Advertisement
০২ ডিসেম্বর ২০২২
Dilip Ghosh

Dilip Ghosh: রাজনৈতিক হিংসায় প্রাণহানি হলে তা রাজ্য সরকারেরই ব্যর্থতা: দিলীপ

রাজ্যে হিংসা রুখতে কেন পদক্ষেপ করছে না পুলিশ-প্রশাসন? মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সরকারকে আক্রমণ বিজেপি-র সর্বভারতীয় সহ-সভাপতি দিলীপ ঘোষের।

—ফাইল চিত্র।

নিজস্ব সংবাদদাতা
বেলদা শেষ আপডেট: ০৬ অক্টোবর ২০২১ ১৬:৪৯
Share: Save:

রাজ্যে ‘ভোট পরবর্তী হিংসা’য় প্রাণহানি কেন রোখা যাচ্ছে না? বাংলায় হিংসা রুখতে কেন পদক্ষেপ করছে না পুলিশ-প্রশাসন? মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকারকে আক্রমণ করে প্রশ্ন তুললেন বিজেপি-র সর্বভারতীয় সহ-সভাপতি দিলীপ ঘোষ। সেই সঙ্গে তাঁর দাবি, রাজনৈতিক হিংসায় প্রাণহানি হলে তা মমতার সরকারের ব্যর্থতাকেই প্রমাণ করে।

বুধবার পশ্চিম মেদিনীপুরের বেলদায় দলীয় কর্মসূচিতে যোগ দেন দিলীপ। বেলদার খাকুড়দাতে প্রায় দু’শো বন্যাদুর্গতের হাতে ত্রিপল তুলে দেন তিনি। এর পর সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, ‘‘সিবিআইয়ের তদন্তের সময় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলছেন, তাঁদের দলের ১৬ জন বিজেপি-র হাতে খুন হয়েছেন। তা হলে পুলিশ কেন ব্যবস্থা নেয়নি? হিংসায় কেউ মারা গেলে, তিনি যে দলেরই হন, দোষীদের শাস্তি হোক। কেন হিংসা বন্ধ হচ্ছে না? যদি কেউ হিংসায় মারা যান, তা হলে সেটি তাঁর (মমতার) সরকারের অপদার্থতা।’’

Advertisement

বিধানসভা নির্বাচনের পর তৃণমূলের হাতে বিজেপি কর্মী-সমর্থকদের মারধর নিয়েও দাবি করেন দিলীপ। তাঁর কথায়, ‘‘দলের কর্মীদের মেরে হাত-পা ভেঙে দেওয়া হয়েছে। গ্রামছাড়া করা হয়েছে।’’

হিংসা রুখতে প্রশাসনিক ব্যর্থতার অভিযোগের পাশাপাশি ত্রাণ বিলি নিয়েও তৃণমূল সরকারের সমালোচনা করেছেন দিলীপ। তিনি বলেন, ‘‘মুখ্যমন্ত্রী নাকি বলেছেন, ৬ লক্ষ ত্রিপল বিলি হয়েছে। জানি না, সেগুলি কোথায় গেল। ৫ লক্ষ লোককে নাকি সরানো হয়েছে, কিন্তু মানুষ তো তাঁদের বাড়িতেই রয়েছেন।’’

Advertisement
(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.