• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

ফের ৬২ জন মৃত, দৈনিক মৃত্যুতে কলকাতাকে ছাপাল উত্তর ২৪ পরগনা

coronavirus
গ্রাফিক: শৌভিক দেবনাথ।

রোজই করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে রাজ্যে। মঙ্গলবারও সেই ছবির কোনও ব্যত্যয় হল না। এ দিন স্বাস্থ্য দফতর প্রকাশিত বুলেটিন অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে নতুন করে সংক্রমিত হয়েছেন ৩ হাজার ১৮২ জন। যেখানে সোমবার এই সংখ্যাটা ছিল ৩ হাজার ১৬৫। রাজ্যে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা এই মুহূর্তে ২ লক্ষ ৩১ হাজার ৪৮৪। 

মৃত্যুর সংখ্যাটাও প্রশাসনের কাছে যথেষ্ট উদ্বেগের কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। সোমবার এক দিনে সবচেয়ে বেশি ৬২ জনের মৃত্যু হয়েছিল। এ দিনও মৃত্যুর সংখ্যাতে কোনও হেরফের হয়নি। ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু হয়েছে ৬২ জনের। এখনও পর্যন্ত রাজ্যে মোট মৃতের সংখ্যা ৪ হাজার ৪৮৩। মৃতের সংখ্যার দিক থেকে রাজ্যে প্রথম স্থানেই রয়েছে কলকাতা, তার পর উত্তর ২৪ পরগনা। তবে দৈনিক মৃত্যুতে কলকাতাকে টপকে গিয়েছে উত্তর ২৪ পরগনা। কলকাতায় ২৪ ঘণ্টায় ৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। সেখানে উত্তর ২৪ পরগনায় মৃত্যু হয়েছে ১২ জনের।

মৃত ও আক্রান্তের সংখ্যা নিয়ে চিন্তার কারণ থাকলেও, স্বস্তি দিয়েছে সুস্থতার হার।  গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়ে হাসপাতাল থেকে বাড়ি ফিরেছেন ৩ হাজার ৪৭ জন কোভিড রোগী। এই নিয়ে রাজ্যে মোট সুস্থ হয়ে ওঠা কোভিড রোগীর সংখ্যা ২ লক্ষ ২ হাজার ৩০। এই মুহূর্তে রাজ্যে সক্রিয় কোভিড আক্রান্ত রোগী রয়েছেন ২৪ হাজার ৯৭১ জন। এ দিন  স্বাস্থ্য দফতরের বুলেটিন অনুযায়ী রাজ্যে সুস্থতার হার ৮৭.২৮ শতাংশ। সোমবার এই হার ছিল ৮৬.১৬ শতাংশ। 

প্রতি দিন যত জন রোগীর কোভিড-টেস্ট করা হচ্ছে এবং তার মধ্যে প্রতি ১০০ জনে যত সংখ্যক রোগীর কোভিড-রিপোর্ট পজিটিভ আসছে, তাকেই বলা হয় পজিটিভিটি রেট বা সংক্রমণের হার। স্বাস্থ্য দফতরের বুলেটিন অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে ৪৫ হাজার ৪৪৭ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। 

 

সংক্রমণ এবং মৃত্যু— দু’টি ক্ষেত্রেই রাজ্যের মধ্য শীর্ষে কলকাতা। মঙ্গলবার কলকাতায় নতুন করে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ৫৩৪ জন। নতুন সংক্রমণের নিরিখে পিছিয়ে নেই উত্তর ২৪ পরগনাও। এ দিন সেখানে ৫২৭ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন।

 

অন্য দিকে, দক্ষিণ ২৪ পরগনায় এ দিন নতুন আক্রান্তের সংখ্যা ২১৮। হাওড়ায় ১৭৩, হুগলি ১৯৬, পশ্চিম বর্ধমান ১০১, পূর্ব মেদিনীপুরে ১৪১, পূর্ব বর্ধমানে ৯৫, পশ্চিম মেদিনীপুরে ১৩৩ জন নতুন করে করোনায় সংক্রমিত হয়েছেন। এ ছাড়া দক্ষিণ দিনাজপুরে ৫৪,  দার্জিলিঙে ৮৫, কোচবিহারে ৯৯,  জলপাইগুড়িতে ৮৭, উত্তর দিনাজপুরে ৫৮ জন নতুন করে সংক্রমিত হয়েছেন।

(জরুরি ঘোষণা: কোভিড-১৯ আক্রান্ত রোগীদের জন্য কয়েকটি বিশেষ হেল্পলাইন চালু করেছে পশ্চিমবঙ্গ সরকার। এই হেল্পলাইন নম্বরগুলিতে ফোন করলে অ্যাম্বুল্যান্স বা টেলিমেডিসিন সংক্রান্ত পরিষেবা নিয়ে সহায়তা মিলবে। পাশাপাশি থাকছে একটি সার্বিক হেল্পলাইন নম্বরও।

• সার্বিক হেল্পলাইন নম্বর: ১৮০০ ৩১৩ ৪৪৪ ২২২
• টেলিমেডিসিন সংক্রান্ত হেল্পলাইন নম্বর: ০৩৩-২৩৫৭৬০০১
• কোভিড-১৯ আক্রান্তদের অ্যাম্বুল্যান্স পরিষেবা সংক্রান্ত হেল্পলাইন নম্বর: ০৩৩-৪০৯০২৯২)

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন