Advertisement
২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২
Panchayat Head

কাটমানির নালিশ, হামলা পঞ্চায়েত প্রধানের বাড়িতে

আমুলিয়া পঞ্চায়েতের তৃণমূল প্রধান ও তাঁর স্বামী প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনার ঘর দেওয়ার নামে কাটমানি নিচ্ছেন, টাকা নিয়েও ঘর দিচ্ছেন না বলে অভিযোগ উঠেছে।

প্রতিবাদ: প্রধানের বাড়ির সামনে বিক্ষোভ দেখাচ্ছেন গ্রামবাসীরা। ছবি: নির্মল বসু

প্রতিবাদ: প্রধানের বাড়ির সামনে বিক্ষোভ দেখাচ্ছেন গ্রামবাসীরা। ছবি: নির্মল বসু

নিজস্ব সংবাদদাতা
বসিরহাট শেষ আপডেট: ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২২ ০৬:২৭
Share: Save:

পঞ্চায়েত প্রধান ও তাঁর স্বামীর বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ তুলে প্রধানের বাড়িতে চড়াও হল কিছু গ্রামবাসী। তৃণমূলের বেশ কিছু কর্মী-সমর্থকও ছিলেন। মারধরের চেষ্টা হয় বলে অভিযোগ। বুধবার রাতে ভাঙচুরও হয় দেগঙ্গার আমুলিয়া পঞ্চায়েতের প্রধান মাসকুরা বিবির বাড়িতে। পিছনের দরজা দিয়ে পালান মাসকুরা ও তাঁর স্বামী হাসান মণ্ডল।

আমুলিয়া পঞ্চায়েতের তৃণমূল প্রধান ও তাঁর স্বামী প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনার ঘর দেওয়ার নামে কাটমানি নিচ্ছেন, টাকা নিয়েও ঘর দিচ্ছেন না বলে অভিযোগ উঠেছে। অভিযোগকারী গিয়াসউদ্দিন মণ্ডল জানান, আবাস যোজনার ঘর পাইয়ে দেবেন বলে প্রধান ও তাঁর স্বামী কারও কাছ থেকে পঞ্চাশ হাজার, কারও কাছ থেকে তিরিশ হাজার টাকা নিয়েছেন। তারপরেও ঘর মিলছে না।

মিন্টু মণ্ডল, মহম্মদ রফিক আলিদে অভিযোগ, উন্নয়নের কোনও কাজ করেন না প্রধান। কিছু দিন আগেও প্রধান ছোট্ট একটি বাড়িতে বাস করতেন। কাটমানির টাকায় বিশাল অট্টালিকা বানিয়েছেন।

সন্ধ্যা থেকে রাত পর্যন্ত প্রধানের বাড়ি ঘেরাও চলে। ঘরে ঢুকে মারধরের চেষ্টা হয় বলে অভিযোগ।

এ বিষয়ে বিজেপির বারাসত সাংগঠনিক জেলার বিজেপির সাধারণ সম্পাদক তরুণকান্তি ঘোষ বলেন, ‘‘প্রধানের স্বামী দিনমজুর ছিলেন। পঞ্চায়েত প্রধান হয়ে বিলাসবহুল প্রাসাদ বানিয়েছেন। প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনার ঘরের টাকা, সরকারি প্রকল্পের টাকা আত্মসাৎ করে এই ঘটনা ঘটেছে। তৃণমূলের নানা স্তরের নেতারা কাটমানির ভাগ পাচ্ছেন।’’

তাঁদের বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ রটানো হচ্ছে বলে দাবি প্রধানের। কুৎসা করা হচ্ছে বলে অভিযোগ তুলেছেন তাঁরা

এ বিষয়ে দেগঙ্গা পঞ্চায়েত সমিতির সহসভাপতি তুষারকান্তি দাস বলেন, ‘‘আমুলিয়া পঞ্চায়েতের প্রধানের বাড়িতে গ্রামবাসীরা চড়াও হয়েছিল বলে খবর পেয়েছি। পঞ্চায়েত প্রধান ও তাঁর স্বামী যদি দুর্নীতি করে থাকেন, বিক্ষোভকারীরা বিডিও অফিস বা আমাদের কাছে লিখিত অভিযোগ করুন। আমরা উপযুক্ত ব্যবস্থা নেব।’’

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.