×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

০৪ অগস্ট ২০২১ ই-পেপার

WB Politics: ভোটে হেরে বোধোদয়, মমতার ছবির প্রসঙ্গ তুলে ‘বেসুরো’ রাজীবকে খোঁচা সাংসদ সৌমিত্রের

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ০৮ জুন ২০২১ ২১:৪৭
জোড়া টুইটে রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়কে নিশানা সৌমিত্র খাঁয়ের।

জোড়া টুইটে রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়কে নিশানা সৌমিত্র খাঁয়ের।

রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়ের টুইটের জবাবে জোড়া টুইট করলেন সৌমিত্র খাঁ। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় বিষ্ণুপুরের বিজেপি সাংসদ সৌমিত্র তাঁরই দলের নেতা তথা রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রী রাজীবকে ‘নীরব’ না থেকে ভোট পরবর্তী সন্ত্রাসে ক্ষতিগ্রস্ত বিজেপি কর্মীদের পাশে দাঁড়ানোরও পরামর্শ দিয়েছেন। পাশাপাশি, বিধানসভা নির্বাচনে হাওড়ার ডোমজুড়ে বিপুল ভোটে হার এবং জানুয়ারি মাসে তৃণমূল বিধায়কের ইস্তফা দেওয়ার পর মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ছবি হাতে নিয়ে কান্নার প্রসঙ্গ তুলেও রাজীবকে খোঁচা দিয়েছেন সৌমিত্র।

প্রথম টুইটে সৌমিত্র লিখেছেন, ‘৪২হাজার ভোটে হারার পর মনে পড়ল? বিজেপির ৪২ জনের বেশি কর্মী মারা গিয়েছেন,তখন চুপ থাকা মানে শাসক দলকে সমর্থন করা। মোদী সরকার করোনার জন্য ফ্রি-তে প্রতিষেধক,অক্সিজেন-সহ সব রকম সাহায্য করছে। আর ইয়াস ঘূর্ণিঝড়ের জন্য মোদীজি নিজে এসেছেন। ৪০০কোটি টাকা দেওয়া হয়েছে রাজ্যেকে।’

দ্বিতীয় টুইটে রাজীবের উদ্দেশে সৌমিত্র লিখেছেন, ‘আরও যা যা ক্ষতি হয়েছে, তাতে কেন্দ্রীয় সরকার সাহায্য করবে। আমরা বিরোধী দল, আমরা সরকারের গঠনমূলক কাজে সাহায্য করব। ভুল হলে পথে নামব। আপনি নীরব না থেকে বিজেপি কর্মীদের পাশে থাকলে ভাল হয়। না হলে গাড়ির পিছনে যে ছবিটা আছে, সেটা আবার সামনের সিটে নিয়ে আসুন।’

Advertisement

রাজীব মঙ্গলবার রাজ্য বিজেপি-র বৈঠকে গরহাজির ছিলেন। পাশাপাশি, শুভেন্দু অধিকারী-সহ রাজ্য বিজেপি নেতৃত্বের একাংশের পশ্চিমবঙ্গে ৩৫৬ ধারা জারির দাবিরও নেটমাধ্যমে বিরোধিতা করেন তিনি। টুইটারে রাজীব লেখেন, ‘সমালোচনা তো অনেক হল...মানুষের বিপুল জনসমর্থন নিয়ে আসা নির্বাচিত সরকারের সমালোচনা ও মুখ্যমন্ত্রীর বিরোধিতা করতে গিয়ে কথায় কথায় দিল্লি আর ৩৫৬ ধারার জুজু দেখালে বাংলার মানুষ ভাল ভাবে নেবে না। আমাদের সকলের উচিত রাজনীতির ঊর্ধ্বে উঠে কোভিড ও ইয়াস, এই দুই দুর্যোগে বিপর্যস্ত বাংলার মানুষের পাশে থাকা।’

এই মন্তব্যের কয়েক ঘণ্টা পরেই রাজীবের টুইটটি ট্যাগ করে তাঁর উদ্দেশে তোপ দাগেন সৌমিত্র। তবে নেটমাধ্যমে বিজেপি যুব মোর্চার রাজ্য সভাপতি জানিয়েছেন, রাজীবের উদ্দেশে তাঁর জোড়া টুইট ‘দলের বক্তব্য নয়, নিজের মন্তব্য’। যদিও বিধানসভা ভোটে হারের পর থেকেই বিজেপি-র সঙ্গে রাজীবের দূরত্ব ক্রমশ বাড়ছিল বলে জল্পনা। এই পরিস্থিতিতে সৌমিত্রের মন্তব্য তাৎপর্যপূর্ণ বলেই মনে করা হচ্ছে।

Advertisement