয় চ্যাম্পিয়ন সাত্ত্বিক-চিরাগ জুটি

অন্ধ্রপ্রদেশের অমলাপুরমের ছেলে সাত্ত্বিকের বয়স ২২ এবং মুম্বইয়ের চিরাগের বয়স ২৫। ২০২২ বিশ্ব চ্যাম্পিয়নশিপে ব্রোঞ্জ জয়ী সাত্ত্বিকরা অনবদ্য ভাবে ঘুরে দাঁড়ান এ দিনের ফাইনালে।

An image of Chirag and Satwik

জুটি: সোনার পদক নিয়ে চিরাগ ও সাত্ত্বিক। রবিবার দুবাইয়ে। ছবি:  টুইটার।

নিজস্ব প্রতিবেদন
কলকাতা শেষ আপডেট: ০১ মে ২০২৩ ০৭:০৮
Share: Save:

৫৮ বছরের খরা কাটালেন ভারতের সাত্ত্বিকসাইরাজ রনকিকেড্ডি এবং চিরাগ শেট্টির জুটি। ভারতীয়দের মধ্যে দীনেশ খন্নার পরে ব্যাডমিন্টন এশিয়া চ্যাম্পিয়নশিপ থেকে দ্বিতীয় সোনা এল তাঁদের হাত ধরে।

অন্ধ্রপ্রদেশের অমলাপুরমের ছেলে সাত্ত্বিকের বয়স ২২ এবং মুম্বইয়ের চিরাগের বয়স ২৫। ২০২২ বিশ্ব চ্যাম্পিয়নশিপে ব্রোঞ্জ জয়ী সাত্ত্বিকরা অনবদ্য ভাবে ঘুরে দাঁড়ান এ দিনের ফাইনালে। মালয়েশিয়ার ওং ইউ সিন এবং তেও ই-এর বিরুদ্ধে তাঁরা প্রথম গেমে হারেন। সেখান থেকে হাড্ডহাড্ডি লড়ে তাঁরা ম্যাচ জিতে নেন ১৬-২১, ২১-১৭, ২১-১৯ ফলে। জয়ের পরে উচ্ছ্বসিত সাত্ত্বিক বলেছেন, ‘‘বিশ্বাসই করতে পারছিলাম না প্রথমে আমরাই নতুনএশীয় চ্যাম্পিয়ন। দেশকে আরও সাফল্য এনে দিতে চাই।’’

দীনেশ খন্না ১৯৬৫ সালে লখনউয়ে এই প্রতিযোগিতার সিঙ্গলসের ফাইনালে তাইল্যান্ডের সাংগব রাতানুসোর্নকে হারিয়ে সোনা জিতেছিলেন। এর আগে পুরুষদের ডাবলসে এশিয়া চ্যাম্পিয়নশিপে ভারতীয় খেলোয়াড়দের সেরা ফল ছিল ১৯৭১ সালে দীপু ঘোষ এবং রামন ঘোষের ব্রোঞ্জ পদক জয়।

এ ছাড়া ১৯৬২ থেকে এই প্রতিযোগিতায় বিভিন্ন বিভাগে মোট ১৭টি ব্রোঞ্জ পদক জিতেছে ভারত। কিন্তু এত দিন দ্বিতীয় সোনা আসেনি। সেই অভাব পূরণ করল তারকা ভারতীয় ডাবলস জুটি। এ ছাড়া বিশ্বব্যাডমিন্টন সংস্থার ওয়ার্ল্ড টুরে পাঁচ বার খেতাব জিতেছেন সাত্ত্বিক-চিরাগ। তবে ব্যাডমিন্টন এশিয়া চ্যাম্পিয়নশিপে সোনা তাঁদের খেলোয়াড়জীবনের এখনও পর্যন্ত সেরা কৃতিত্ব বলা যায়। ভারতীয় ব্যাডমিন্টন সংস্থার সভাপতি ও অসমের মুখ্যমন্ত্রী হিমন্ত বিশ্বশর্মা তাঁদের ২০ লক্ষ টাকা পুরস্কার দেওয়ারকথা ঘোষণা করেছেন।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE