Advertisement
২৫ জুন ২০২৪
TMC

তৃণমূলের দুই গোষ্ঠীর সংঘর্ষে আবার উত্তপ্ত বাসন্তীর কলতলা, হাসপাতালে ভর্তি দলেরই এক কর্মী

তৃণমূলের দুই গোষ্ঠীর সংঘর্ষে নতুন করে উত্তেজনা ছড়াল দক্ষিণ ২৪ পরগনার বাসন্তীর কলতলা এলাকায়। সোমবার সকালে তৃণমূলের দুই গোষ্ঠীর সংঘর্ষে জখম হয়েছেন দলেরই এক কর্মী। তাঁকে ভর্তি করা হয়েছে হাসপাতালে।

সোমবারও উত্তেজনা ছড়াল বাসন্তীর কলতলায়।

সোমবারও উত্তেজনা ছড়াল বাসন্তীর কলতলায়। — নিজস্ব চিত্র।

নিজস্ব সংবাদদাতা
বাসন্তী শেষ আপডেট: ২৩ জানুয়ারি ২০২৩ ১৬:২৭
Share: Save:

তৃণমূলের দুই গোষ্ঠীর সংঘর্ষে নতুন করে উত্তেজনা ছড়াল দক্ষিণ ২৪ পরগনার বাসন্তীর কলতলা এলাকায়। সোমবার সকালে তৃণমূলের দুই গোষ্ঠীর সংঘর্ষে জখম হয়েছেন দলেরই এক কর্মী। তাঁকে ভর্তি করা হয়েছে হাসপাতালে। স্থানীয় তৃণমূল নেতৃত্বের একাংশের দাবি, রবিবার রাজ্যের মন্ত্রী চন্দ্রিমা ভট্টাচার্যের গাড়ি আটকে বিক্ষোভ দেখিয়েছিলেন দলীয় কর্মীদের কয়েক জন। অভিযোগ, তার ‘শোধ’ তুলতেই হামলা চালানো হয় সোমবার। তবে বাসন্তীর বিধায়ক শ্যামল মণ্ডলের দাবি, এই সংঘর্ষ বিক্ষিপ্ত একটি ঘটনা।

রবিবার বাসন্তীতে জনসভার ডাক দিয়েছিলেন স্থানীয় তৃণমূল বিধায়ক শ্যামল। সেই সভায় উপস্থিত ছিলেন রাজ্যের মন্ত্রী চন্দ্রিমা। রবিবার দুপুরে বাসন্তী যাওয়ার সময় কলতলা এলাকায় চন্দ্রিমার গাড়ি আটকে দেন তৃণমূল কর্মীদের একটি অংশ। তাঁদের দাবি, ওই সভায় তৃণমূলের বেশ কয়েকটি শাখা সংগঠনের নেতৃত্বকে ডাকা হয়নি। এ নিয়ে চন্দ্রিমার কাছে অভিযোগ জানান তাঁরা। বাসন্তী থানার পুলিশ পৌঁছে পরিস্থিতি সামাল দেয়। মন্ত্রীর গাড়িটিকে সেখান থেকে বার করে দেয় তারা।

তবে দলীয় কর্মীদের বিক্ষোভে মিনিট দশেক রাস্তায় আটকে থাকতে হয় মন্ত্রীকে। রবিবারের এই ঘটনার পর সোমবার আবার তৃণমূলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্বে উত্তপ্ত হয়ে ওঠে বাসন্তী। কলতলাতেই জয়নুদ্দিন মণ্ডল নামে এক যুব তৃণমূল কর্মীকে মারধর করার অভিযোগ উঠেছে মন্টু গাজি এবং রাজা গাজি নামে দুই তৃণমূল নেতার বিরুদ্ধে। মাথায় আঘাত পেয়ে এখন ক্যানিং মহকুমা হাসপাতালে ভর্তি জয়নুদ্দিন। আহত হয়েছেন দু’পক্ষের আরও কয়েক জন। এ নিয়ে তৃণমূলের কাঁঠালবেড়িয়া অঞ্চলের সভাপতি শহিদুল লস্করের অভিযোগ, ‘‘আমরা গত কালের সভার প্রতিবাদ জানিয়েছিলাম চন্দ্রিমা ভট্টাচার্যের কাছে। আমাদের সভায় বাদ দেওয়া হয়েছিল। তাই আজ সকালে মন্টু গাজি এবং রাজা গাজির নেতৃত্বে আমাদের এক জনের উপর আক্রমণ হয়েছে।’’

যদিও তৃণমূলের গোষ্ঠী কোন্দলের অভিযোগ অস্বীকার করেছেন শ্যামল। তৃণমূলের ওই বিধায়কের বক্তব্য, ‘‘আজ সকালে বাসন্তী কাঁঠালবেড়িয়ার কলতলা মোড়ে যা হয়েছে তা বিক্ষিপ্ত ঘটনা। এটা তৃণমূলের গোষ্ঠীকোন্দল নয়, ব্যক্তিগত বিবাদ। এর সঙ্গে রাজনীতির কোনও সম্পর্ক নেই। যারা এলাকায় অশান্তি পাকাচ্ছে, তাদের গ্রেফতার করার জন্য পুলিশের কাছে আবেদন করেছি।’’

সোমবার দু’পক্ষের সংঘর্ষ নিয়ে তদন্ত শুরু করেছে বাসন্তী থানার পুলিশ। ক্যানিংয়ের এসডিপিও দিবাকর দাস জানিয়েছেন, সংঘর্ষ নিয়ে দু’পক্ষই থানায় অভিযোগ দায়ের করেছে। দু’পক্ষেরই এক জন করে মোট দু’জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন তিনি। এলাকায় পুলিশও মোতায়েন করা হয়েছে।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)

অন্য বিষয়গুলি:

TMC Political Clash Party Inner Clash
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE