Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

০৫ ডিসেম্বর ২০২১ ই-পেপার

শাকিবের এই ভুল বড় ধাক্কা, বলছেন আশরাফুল

নিজস্ব প্রতিবেদন
০১ নভেম্বর ২০১৯ ০৪:১২
শাকিব আল হাসান।

শাকিব আল হাসান।

শাকিব আল হাসানের নির্বাসন তাঁর কাছে একটা বড়সড় ধাক্কা। বলছেন, বাংলাদেশের আর এক প্রাক্তন ক্রিকেট তারকা মহম্মদ আশরাফুল। তাঁর মতে, জুয়াড়িদের কাছ থেকে প্রস্তাব পাওয়ার পরে তা আইসিসি-র দুর্নীতি দমন শাখাকে না জানানোটাই শাকিবের একমাত্র ভুল। একই সঙ্গে সংবাদমাধ্যমের কাছে তাঁর পরামর্শ, শাকিবের জীবনের এই দুঃখজনক ঘটনা নিয়ে বেশি প্রচার না হওয়াই ভাল। আশরাফুলের যুক্তি, শাকিবের প্রত্যাবর্তন এর ফলে বেশি বাধাপ্রাপ্ত হতে পারে।

অতীতে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে ম্যাচ গড়াপেটা দুর্নীতিতে অভিযুক্ত হয়েছিলেন আশরাফুল। দোষী প্রমাণিত হওয়ায় পাঁচ বছর নির্বাসিত হয়েছিলেন। তাঁর বাস্তব অভিজ্ঞতা রয়েছে, এই পরিস্থিতিতে কী ভাবে বিতর্ক এড়িয়ে চলতে হয়। সেই পরামর্শ দিয়েও শাকিবের পাশে দাঁড়াতে চান আশরাফুল।

সম্প্রতি পাঁচ বছরের নির্বাসন কাটিয়ে প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে ফিরেছেন আশরাফুল। বৃহস্পতিবার তিনি বলেন, ‘‘আমাদের দু’জনের ব্যাপারটা ভিন্ন। শাকিব আইসিসির দুর্নীতি দমন শাখাকে জানায়নি যে ম্যাচ গড়াপেটার সঙ্গে যুক্ত ব্যক্তিরা ওকে প্রস্তাব দিয়েছে। কিন্তু আমার বিরুদ্ধে ম্যাচ গড়াপেটার অভিযোগ উঠেছিল সরাসরি। তবে শাকিবের এই পরিণতি অবশ্যই একটা বড় ধাক্কা।’’ যোগ করেন, ‘‘আমি ও শাকিব— দু’জনের কাছেই ক্রিকেটটা অত্যন্ত প্রিয়। কারণ, খেলাটা আমরা উপভোগ করি পুরোমাত্রায়। সেখানে এ রকম পরিস্থিতি এলে মনের অবস্থা কী হয়, তা আমার খুব ভাল জানা রয়েছে। এই মুহূর্তে শাকিব কী মানসিক অবস্থার মধ্য দিয়ে যাচ্ছে, তা ব্যাখ্যা করা খুব কঠিন।’’ তিনি আরও বলেন, ‘‘তবে শাকিব হচ্ছে সেই মানের ক্রিকেটার যে অতীতে চোট-আঘাত সারিয়ে প্রবল ভাবে ফিরে এসেছে। আশা রাখছি, এ বারও ফিরে এসে দুর্দান্ত

Advertisement

পারফরম্যান্স করবে।’’

উল্লেখ্য, ৩২ বছর বয়সি শাকিব শাস্তি পাওয়ার আগে ওয়ান ডে ক্রিকেটের সেরা অলরাউন্ডার ছিলেন। তাঁর বিরুদ্ধে অভিযোগ, ভারতীয় জুয়াড়ি দীপক আগরওয়ালের কাছে থেকে তিন বার গড়াপেটার প্রস্তাব পেলেও এ ব্যাপারে কিছুই জানাননি আইসিসি-র দুর্নীতি দমন শাখাকে। যার মধ্যে একটি প্রস্তাব এসেছিল গত বছর আইপিএল চলার সময়ে। বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাও তারকা ক্রিকেটার শাকিবের এই দুঃসময়ে সমবেদনা জানিয়েছেন।

তাঁর নিজের অভিজ্ঞতার কথা জানিয়ে আশরাফুল বলেছেন, ‘‘প্রথম ছয় মাস ঘুমিয়ে কাটিয়েছিলাম। সারা রাত টিভি দেখতাম। ঘুম থেকে উঠতাম বেলা দু’টোর সময়ে। তার পরেই হজে চলে গিয়েছিলাম। সেখান থেকে ফেরার পরেই জীবনের নতুন লক্ষ্য স্থির করতে পেরেছিলাম।’’ যোগ করেন, ‘‘যখন শাস্তি পেয়েছিলাম, তখন বয়স ছিল ৩০। তাই প্রত্যাবর্তনের খুব ইচ্ছা ছিল। কিন্তু শাকিব আজ যে সমর্থন ও সহযোগিতা পাচ্ছে, তা আমি পাইনি।’’

আশরাফুল আরও বলেন, ‘‘নির্বাসনে থাকার সময়ে অনুশীলন করা নিয়ে সমস্যা হত। ঢাকায় আইনজীবীদের সঙ্গে অনুশীলন করতাম। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে গিয়ে আইসিসির অনুমোদন নেই এমন প্রতিযোগিতায় খেলে নিজেকে ফিট রাখার চেষ্টা করতাম। কিন্তু শাকিবকে এই যন্ত্রণা ভোগ করতে হবে না। কারণ ওকে মীরপুরে অনুশীলন করার অনুমতি দেওয়া হয়েছে।’’

আরও পড়ুন

Advertisement