Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২১ মে ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

Bengal Municipal Election 2022: প্রার্থী ঘোষণার প্রস্তুতি তৃণমূলে, জোটে প্রশ্নই

এ দিকে, দলের প্রার্থিতালিকা চূড়ান্ত হয়ে গিয়েছে বলে সিপিএম সূত্রেও দাবি করা হয়েছে।

নিজস্ব সংবাদদাতা
আসানসোল ২৯ ডিসেম্বর ২০২১ ০৮:৩৯
Save
Something isn't right! Please refresh.
বিজেপি-র জেলা কার্যালয়ে রাখা হয়েছে ‘ড্রপ বক্স’।

বিজেপি-র জেলা কার্যালয়ে রাখা হয়েছে ‘ড্রপ বক্স’।
নিজস্ব চিত্র।

Popup Close

আজ, বুধবার তৃণমূলের এবং আগামিকাল বৃহস্পতিবার সিপিএমের প্রার্থিতালিকা ঘোষণা হতে পারে। এমনটাই দাবি করেছেন দুই দলের জেলা নেতৃত্ব। তবে, এ পর্যন্ত বিজেপি এবং কংগ্রেসের প্রার্থিতালিকা চূড়ান্ত হয়নি বলেই জানা গিয়েছে। পাশাপাশি, বাম-কংগ্রেসের কোনও আসন সমঝোতা হবে কি না, তা নিয়েও ধন্দ কাটেনি মঙ্গলবারেও। এ দিকে, প্রার্থী হতে কারা আগ্রহী, তা জানতে চেয়ে ‘ড্রপ বক্স’ বসিয়েছে বিজেপি।

মঙ্গলবার তৃণমূলের জেলা সভাপতি বিধান উপাধ্যায় বলেন, “প্রার্থী বাছাই চূড়ান্ত হয়ে গিয়েছে। আজ, বুধবার কলকাতায় প্রার্থী তালিকা ঘোষণা করার কথা। গত বারের অভিজ্ঞ প্রার্থীদের সঙ্গে, এ বার অনেক নতুন মুখও প্রার্থিতালিকায় জায়গা পেতে পারেন।” তিনি জানান, প্রার্থী তালিকা ঘোষণার পরে, রানিগঞ্জ ও জামুড়িয়ার প্রার্থীরা এক দিনে এবং আসানসোল ও কুলটির প্রার্থীরা এক দিনে মনোনয়ন জমা দেবেন।

এ দিকে, দলের প্রার্থিতালিকা চূড়ান্ত হয়ে গিয়েছে বলে সিপিএম সূত্রেও দাবি করা হয়েছে। তবে, সোম ও মঙ্গলবার সিপিএমের পশ্চিম বর্ধমান জেলা সম্মেলন হয়েছে। তাই প্রার্থিতালিকা প্রকাশ করা হয়নি। সিপিএমের জেলা সম্পাদকমণ্ডলীর সদস্য পার্থ মুখোপাধ্যায় বলেন, “৩০ ডিসেম্বর জেলার শীর্ষ নেতৃত্ব প্রার্থী তালিকা ঘোষণা করতে পারেন।” দলীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, ৩ জানুয়ারি বাম প্রার্থীরা মনোনয়ন জবা দেবেন।

Advertisement

তবে, মঙ্গলবার পর্যন্ত বাম-কংগ্রেসের মধ্যে আসান সমঝোতার কী হবে, তা নিয়ে জল্পনা রয়েছে। এ বিষয়ে পার্থর প্রতিক্রিয়া, “এখনও এ নিয়ে কোনও সিদ্ধান্ত হয়নি।” প্রার্থী নিয়ে এ দিন পর্যন্ত কোনও চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হয়নি বলে জানিয়েছেন কংগ্রেসের জেলা সভাপতি দেবেশ চক্রবর্তী। আসন সমঝোতা প্রসঙ্গে তাঁর মন্তব্য, “আগে দলের প্রার্থিতালিকা হোক। তার পরে, বিষয়টি নিয়ে আলোচনা হবে।”

এ দিকে, বিজেপি সূত্রে জানা গিয়েছে, প্রার্থী হতে আগ্রহী কর্মী, সদস্যদের কাছে বুধবারের মধ্যে আবেদনপত্র চাওয়া হয়েছে। দলের জেলা সভাপতি দিলীপ দে বলেন, “জেলা কার্যালয়ে একটি ড্রপ-বক্স রাখা হয়েছে। আবেদনকারীরা নিজেদের যাবতীয় তথ্য লিখিত আকারে খামবন্দি করে তাতে ফেলছেন। সব আবেদন দেখে প্রদেশ কমিটি দু’-এক দিনের মধ্যেই চূড়ান্ত তালিকা জানাবে।” এ দিন এ দিন দুপুর ৩টে নাগাদ জেলা কার্যালয়ে দেখা গেল, প্রার্থী হতে চেয়ে আগ্রহী কর্মী-সদস্যেরা খাম ফেলছেন ওই বাক্সে।

পাশাপাশি, এ দিন থেকেই আসানসোল সেন্ট জোসেফ হাইস্কুলে এসে মনোয়নপত্র তোলার কাজ শুরু করেছেন অনেকেই। ওই স্কুলে কড়া নিরাপত্তা ব্যবস্থা নজরে প়ড়ে। ব্যবস্থাপনা খতিয়ে দেখতে আসানসোল-দুর্গাপুর কমিশনারেট ও প্রশাসনের কর্তারা উপস্থিত ছিলেন এ দিন। এসিপি (‌‌সেন্ট্রাল) মানবেন্দ্র দাস উপস্থিত ছিলেন। প্রশাসনের কর্তারা জানান, সকাল ১০টা থেকে দুপুর ৩টে পর্যন্ত মনোনয়নপত্র তোলা এবং জমা করার প্রক্রিয়া চলেছে। উপস্থিত ছিলেন রিটার্নিং অফিসার তথা মহকুমাশাসক (আসানসোল) অভিজ্ঞান পাঁজা। তিনি বলেন, “প্রথম দিন সবই নির্বিঘ্নে সম্পন্ন হয়েছে। এ দিন ১৮ জন মনোনয়ন পত্র তুলেছেন।”



Something isn't right! Please refresh.

আরও পড়ুন

Advertisement