Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৬ অক্টোবর ২০২১ ই-পেপার

নিভৃতে থেকেই দলের কাজে ব্যস্ত অভিষেক

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ১১ জানুয়ারি ২০১৭ ০২:৪১

তিন সপ্তাহ আগে তাঁর বাঁ চোখে আরও এক বার অস্ত্রোপচার হয়েছে। চিকিৎসকেরা জানিয়ে দিয়েছেন, পুরোপুরি সুস্থ হয়ে উঠতে এখনও মাস দুয়েক সময় লাগবে। কিন্তু তৃণমূল সূত্রে খবর, নোট-সংকট নিয়ে মোদী-বিরোধী আন্দোলনের কৌশল নির্ধারণে ইদানিং ফের সক্রিয় হয়ে উঠেছেন দলের যুব সভাপতি অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। নোট বাতিল-পরবর্তী পরিস্থিতির ওপর নজর রেখে তাঁর ‘কোর টিম’কে নিয়ে এখন প্রায় নিয়মিত বৈঠক করছেন অভিষেক। মোদী তথা বিজেপিকে মোকাবিলায় প্রয়োজনীয় কৌশলও সাজাচ্ছেন। তার পর জেলায় জেলায় তাঁর অনুগামীদের কেন্দ্র-বিরোধী আন্দোলন কর্মসূচিতে নামার নির্দেশ দিচ্ছেন তিনি।

১৮ অক্টোবর বহরমপুরে দলের কর্মিসভা থেকে ফেরার সময় দুর্ঘটনায় গুরুতর জখম হন অভিষেক। কলকাতায় একটি হাসপাতালে এর পর তাঁর চোখের নীচে এক বার অস্ত্রোপচার হয়। কিন্তু অভিষেকের ঘনিষ্ঠ সূত্রে বলা হচ্ছে, তাতেও পুরোপুরি নিরাময় হয়নি। তাই তিন সপ্তাহ আগে তাঁর বাঁ চোখে ফের অস্ত্রোপচার হয়েছে। এ জন্য আগের মতো সক্রিয় হয়ে মাঠে নামতে এখনও কিছুটা সময় লাগবে অভিষেকের। কিন্তু এর মধ্যেই দলের কর্মসূচি ও কৌশল সাজাতে সক্রিয় তিনি।

এ ব্যাপারে প্রশ্ন করা হলে অভিষেক বলেন, ‘‘নোট বাতিল নিয়ে কেন্দ্রের ভুল সিদ্ধান্তের জেরে গ্রামে শহরে সাধারণ মানুষের জেরবার অবস্থা। যত দ্রুত সম্ভব সুস্থ হয়ে ওঁদের লড়াইয়ে সামিল হতে চাইছি।’’ দলের নেতাদের সঙ্গে আলাপ আলোচনা বা তাঁর কোর টিমের সঙ্গে বৈঠকের ব্যাপারে অবশ্য অভিষেক মুখ খুলতে চাননি। তাঁর কথায়, ‘‘নোট বাতিলের সিদ্ধান্তের পর পঞ্চাশ দিন পার হয়ে গেলেও মানুষের হয়রানি চলছেই। কেন্দ্রের কাছে একটাই আর্জি— সাধারণ মানুষকে রেহাই দিতে তারা যেন দ্রুত ব্যবস্থা নেয়।’’

Advertisement

তৃণমূলের এক প্রথম সারির নেতার কথায়, দলের যুব সংগঠনের নেতা হলেও গত বছর দেড়েক ধরে তৃণমূলে ক্রমশ উচ্চতা বাড়ছিল অভিষেকের। সিবিআই সারদা কাণ্ডে ধরপাকড় শুরু করার পর তৃণমূল এর আগে যখন সংকট পড়েছিল, বিরোধীদের মোকাবিলার মুখ হয়ে উঠেছিলেন অভিষেক। বিধানসভা ভোটের প্রচার থেকে শুরু করে ভোটের পর জেলায় জেলায় দলের সাংগঠনিক শক্তি বাড়ানোর ক্ষেত্রেও অভিষেকের ভূমিকা গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠছিল। তাঁর কৌশলেই বিরোধী শিবির থেকে বহু পুরসভার চেয়ারম্যান-কাউন্সিলর, জেলা পরিষদের সভাধিপতি-সদস্য, এমনকী মানস ভুঁইয়ার মতো প্রবীণ কংগ্রেস নেতা তৃণমূলে সামিল হন। নোট বাতিলের বিরুদ্ধে বিভিন্ন আন্দোলন কর্মসূচিতে স্বাভাবিক ভাবেই অভিষেকের অনুপস্থিতি মালুম হতে শুরু করেছিল। এই অবস্থায় অসুস্থতা সত্ত্বেও এখন দলের রণনীতি নির্ধারণ এবং আন্দোলন সংগঠিত করতে ফের সক্রিয় হয়ে উঠেছেন দলের এই যুবনেতা।

আরও পড়ুন

Advertisement