Advertisement
০১ ডিসেম্বর ২০২২
Indian Olympics Team

Tokyo Olympics: স্বাধীনতা দিবসে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে চুরমা, ফুচকা, আইসক্রিম খাবেন নীরজ, সিন্ধুরা

১৫ অগস্ট স্বাধীনতা দিবসে অলিম্পিক্সে অংশ নেওয়া ভারতীয় দলের প্রত্যেক সদস্যের সঙ্গে দেখা করবেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। এরপর চলবে দেদার খাওয়া-দাওয়া।

কেন্দ্রীয় ক্রীড়ামন্ত্রী অনুরাগ ঠাকুর ও প্রাক্তন ক্রীড়ামন্ত্রী কিরেন রিজিজুর সঙ্গে নীরজ চোপড়া।

কেন্দ্রীয় ক্রীড়ামন্ত্রী অনুরাগ ঠাকুর ও প্রাক্তন ক্রীড়ামন্ত্রী কিরেন রিজিজুর সঙ্গে নীরজ চোপড়া। ছবি - টুইটার

নিজস্ব প্রতিবেদন
কলকাতা শেষ আপডেট: ১০ অগস্ট ২০২১ ১৫:১০
Share: Save:

ভেবেছিলেন দেশে পা রেখেই পেট পুরে প্রিয় ফুচকা ও চুরমা খাবেন। কিন্তু এখনও পর্যন্ত দুটি প্রিয় খাবারের স্বাদ পাননি সোনার ছেলে নীরজ চোপড়া। তবে ফুচকা ও চুরমা খাওয়ার জন্য তাঁকে বেশি দিন অপেক্ষা করতে হবে না। আগামী ১৫ অগস্ট স্বাধীনতা দিবসে অলিম্পিক্সে অংশ নেওয়া ভারতীয় দলের প্রত্যেক সদস্যের সঙ্গে দেখা করবেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। লালকেল্লায় জাতীয় পতাকা উত্তোলনের পর সব অ্যাথলিটদের সংবর্ধনা দেবেন তিনি। এরপর চলবে দেদার খাওয়া-দাওয়া।

Advertisement

২৩ বছরের নীরজের পাশে দাঁড়িয়ে কেন্দ্রীয় ক্রীড়ামন্ত্রী অনুরাগ ঠাকুর বলেন, “নীরজ এই মুহূর্তে আপনার প্রিয় ফুচকা ও চুরমার ব্যবস্থা করতে পারলাম না। এমনকি পিভি সিন্ধুর প্রিয় আইসক্রিমও এখানে নেই। তবে চিন্তা করবেন না। একটু অপেক্ষা করুন। ১৫ অগস্ট স্বাধীনতা দিবসে প্রধানমন্ত্রী আপনাদের সঙ্গে দেখা করবেন। তারপর সবাই একসঙ্গে খাওয়া দাওয়া করব।”

অলিম্পিক্সে অংশ নেওয়া ভারতীয় দলের প্রত্যেক সদস্যকে সংবর্ধনা দেবেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

অলিম্পিক্সে অংশ নেওয়া ভারতীয় দলের প্রত্যেক সদস্যকে সংবর্ধনা দেবেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

সোমবার দেশে পা রাখার পর নয়াদিল্লির একটি হোটেলে নীরজ ছাড়া পুরুষ ও মহিলা হকি দল, ব্রোঞ্জজয়ী দুই অ্যাথলিট লভলিনা বড়গোহাঁই ও বজরং পুনিয়াকে সম্মান জানানো হয়। সেখানেই এই ঘোষণা করেন অনুরাগ ঠাকুর।

তাঁকে নিয়ে যে আবেগের বিস্ফোরণ ঘটবে, সেটা আগেই বুঝতে পেরেছিলেন। ফলে দেশে ফিরেই সাধারণ মানুষদের ধন্যবাদ জানালেন নীরজ। তিনি বলেন, “আমার পাশে থাকার জন্য, আমাকে সাহস জোগানোর জন্য সবাইকে ধন্যবাদ। এই পদক শুধু আমার নয়, এটা দেশের সম্পত্তি। সোনা জেতার পর থেকে এই পদক চোখের সামনে থেকে সরাইনি। কতবার যে এই পদকে চোখ গিয়েছে সেটা বলে বোঝাতে পারব না। আপনাদের ভালবাসার জন্যই পদক জেতা সম্ভব হল।”

Advertisement
(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.