আন্দোলনকারীদের সঙ্গে কথা বলার জন্য ফের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে পরামর্শ দিলেন রাজ্যপাল কেশরীনাথ ত্রিপাঠী। শুক্রবারের পর শনিবার। পর পর দু’দিন মুখ্যমন্ত্রীকে চিঠি লিখে চিকিৎসকদের নিরাপত্তার বিষয়টি সুনিশ্চিত করার কথাও বললেন তিনি। পাশাপাশি, আন্দোলনরত চিকিৎসকদের কাজে ফেরার আবেদনও জানিয়েছেন রাজ্যপাল। এ দিন রাজভবন থেকে একটি প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, রাজ্যপাল মুখ্যমন্ত্রীকে ফের একটি চিঠি লিখেছেন। ওই বিজ্ঞপ্তিতে চিঠির বিষয়বস্তু সম্পর্কেও জানানো হয়েছে।

শুক্রবারের মতো এ দিনও মুখ্যমন্ত্রীকে লেখা চিঠিতে রাজ্যপালের পরামর্শ, চিকিৎসকদের নিরাপত্তার বিষয়টি নিশ্চিত করুক রাজ্য সরকার। পাশাপাশি, তাঁদের নিরাপত্তার বিষয়টি নিয়ে আশ্বস্ত করার জন্যও মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে পরামর্শ দিয়েছেন রাজ্যপাল। এ ছাড়া, নীলরতন সরকার মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে জুনিয়র চিকিৎসকদের নিগ্রহের ঘটনায় দ্রুত তদন্তের জন্য সরকারকে বলেছেন তিনি। যাতে চিকিৎসকেরা উপযুক্ত পরিবেশে তাঁদের কাজে ফিরতে পারেন।

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে কথা বলার জন্য শুক্রবার তাঁকে ফোন করেছিলেন রাজ্যপাল। তবে নবান্ন থেকে জানানো হয়, মুখ্যমন্ত্রী বাইরে রয়েছেন। এর পর অবশ্য কেশরীনাথ ত্রিপাঠীর কাছে মমতার কোনও ফোন যায়নি। মুখ্যমন্ত্রীর তরফে এ বিষয়ে কোনও প্রতিক্রিয়া না মেলায় তাঁর এ দিনের চিঠিতে খেদ প্রকাশ করেছেন রাজ্যপাল। যদিও এ দিনের সাংবাদিক বৈঠকে মুখ্যমন্ত্রীর দাবি, রাজ্যপালের সঙ্গে কথা হয়েছে তাঁর। এবং গোটা বিষয়ে সরকারের অবস্থানে সন্তুষ্ট রাজ্যপাল।

আরও পড়ুন: মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করে মধ্যস্থতার দায়িত্বে ‘ব্যর্থ’ জানিয়ে সরে গেলেন ৫ প্রবীণ চিকিৎসক

আরও পড়ুন: মানবিকতায় বিশ্বাস করি বলে এসমা জারি করিনি, ওরা বৈঠকে আসুক, বললেন মুখ্যমন্ত্রী​

গত কাল যে মুখ্যমন্ত্রীকে তিনি চিঠি লিখেছিলেন, তা-ও এ দিনের চিঠিতে উল্লেখ করেছেন কেশরীনাথ। ওই চিঠিতে চিকিৎসকদের ক্ষোভ ও দাবির কথা উল্লেখ করেছিলেন। পাশাপাশি, তাঁদের ক্ষোভ প্রশমিত করা হলে তাঁরা যে কাজে ফিরতে আগ্রহী, তা-ও চিঠিতে জানিয়েছিলেন রাজ্যপাল।

আরও পড়ুন: ‘অসত্ উদ্দেশ্যে ডাক্তার আন্দোলনে বাইরের লোক’, বহিরাগত বিতর্কে এ বার শান্তনু সেন

আরও পড়ুন: নবান্নে যাব না, মুখ্যমন্ত্রী এখানে আসুন, বৈঠক শেষে জানিয়ে দিলেন অনড় জুনিয়র ডাক্তাররা

এ ছাড়া, আন্দোলনকারীদের কাজে যোগদানের অনুরোধ করেছেন রাজ্যপাল। তিনি আরও লিখেছেন, ‘আমি আশ্বাস দিচ্ছি, নিজেদের দাবিদাওয়াগুলি নিয়ে তাঁদের প্রতিনিধিরা যাতে রাজ্য সরকারের কাছে পৌঁছতে পারেন, তার ব্যবস্থা করব।’

আন্দোলনকারীদের পাশাপাশি মুখ্যমন্ত্রীর কাছেও তাঁর পরামর্শ রয়েছে। চিকিৎসকদের সঙ্গে যাতে মুখ্যমন্ত্রী দেখা করেন, সেই পরামর্শই দিয়েছেন রাজ্যপাল। কেন না, মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে এখনও পর্যন্ত আন্দোলনকারী চিকিৎসকদের কোনও কথাই হয়নি।

এবার শুধু খবর পড়া নয়, খবর দেখাও। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদেরYouTube Channel - এ।