Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২১ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

Tathagata Roy: বিজেপি-র ইস্তাহার তৈরি করতেন বুদ্ধদেব গুহ! ‘লালাদা’র মৃত্যুর পরেই তথাগতর রায়, নিন্দার ঝড়

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ৩০ অগস্ট ২০২১ ১৭:২৮
তথাগতর টুইটে অস্বস্তি বিজেপি-র অন্দরেও।

তথাগতর টুইটে অস্বস্তি বিজেপি-র অন্দরেও।

সাহিত্যিক বুদ্ধদেব গুহ প্রয়াত হয়েছেন রবিবার গভীর রাতে। তাঁর মৃত্যুর পরেই সোমবার সকাল থেকে শোকপ্রকাশ চলছে নেটমাধ্যমে। বুদ্ধদেবের স্মৃতিচারণা করতে গিয়ে রাজ্য বিজেপি-র প্রাক্তন সভাপতি তথাগত রায় দাবি করলেন, তিনি একাধিক বার বুদ্ধদেবকে সঙ্গে নিয়ে দলের ইস্তাহার তৈরি করেছেন। তথাগত লিখেছেন, ‘‘উনি আর আমি মিলে একাধিক বার বিজেপির ম্যানিফেস্টো তৈরি করেছি।’’ বিজেপি-র সঙ্গে বুদ্ধদেবের যে এক সময় ঘনিষ্ঠতা হয়েছিল তা অনেকেরই জানা। কিন্তু মৃত্যুর পর সেই সংক্রান্ত দাবি এ ভাবে প্রকাশ্যে আনা কি উচিত? এমন প্রশ্নেই সরব নেটাগরিকরা। বিজেপি-র অন্দরেও এ নিয়ে সমালোচনা চলছে। দলের রাজ্য মুখপাত্র শমীক ভট্টাচার্য বলেন, ‘‘নয়ের দশকে বুদ্ধদেব গুহ ইস্তাহার তৈরিতে যে আমাদের সাহায্য করেছিলেন এটা ঠিক। কিন্তু আজকের দিনটায় এ ব্যাপারে আর কিছু আলোচনা করতে চাই না।’’

বুদ্ধদেবের মৃত্যুতে শোকপ্রকাশ করেছেন বিজেপি-র অন্য নেতারাও। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী থেকে রাজ্যের বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী টুইট করে বুদ্ধদেবের সাহিত্যকর্ম নিয়ে প্রশংসাসূচক মন্তব্য করেছেন। কিন্তু কেউ-ই বিজেপি-র সঙ্গে প্রয়াত সাহিত্যিকের রাজনৈতিক সম্পর্ক নিয়ে কিছু বলেননি। একটা সময় রাজ্য বিজেপি-র উদ্যোগে বিশিষ্টজনদের সভায় বুদ্ধদেব এসেছিলেন বলেও জানা যায়। তবে তিনি যে ইস্তাহার তৈরিতে সাহায্য করতেন, তেমন খবর প্রকাশ্যে আসেনি কখনও। তাঁর মৃত্যুর পর তথাগত যে দাবি করেছেন তার পক্ষে বা বিপক্ষে মত প্রকাশের সুযোগই নেই বিদেহী বুদ্ধদেবের। সেই সময়ে এমন দাবি করে প্রয়াত লেখকের ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে এমন রাজনৈতিক দাবি কতটা যুক্তিযুক্ত তা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন নেটাগরিকরা। চলছে জোর সমালোচনাও।

Advertisement

অস্বস্তিতে বিজেপি নেতারাও। শমীক নিজের বক্তব্য জানালেও তথাগতর টুইট নিয়ে কোনও মন্তব্য করতে চাননি। রাজ্য বিজেপি-র এক শীর্ষ নেতা বলেন, ‘‘তথাগতদা অনেক প্রবীণ। তিনি তিনটি রাজ্যের রাজ্যপাল থেকেছেন। তাই তাঁর সমালোচনা করব না। তবে এটা ঠিক যে, বার বার তাঁর টুইট ঘিরে দলকে বিতর্কের মুখে পড়তে হচ্ছে।’’ বিধানসভা নির্বাচনে বিজেপি-র ভরাডুবির পরে দলের রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ-সহ কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের বিরুদ্ধে প্রকাশ্যে সরব হন তথাগত। এর পরে দিল্লিতে তাঁকে তলব করে কথা বলেন সর্বভারতীয় সভাপতি জেপি নড্ডা। কিন্তু তাতে যে কাজের কাজ হয়নি, সেটা পরেও দলবিরোধী মন্তব্য করে প্রমাণ করেছেন তথাগত। সম্প্রতি তাঁকে ‘দাদু’ সম্বোধন করা নেটাগরিকদের আক্রমণ করতে ‘অপশব্দ’ও ব্যবহার করেছেন।

সোমবার বুদ্ধদবেকে নিয়ে মন্তব্যের আগেও দলকে অস্বস্তিতে ফেলেছেন রবিবারও। রাজ্যে এখন উপনির্বাচন না চাইলেও কবে হবে নিয়ে কোনও মন্তব্য করতে চাইছেন না বিজেপি-র রাজ্য নেতৃত্ব। সেখানে রবিবারই তথাগত টুইটে লেখেন, জগদ্ধাত্রী পুজোর পরে হবে উপনির্বাচন। তা নিয়েও সমালোচনা হয়। তার রেশ কাটতে না কাটতেই সোমবার অন্য ‘কাণ্ড’ ঘটালেন তিনি।

আরও পড়ুন

Advertisement