• ঈশানদেব চট্টোপাধ্যায়
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

দিল্লি গেলেন সব্যসাচী, জোরদার দলবদলের জল্পনা

Sabyasachi Dutta
সকালে বিমানবন্দরে সব্যসাচী দত্ত।—নিজস্ব চিত্র।

Advertisement

এক প্রাক্তন মেয়রের পরে, আরও এক প্রাক্তন মেয়রকে নিয়ে জল্পনা জোরদার। বিজেপিতে যোগ দেওয়ার পরে কলকাতার প্রাক্তন মেয়র শোভন চট্টোপাধ্যায় এখনও দিল্লি থেকে ফেরেননি। তার মধ্যেই বিধাননগরের প্রাক্তন মেয়র সব্যসাচী দত্ত দিল্লি গেলেন। ফলে তাঁর দলবদলের সম্ভাবনা নিয়ে গুঞ্জন ফের তীব্র হয়ে উঠেছে।

আজ, শুক্রবার যে তিনি দিল্লি যাচ্ছেন, সে কথা সব্যসাচী নিজেই জানান গতকাল। স্বাধীনতা দিবস এবং রাখি বন্ধন উৎসব উপলক্ষে বৃহস্পতিবার বিধাননগরে একটি অনুষ্ঠানে যোগ দেন সব্যসাচী। সংবাদ মাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে সেখানেই তিনি জানান যে, শুক্রবার সকালের উড়ানে তিনি দিল্লি যাচ্ছেন।

সদ্য বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন কলকাতার প্রাক্তন মেয়র তথা বেহালা পূর্বের বিধায়ক শোভন চট্টোপাধ্যায়। শোভন এবং বৈশাখী যে বিজেপিতে যোগ দিতে পারেন, সে জল্পনা মাস ছয়েক ধরেই চলছিল। সেই জল্পনাই বুধবার সত্য প্রমাণিত হল। একই ভাবে সব্যসাচীর বিজেপিতে যাওয়ার সম্ভাবনা নিয়েও জল্পনা বেশ কিছু দিন ধরেই ছিল। এ হেন সব্যসাচী যদি শোভনের বিজেপিতে যোগদানের কয়েক দিনের মধ্যেই দিল্লির উদ্দেশে রওনা দেন, তা হলে ফের জল্পনা বাড়া স্বাভাবিক। বিধাননগরের প্রাক্তন মেয়র তথা রাজারহাট-নিউটাউনের বিধায়ক অবশ্য এই দিল্লি সফর নিয়ে বিশদে মুখ খোলেননি। ‘ব্যক্তিগত’ কাজে যাচ্ছেন বলে জানিয়েছেন।

আরও পড়ুন: দেবশ্রী-পর্ব দুঃস্বপ্ন, তা ভুলে যান, শোভনদের বার্তা শিব প্রকাশের, রাখি বাঁধলেন বৈশাখী

বিজেপি সূত্রের খবর, সব্যসাচী দত্ত মোটেই ব্যক্তিগত কাজে দিল্লি যাচ্ছেন না। সব কিছু ঠিকঠাক থাকলে এই দিল্লি সফরেই তিনি বিজেপিতে যোগ দিতে পারেন বলে শোনা যাচ্ছে।

আজ শুক্রবারই সব্যসাচীর সঙ্গে শিব প্রকাশের বৈঠক করানোর চেষ্টা করছেন দলের জাতীয় কর্মসমিতির সদস্য মুকুল রায়। তবে শিব প্রকাশ এখনও সময় দেওয়ার বিষয়টি চূড়ান্ত ভাবে জানাননি। এই যোগদানের বিষয়ে রাজ্য বিজেপির সভাপতি দিলীপ ঘোষের সঙ্গে আলোচনা না করা পর্যন্ত সব্যসাচীর সঙ্গে শিব প্রকাশ আলাদা করে বসতে চাইছেন না বলে বিজেপি সূত্রের খবর। যদি শুক্রবার দিলীপের সঙ্গে শিব প্রকাশের কথা হয়ে যায় এবং যদি দিলীপ সবুজ সংকেত দিয়ে দেন, তা হলে বৈঠকটি আজও হতে পারে। আর বৈঠক হয়ে গেলে শনিবারই সব্যসাচী দত্ত বিজেপিতে নাম লেখাতে পারেন বলে জানা যাচ্ছে।

তবে সব্যসাচী নিজে কিন্তু এ সব বিষয় নিয়ে কোনও কথা বলেননি। বিজেপির তরফ থেকেও কেউ কোনও মন্তব্য করেননি। তাই রহস্য আরও ঘনীভূত হয়েছে। সব্যসাচী দত্তর দিল্লি সফরের দিকে নজর থাকছে গোটা বাংলার রাজনৈতিক শিবিরের।

আরও পড়ুন: ৭০ বছরে ৩৭০ ধারাকে কেন স্থায়ী করেননি? সাহস পাননি কেন? লালকেল্লা থেকে বিরোধীদের তোপ মোদীর

সবাই যা পড়ছেন

Advertisement

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন