Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৮ মে ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

Calcutta High Court: স্কুলছুটদের ফিরিয়ে আনুক রাজ্য, আবেদন জানিয়ে মামলা হাই কোর্টে

প্রায় দু’বছর বন্ধ রয়েছে রাজ্যের স্কুলগুলি। ক্লাস হলেও তা হয়েছে ভার্চুয়াল। কিন্তু আর্থিক ভাবে অনগ্রসর পরিবারের পড়ুয়ারা তাতে অংশ নিতে পারেনি।

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ১৮ জানুয়ারি ২০২২ ১৮:১৭
Save
Something isn't right! Please refresh.
স্কুলে ছুটদের স্কুলে ফেরাতে মামলা দায়ের হাই কোর্ট।

স্কুলে ছুটদের স্কুলে ফেরাতে মামলা দায়ের হাই কোর্ট।
নিজস্ব চিত্র।

Popup Close

স্কুলছুটদের পুনরায় স্কুলে ফেরাতে জনস্বার্থ মামলা দায়ের হল কলকাতা হাই কোর্টে। আইনজীবী সায়ন বন্দ্যোপাধ্যায় মামলাটি করেছেন। আদালতে তাঁর আবেদন, লকডাউনে দীর্ঘ দিন স্কুল, কলেজ বন্ধ থাকার কারণে অনেক পড়ুয়াই পড়াশুনা ছেড়ে দিয়েছে। বাধ্য হয়েই তারা ওই পথ বেছে নিয়েছেন। তাদের ফের স্কুলমুখী করার ব্যবস্থা করুক রাজ্য সরকার। আগামী ২১ জানুয়ারি প্রধান বিচারপতির ডিভিশন বেঞ্চে মামলাটি শুনানির কথা রয়েছে।

কোভিড পরিস্থিতির জেরে সবমিলিয়ে প্রায় দু'বছর বন্ধ রয়েছে রাজ্যের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলি। কিছু ক্ষেত্রে ক্লাস হলেও তা হয়েছে ভার্চুয়াল মাধ্যমে। কিন্তু মোবাইল ফোন, ট্যাবলেট না থাকার কারণে অনেক আর্থিক ভাবে অনগ্রসর পরিবারের পড়ুয়াই তাতে অংশ নিতে পারেনি। এর ফলে ওই সময় থেকে পাকাপাকি ভাবে অনেকেই পড়াশোনা ছেড়ে দিয়েছে। মামলাকারীর মতে, বলা ভাল, পরিস্থিতিই তাদের ওই অবস্থায় নিয়ে গিয়েছে। তাঁর কথায়, ‘‘ওই পড়ুয়াদের জন্য সরকার থেকে কোনও ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি। এমনকি এখনও তাদের কাছে স্কুল ছুটদের পরিসংখ্যান নেই। অথচ এখন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলি বন্ধ রাখার ফলে অজান্তেই ওই সংখ্যাটা ক্রমশ বাড়ছে। তাই এখন সরকারের উচিত তাদের স্কুলমুখী করা।’’

Advertisement

সায়নের দাবি, রাজ্য তথা রাজ্যের অ্যাডভোকেট জেনারেল অনেক মামলার শুনানিতে বার বার বলেছেন, এ রাজ্যে টিকাকরণের হার সর্বোচ্চ। দেশের মধ্যে সব থেকে বেশি টিকা দেওয়ার হয়েছে এ রাজ্যে। ওই সাফল্যের পরও কেন তাদের সব কিছু বন্ধ রাখতে হচ্ছে। তার কারণও রাজ্যকে জানানো দরকার।

মঙ্গলবার এই মামলাটি গ্রহণ করেছে উচ্চ আদালত। আগামী শুক্রবার প্রধান বিচারপতি প্রকাশ শ্রীবাস্তব ও বিচারপতি রাজর্ষি ভরদ্বাজের ডিভিশন বেঞ্চে মামলাটির শুনানির সম্ভাবনা রয়েছে।



Something isn't right! Please refresh.

Advertisement