• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

জোড়া প্রকল্পে কাজের সুযোগ হবে: মুখ্যমন্ত্রী

Mamata
মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ছবি পিটিআই।

‘মৌ’ বা সমঝোতাপত্র স্বাক্ষরের ন’মাসের মাথায় পশ্চিমবঙ্গে দু’টি শিল্প প্রকল্প বাস্তবায়িত হতে চলেছে। কর্মসংস্থান এবং পরিবেশ রক্ষার ক্ষেত্রে প্রকল্প দু’টি বিশেষ ভাবে সহায়ক হবে বলে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বুধবার নবান্নে জানান।

গত ডিসেম্বরে দিঘা শিল্প সম্মেলনে বিভিন্ন লগ্নি-প্রস্তাবের মধ্যে গুরুত্বপূর্ণ ছিল সৌর বিদ্যুৎ প্রকল্প ও চর্মশিল্পে পরিবেশবান্ধব প্রযুক্তিতে বিনিয়োগ। সম্মেলন মঞ্চেই মৌ স্বাক্ষর করেছিল সরকার। মুখ্যমন্ত্রী এ দিন জানান, পূর্ব মেদিনীপুরে ১২০০ কোটি টাকায় ২০০ মেগাওয়াটের সৌর বিদ্যুৎ প্রকল্প গড়ে উঠছে। কলকাতা চর্মনগরীতে ‘ওয়েস্ট ম্যানেজমেন্ট অ্যান্ড সাস্টেনেবল ডেভেলপমেন্ট’ প্রকল্পও চালু হওয়ার মুখে। “অর্থ, শিল্প-সম্ভাবনা ইত্যাদি দিক থেকে বাংলা অনেক এগিয়ে আছে। কোভিড আবহেও যে-ভাবে বিভিন্ন প্রকল্প বাস্তবায়িত হচ্ছে, তা প্রশংসনীয়। এগুলিতে বিপুল কর্মসংস্থানের সুযোগ রয়েছে,” বলেন মুখ্যমন্ত্রী।

এ দিনই বণিকসভা সিআইআই-এর এক সভায় রাজ্যের অর্থ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী অমিত মিত্র জানান, বর্তমান বিশ্বে ডেটা সেন্টারের বিশেষ গুরুত্ব রয়েছে। সে-দিক থেকে রাজারহাটে সরকারের সিলিকন ভ্যালি ক্রমশ জনপ্রিয় হয়ে উঠছে। জিও, আইটিসি-সহ বিভিন্ন সংস্থা সেখানে জমি নিয়েছে। রাজ্যে ডেটা সেন্টার তৈরির জন্য উদ্যোগপতিদের উদ্দেশে আহ্বান জানান অমিতবাবু। তিনি জানান, তথ্যপ্রযুক্তি কর্মীদের সুবিধার্থে কর্মভূমি প্রকল্প চালু হয়েছে রাজ্যে। এ-পর্যন্ত ৩৭ হাজার কর্মী নথিভুক্ত হয়েছেন। তিন হাজার জনকে তথ্যপ্রযুক্তির বিভিন্ন কাজের জন্য বেছে নেওয়া হয়েছে। সাম্প্রতিক পরিস্থিতিতে সাইবার নিরাপত্তা কেন্দ্র তৈরি করছে সরকার। এই কাজে ৪৭১ পুলিশকর্মীর প্রশিক্ষণ চলছে। আগামী দিনে এই সংখ্যাটা আরও বাড়বে।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন