Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

০৯ ডিসেম্বর ২০২১ ই-পেপার

ভাটপাড়ায় উঠল কর্মবিরতি

তিন দিনেই পথে জঞ্জালের স্তূপ

নিজস্ব সংবাদদাতা
২৪ ডিসেম্বর ২০২০ ০৫:৩২
বেহাল: বুধবার পথঘাটের পরিস্থিতি। ছবি: মাসুম আখতার

বেহাল: বুধবার পথঘাটের পরিস্থিতি। ছবি: মাসুম আখতার

তিন দিন টানা কর্মবিরতি চলার পরে বুধবার সন্ধ্যায় সমস্যা মিটল। আজ, বৃহস্পতিবার ভোর থেকেই কাজে ফেরার কথা ঘোষণা করেন ভাটপাড়া পুরসভার অস্থায়ী সাফাই কর্মীরা। বুধবার দীর্ঘ আলোচনা হয় দু’পক্ষের। পুর কর্তৃপক্ষ অস্থায়ী সাফাই কর্মীদের ওভার টাইমের টাকা মিটিয়ে দিয়েছেন। যে তিন দিন কর্মবিরতি চলেছে, তার টাকা না কাটারও প্রতিশ্রুতি দেওয়া হয়েছে। তবে আন্দোলনকারীরা জানিয়েছেন, আগের বোর্ডের সময়ের বকেয়া বেতন পাওয়ার নিশ্চয়তা মেলেনি এ দিনও। গত তিন দিনে ভাটপাড়ার গলি থেকে রাজপথ— বিভিন্ন জায়গায় জঞ্জাল উপচে পড়ছে। বড়দিনের আগে এই পরিস্থিতিতে বিরক্ত নাগরিকেরা। গত দেড় বছরে বার বার অস্থায়ী সাফাই কর্মীদের কর্মবিরতিতে এই হাল হয়েছে শহরের পথঘাটের। পুর কর্তৃপক্ষ জানিয়েছেন, সাফাই কর্মীরা আগামী তিন দিনে শহরের সব এলাকা থেকে জঞ্জাল তুলে ফেলবেন বলে কথা দিয়েছেন। সে জন্য অতিরিক্ত সময় কাজ করতেও রাজি তাঁরা। সাফাই কর্মীরা তিন দিন কাজ না করায় শহরের সব এলাকাতেই ভ্যাটগুলিতে জঞ্জাল উপচে পড়ছে। অস্থায়ী সাফাই কর্মীরা জঞ্জাল তোলার ট্রাক্টর বেরোতে না দেওয়ায় পুরসভার স্থায়ী সাফাই কর্মীরাও কাজ করতে পারেনি। পুরসভার সামনেও জঞ্জালের স্তূপ বেড়েছে গত তিন দিনে। পুরসভার কাছাকাছি তিনটি বাজার রয়েছে। সেখানে রোজই প্রচুর জঞ্জাল জমে। সাফ না হওয়ায় সেগুলি পচে দুর্গন্ধ ছড়াচ্ছে। সকালে নাকে রুমাল চাপা দিয়ে বাজার করতে দেখা গিয়েছে মানুষজনকে। স্টেশনে যাতায়াতের রাস্তার ধারেও জঞ্জাল। পুরসভার প্রশাসক বোর্ডের চেয়ারম্যান অরুণ বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ‘‘আগের বোর্ডের বকেয়া বেতন যতটা দ্রুত সম্ভব মেটানোর কথা বলেছি। ওভার টাইমের টাকা দিয়ে দেওয়া হয়েছে। ওঁরা আগামী তিন দিনে অতিরিক্ত সময় কাজ করে শহরের সব জঞ্জাল সাফ করে দেবেন। আমরা বলেছি, তিন দিনের বেতন দিয়ে দেওয়া হবে।”

Advertisement

আরও পড়ুন

Advertisement