Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৭ নভেম্বর ২০২১ ই-পেপার

ভাটপাড়ায় ফের চলল বোমা-গুলি

নিজস্ব সংবাদদাতা
২৬ জুলাই ২০১৯ ০৩:২০
অর্জুন সিংহ।

অর্জুন সিংহ।

বিজেপি সাংসদ অর্জুন সিংহের বাড়ির সামনে বোমা-গুলি চালানোর অভিযোগকে কেন্দ্র করে নতুন করে উত্তপ্ত হয়ে উঠল ভাটপাড়া। অর্জুনের পরিবারের লোকজন এই ঘটনায় স্থানীয় তৃণমূল নেতা সঞ্জয় সিংহের বিরুদ্ধে অভিযোগ এনেছেন। সঞ্জয় আবার অর্জুনের ভাইপো সৌরভ সিংহের বিরুদ্ধে বোমা-গুলি চালানোর পাল্টা অভিযোগ তুলেছেন। পুলিশ জানিয়েছে, তদন্ত শুরু হয়েছে।

ভাটপাড়া মেঘনা জুটমিলের কাছেই মজদুর ভবনই বর্তমানে অর্জুনের ঠিকানা। তবে তিনি এখন দিল্লিতে। বুধবার রাতে তাঁর বাড়ির সামনে গুলি এবং বোমা চলে বলে অভিযোগ। সে সময়ে মজদুর ভবনে ছিলেন ভাটপাড়ার পুরপ্রধান সৌরভ। মজদুর ভবনের পাশেই তৃণমূলের একটি পার্টি অফিস রয়েছে। সেখানকার নেতা সঞ্জয় সিংহ লোকজন নিয়ে তাঁকে লক্ষ্য করেই বোমা-গুলি চালিয়েছে বলে অভিযোগ সৌরভের। তাঁকে প্রাণে মেরে ফেলাই উদ্দেশ্য ছিল বলে দাবি সৌরভের।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, এই ঘটনার পরে এলাকায় পুলিশ তদন্ত করে। তারা ফিরে যাওয়ার পরে ফের বোমা-গুলি চলে। সঞ্জয়ের অভিযোগ, সৌরভ এবং তাঁর লোকেরা এসে পার্টি অফিসে চড়াও হন। তাঁকে মারধর করার চেষ্টা চলে। সৌরভের হাতে আগ্নেয়াস্ত্র ছিল বলেও অভিযোগ সঞ্জয়ের।

Advertisement

তৃণমূলের অভিযোগ, তাদের কর্মী-সমর্থকদের বিজেপির লোকজনকে তাড়া করে। সে সময়ে তাঁদের লক্ষ্য করে গুলি এবং বোমা চলে বলেও অভিযোগ। সঞ্জয়ের দাবি, পুলিশের হাতে তার সিসি টিভি ফুটেজ রয়েছে।

এ দিকে, ঘটনার প্রতিবাদে বৃহস্পতিবার বিজেপি কর্মী-সমর্থকেরা ঘোষপাড়া রোড এবং কল্যাণী এক্সপ্রেসওয়ে বেশ কিছুক্ষণের জন্য অবরোধ করেন। অর্জুনের বাড়ির সামনেই সিআইএসএফ পাহারা দেয়। তার পরেও কী করে এই ঘটনা ঘটল, তা নিয়ে বিস্ময় তৈরি হয়েছে নানা মহলে।

সঞ্জয়ের অভিযোগ অস্বীকার করে সৌরভ বলেন, “আমি বা আমাদের কোনও লোকের হাতে বোমা-আগ্নেয়াস্ত্র ছিল না। মিথ্যা অভিযোগ করা হচ্ছে। আমার নিজের লাইসেন্সড আগ্নেয়াস্ত্র রয়েছে। তবে সেটি বাড়িতে ছিল।” সৌরভ পাল্টা জানিয়েছেন, তাঁদের হাতেও একটি সিসি টিভি ফুটেজ রয়েছে, সেখানে তৃণমূলের লোকজনকে বোমা-আগ্নেয়াস্ত্র হাতে দেখা গিয়েছে। সেই ফুটেজ পুলিশের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে। সৌরভ এবং সঞ্জয় পরস্পরের বিরুদ্ধে অভিযোগ করেছেন থানায়।

সিসি ক্যামেরার বেশ কিছু ফুটেজ পুলিশের হাতে এসেছে। প্রাথমিক ভাবে তদন্তকারীরা মনে করছেন, গুলি-বোমা অর্জুনের বাড়ি লক্ষ্য করে চলেনি।

ব্যারাকপুর কমিশনারেটের ডিসি (জোন ১) অজয় ঠাকুর বলেন, “আমরা ঘটনাটা বুঝে গিয়েছি। কিছু নাম আমাদের হাতে এসেছে। দ্রুত যথাযথ পদক্ষেপ করা হবে।”

সঞ্জয়ের বক্তব্য, “গত কয়েক দিন ধরে অর্জুনের লোকেরা আমাকে খুনের হুমকি দিচ্ছে। ১৫ জুলাই আমি থানাতে অভিযোগও জানিয়েছি। দু’দিন আগেও আমাকে হেনস্থা করা হয়। বুধবার সকালেও একই ঘটনা ঘটে।” সৌরভের দাবি, গত কয়েক দিন ধরেই তাঁকে গালাগালি করছিল তৃণমূলের লোকজন।

সব মিলিয়ে ফের উত্তেজনার আবহ তৈরি হয়েছে ভাটপাড়ায়।

আরও পড়ুন

Advertisement