Advertisement
০৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৩
TMC

রাতে আচমকা গুলিবর্ষণ, বাঁচতে খাটের তলায় লুকোলেন তৃণমূল নেতা! ভাঙড়ে গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব?

এই ঘটনায় ইতিমধ্যেই ভাঙড় থানায় অভিযোগ দায়ের করেছে তৃণমূল নেতার পরিবার। পুলিশ জানিয়েছে, তদন্ত শুরু হয়েছে।

ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার হয়েছে ১২টি ফাঁকা কার্তুজ।

ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার হয়েছে ১২টি ফাঁকা কার্তুজ। নিজস্ব চিত্র।

নিজস্ব সংবাদদাতা
ভাঙড়  শেষ আপডেট: ০৮ ডিসেম্বর ২০২২ ০১:০৮
Share: Save:

রাতের অন্ধকারে তৃণমূলের নেতার বাড়ি লক্ষ্য করে গুলি চালানোর অভিযোগ উঠল দক্ষিণ ২৪ পরগনার ভাঙড়ে। মঙ্গলবার রাতে বড়ালি গ্রামে ঘটনাটি ঘটেছে। প্রায় ১২ রাউন্ড গুলি চালানোর অভিযোগ উঠেছে তৃণমূলের ওই প্রাক্তন অঞ্চল সভাপতি ফজলে করিমের বিরুদ্ধে। ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধারও হয়েছে ১২টি ফাঁকা কার্তুজ। এই ঘটনায় ইতিমধ্যেই ভাঙড় থানায় অভিযোগ দায়ের করেছে তৃণমূল নেতার পরিবার। পুলিশ জানিয়েছে, তদন্ত শুরু হয়েছে।

Advertisement

স্থানীয় সূত্রে খবর, রাত দেড়টা নাগাদ ফজলের বাড়ি লক্ষ্য করে গুলি চালানো হয়। দরজা, জানালার পাশাপাশি বিছানাতেও গুলির দাগ রয়েছে। প্রাণ বাঁচাতে খাটের তলায় আশ্রয় নেন ফজলে। খবর পেয়েই সঙ্গে সঙ্গে ঘটনাস্থলে আসে বিশাল পুলিশ বাহিনী। উদ্ধার হয় গুলির খোল।

তৃণমূল নেতার পরিবারের দাবি, গোষ্ঠীদ্বন্দ্বের কারণে ফজলের বাড়িতে হামলা চালানো হয়েছে। ফজলে আঙুল তুলেছেন ভাঙড় ১ ব্লকের তৃণমূল নেতা কাইজার আহমেদের দিকে। তিনি বলেন, ‘‘কয়েক দিন আগে ভাঙরের তৃণমূল নেতা কাইজার আহমেদের বিরুদ্ধে মুখ খুলেছিলাম আমি। আমার মনে হচ্ছে সেই কারণেই হামলা হয়েছে। আমায় মেরে ফেলার পরিকল্পনা ছিল।’’ ফজলে জানান, বিষয়টি তিনি দলকে জানিয়েছেন।

হামলার অভিযোগ অস্বীকার করেছেন কাইজার। তিনি বলেন, ‘‘এই ভাবে গুলি চালানো ঘটনা নিঃসন্দেহে অনভিপ্রেত। আমায় কেন এই ঘটনায় জড়ানো হচ্ছে, বুঝতে পারছি না। এই ঘটনার সঙ্গে আমার কোনও যোগ নেই। পুলিশ নিরপেক্ষ ভাবে তদন্ত করে দোষীদের খুঁজে বার করুক। উপযুক্ত শাস্তি দেওয়া হোক।’’

Advertisement
(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.