Advertisement
২৭ নভেম্বর ২০২২
DA

বিজেপির মিছিলে আজ কংগ্রেসের সংগঠনও, বেতন কমিশন অভিযানে সরকারি কর্মীরা

কেন্দ্রীয় হারে বেতন চালু করতে সুপারিশ প্রকাশ করা হবে বলে প্রায় তিন বছর আগে প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল বেতন কমিশন।

একজোট হয়ে বিকাশ ভবন অভিযান বিজেপি-কংগ্রেসের। —ফাইল চিত্র।

একজোট হয়ে বিকাশ ভবন অভিযান বিজেপি-কংগ্রেসের। —ফাইল চিত্র।

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ১০ জুলাই ২০১৯ ১৩:৩২
Share: Save:

বেতন কমিশনের চেয়ারম্যান অভিরূপ সরকারের পদত্যাগের দাবিতে বিকাশ ভবন অভিযানে বিজেপির কর্মী ইউনিয়ন সরকারি কর্মচারী পরিষদ। বুধবার দুপুরে ওই অভিযানের ডাক দিয়েছে তারা।

Advertisement

কেন্দ্রীয় হারে বেতন চালু করতে সুপারিশ প্রকাশ করা হবে বলে প্রায় তিন বছর আগে প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল বেতন কমিশন। কিন্তু আজও তা হয়ে ওঠেনি। এখনও পর্যন্ত কোনও রিপোর্ট জমা দেয়নি কমিশন। অবিলম্বে কেন্দ্রীয় হারে বেতন চালু এবং রাজ্য সরকারের কর্মীদের বকেয়া মহার্ঘ্যভাতা (ডিএ) মেটানোর দাবিতেই এই বিকাশ ভবন অভিযান, বলে জানিয়েছে কর্মচারী পরিষদ।

এ দিন প্রথমে সল্টলেকের করুণাময়ীতে জমায়েত করবেন বিজেপির কর্মী ইউনিয়নের সদস্যরা। দুপুর দুটো নাগাদ মিছিল করে বিকাশ ভবনের উদ্দেশে রওনা দেবেন তাঁরা। সেখানে অভিরূপ সরকারের হাতে স্মারকলিপি তুলে দেওয়া হবে বলে পরিষদ সূত্রে জানা গিয়েছে। জুলাই মাসের মধ্যে কেন্দ্রীয় হারে সংশোধিত বেতন কাঠামো এবং মহার্ঘ্য ভাতা সংক্রান্ত নীতি নিয়ে সুপারিশ জমা দিতে পারলে দিন, নইলে পদত্যাগ করুণ, এমন দাবিও তোলা হবে বলে খবর।

আরও পড়ুন: শহরে সাতসকালেই টলিউড অভিনেত্রীকে হেনস্থার অভিযোগ ক্যাব-চালকের বিরুদ্ধে

Advertisement

এ ছাড়াও মিছিলে অভিরূপ সরকারের কুশপুতুল দাহ করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। সেই সঙ্গে কুকুরের মুখোশ পরে মিছিলে নামবেন আন্দোলনকারীরা। কারণ এর আগে মহার্ঘ্য ভাতা নিয়ে যখন আন্দোলন শুরু হয়েছিল, সেই সময় সরকারী কর্মীদের উদ্দেশে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছিলেন, ‘‘ঘেউ ঘেউ করবেন না।’’ মুখ্যমন্ত্রীর এই মন্তব্য নিয়ে সেই সময়ই বিতর্ক হয়েছিল বিস্তর। ওই মন্তব্যকে অপমান হিসাবে দেখেছিলেন সরকারী কর্মীরা। সেটা মনে করিয়ে দিতেই মুখোশ পরে মিছিলে নামার সিদ্ধান্ত।

আরও পড়ুন: নাটক কর্নাটক: ‘রুম বুক আছে’ বলেও বিক্ষুব্ধদের হোটেলে ঢুকতে পারলেন না কংগ্রেস নেতা​

অন্য দিকে, আজকের এই মিছিলে যোগ দিচ্ছে কংগ্রেসের কর্মী সংগঠন কনফেডারেশনের একাংশও। সংগঠনের সদস্যদের নিয়ে মিছিলে যোগ দিচ্ছেন বলে জানিয়েছেন কনফেডারেশনের রাজ্য স্তরের নেতা সুবীর সাহা। কিন্তু বিজেপির মিছিলে হঠাৎ কংগ্রেস কেন? তা জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘‘রাজ্য সরকারের বঞ্চনার শিকার সরকারি কর্মীরা। কেন্দ্রীয় সরকারের হারে মহার্ঘ্য ভাতা এবং বেতন পাচ্ছেন না তাঁরা। তাই একজোট হয়ে আন্দোলনে নামার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। অভিযান বিজেপির হলেও, মিছিল যে হেতু কর্মীদের স্বার্থে তাই তাতে যোগ দেওয়ার নিয়েছি।’’

এবার শুধু খবর পড়া নয়, খবর দেখাও। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের YouTube Channel - এ।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.