Advertisement
১৯ জুন ২০২৪
Calcutta High Court

রেড রোডে হলে নবান্নের সামনে নয় কেন? ডিএ-র দাবিতে শর্তসাপেক্ষে সভা করার অনুমতি হাই কোর্টের

বিচারপতি রাজাশেখর মান্থা জানালেন, ৭২ ঘণ্টার বেশি ধর্নার কর্মসূচি করা যাবে না। একসঙ্গে ৩০০ জনের বেশি এক সময়ে উপস্থিত থাকতে পারবেন না সেখানে।

image of high Court

কলকাতা হাই কোর্ট। — ফাইল চিত্র।

আনন্দবাজার অনলাইন সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ২১ ডিসেম্বর ২০২৩ ১৫:২১
Share: Save:

নবান্ন বাসস্ট্যান্ডে ডিএ আন্দোলনকারীদের শর্তসাপেক্ষে সভা করার অনুমতি দিল কলকাতা হাই কোর্ট। বিচারপতি রাজাশেখর মান্থা জানালেন, ৭২ ঘণ্টার বেশি ধর্নার কর্মসূচি করা যাবে না। একসঙ্গে ৩০০ জনের বেশি এক সময়ে উপস্থিত থাকতে পারবেন না সেখানে। এ নিয়ে রাজ্যের পক্ষে আপত্তি তুলে জানায়, নবান্ন রাজ্যের প্রধান প্রশাসনিক কার্যালয়। বিচারপতি জানান, রেড রোডে বা যেখানে ১৪৪ ধারা জারি, সেখানে রাজনৈতিক কর্মসূচির অনুমতি দেওয়া হলে, এখানে নয় কেন।

ডিএ-র দাবিতে নবান্ন বাসস্ট্যান্ডের সামনে ধর্না কর্মসূচি করতে চায় সংগ্রামী যৌথমঞ্চ। পুলিশ অনুমতি দেয়নি। এর পরেই হাই কোর্টে মামলা করা হয়। ডিএ আন্দোলনকারীদের আইনজীবী বিক্রম বন্দ্যোপাধ্যায়। বৃহস্পতিবার হাই কোর্ট শর্তসাপেক্ষে সেই কর্মসূচি করার অনুমতি দিল। এই নিয়ে শুনানিতে আপত্তি জানায় রাজ্য। বলা হয়, নবান্ন হল রাজ্যের প্রশাসনিক কার্যালয়। তার সামনে ধর্না দেওয়া কী ভাবে সম্ভব! তা ছাড়া এ ভাবে ধর্না দিয়ে কোনও কাজ হয় না। বিচারপতি মান্থা বলেন, ‘‘রেড রোডে র‌্যালি হচ্ছে। ১৪৪ ধারা যেখানে, সেখানে কর্মসূচির অনুমতি দিচ্ছেন। তা হলে নবান্নে দিচ্ছেন না কেন?’’

বিচারপতি আরও বলেন, ‘‘কে বলেছেন ধর্না দিয়ে কাজ হয় না। স্কুলের চাকরিপ্রার্থীরা ধর্না দিচ্ছেন, সেখানে সরকারের প্রতিনিধি কথা বলছেন। যদি কাজ না হয়, তা হলে এমন করছেন কেন।’’ কলকাতা হাই কোর্টের অনুমতি মেলার পরেই সংগ্রামী যৌথ মঞ্চ নবান্ন অভিযানের দিন ঘোষণা করেছে। ২২, ২৩ এবং ২৪ ডিসেম্বর অর্থাৎ শুক্র থেকে রবিবার নবান্ন বাসস্ট্যান্ডের সামনে কর্মসূচির ডাক দিয়েছে তারা।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)

অন্য বিষয়গুলি:

Calcutta High Court Nabanna DA
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE