• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

বেড়েই চলেছে গতি, বুধবার দুপুরে প্রবল বেগে আছড়ে পড়বে সুপার সাইক্লোন ‘আমপান’

Cyclone Amphan
অতি শক্তিশালী হচ্ছে ঘূর্ণিঝড় আমপান। —ফাইল চিত্র।

১৯৯৯-এ ওড়িশায় আছড়ে পড়া ‘সুপার সাইক্লোন’-এর মতোই ভয়ঙ্কর চেহারা নেবে ঘূর্ণিঝড় আমপান। এমনটাই সতর্কবার্তা দিল মৌসম ভবন। এ রাজ্যে আছড়ে পড়ার পর আমপানের দাপটে যে ঝোড়ো হাওয়া বইবে, তার গতিবেগও পাল্লা দেবে ’৯৯-এ ওড়িশার সেই ‘সুপার সাইক্লোন’-এর সঙ্গে। 

শক্তিশালী থেকে অতি শক্তিশালী হচ্ছে ঘূর্ণিঝড় আমপান। এ রাজ্যের দিঘা থেকে বাংলাদেশের হাতিয়া দ্বীপের মধ্যবর্তী কোনও এলাকায় আমপান আছড়ে পড়তে পারে। আগামী ২৪ ঘণ্টার মধ্যে আমপানের শক্তি কয়েকগুণ বাড়বে। আবহাওয়া বিজ্ঞানীরা জানাচ্ছেন, আমপান ‘সুপার সাইক্লোন স্টর্ম’-এর চেহারা নেবে।  এই অতি শক্তিশালী ঘূ্র্ণিঝড়ের ঘূর্ণনের গতিবেগ হতে পারে সর্বোচ্চ ১৮০ কিলোমিটার প্রতি ঘণ্টা।

আমপানের ঝাপটায় সব থেকে বেশি ক্ষতক্ষতির সম্ভাবনা রয়েছে, দিঘা, মন্দারমণি, সুন্দরবনের সমুদ্র সৈকত এবং উপকূলবর্তী এলাকায়। ঝড়ের তাণ্ডবে কাঁচা বাড়ির ভেঙে পড়তে পারে। গাছ, বিদ্যুতের খুঁটি উপড়ে যাওয়ার সম্ভবনা রয়েছে। প্রাণহানির ঘটনা যাতে না ঘটে,তার আগাম সতর্কতা হিসেবে উপকূলের বাসিন্দাদের নিরাপদ জায়গায় সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। রাজ্য প্রশাসন গোটা পরিস্থিতির উপরে নজর রেখেছে। উপকূলবর্তী এলাকাগুলিতে বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনী মোতায়েন করা হয়েছে।

ক্ষয়ক্ষতি হতে পারে চাষেরও।  এ বিষয়ে কেন্দ্র সমন্বয় রেখে চলছে রাজ্যের সঙ্গে।  করোনা আবহের মধ্যে এই দুর্যোগ পরিস্থিতি মোকাবিলায় মধ্যে ‘সোশ্যাল ডিস্ট্যান্সিং’-এর বিষয়টি মাথায় রাখা হচ্ছে। রাজ্যের তরফে উপকূলের জেলাগুলির প্রশাসনকে তৈরি থাকতে বলা হয়েছে।

আরও পড়ুন: দায়ী চিন? করোনা নিয়ে নিরপেক্ষ তদন্তে ভারত-সহ ৬২ দেশ​

আলিপুর আবহাওয়া দফতর সূত্রে খবর, পশ্চিম-মধ্য বঙ্গোপসাগরের উপরে অবস্থান করছে আমপান। এর অভিমুখ রয়েছে উত্তর দিকে।  কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই বাঁক নিয়ে তা উত্তর-পূর্ব দিকে এগোতে শুরু করবে। এখন আমপান পারাদ্বীপ থেকে ৭৮০ কিলোমিটার দূরে রয়েছে। দিঘা থেকে এর দূরত্ব ৯৩০ কিলোমিটার, বাংলাদেশের খেপুপাড়া থাকে ১০৫০ কিমি। বুধবার দুপুরে প্রায় ১৫৫ থেকে ১৬৫ কিলোমিটার প্রতি ঘণ্টা ঘূর্ণনের গতিবেগে আছড়ে পড়ার সম্ভাবনা রয়েছে।  এমনকি, এর ঘূর্ণনের গতি উঠতে পারে ১৮৫ কিলোমিটারের আশপাশে। এমন গতিতে যদি এ রাজ্যের উপরে স্থলভাগে আছড়ে পড়ে আমপান, তা হলে ভয়ঙ্কর ভাবে ক্ষতির সম্ভাবনাও থাকছে।

আরও পড়ুন: চতুর্থ দফার লকডাউনে কোথায় ছাড়, কোথায় নয়, দেখে নিন​

আমপানের প্রভাবে কলকাতা, দুই মেদিনীপুর, দুই ২৪ পরগনা, হুগলি, নদিয়াতে প্রবল বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে মঙ্গল এবং বুধবার। কলকাতাতেও ঝড়ের ঝাপটা পড়তে পারে। সে জন্য কলকাতা পুরসভাও সমস্ত রকমের ব্যবস্থা নিতে শুরু করেছে। সতর্ক করা হয়েছে পুর কর্মীদের। সচেতনতা বাড়াতে দিঘা, সুন্দরবনে মাইকিং করা হচ্ছে। টহল দিচ্ছে বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনী।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন