Advertisement
২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪
Central Government

রাজ্যের ৬৮ লক্ষের বেশি রেশন কার্ড বাতিল করে দিল কেন্দ্রীয় সরকার

পশ্চিমবঙ্গের ৬৮ লক্ষের বেশি রেশন কার্ড বাতিল করার কথা ঘোষণা করেছেন কেন্দ্রীয় সরকার। নিষ্ক্রিয় থাকা কার্ডগুলিকেই বাতিল করা হয়েছে।

রাজ্যের ৬৮ লক্ষেরও বেশি রেশন কার্ড বাতিল করে দিল কেন্দ্রীয় সরকার।

রাজ্যের ৬৮ লক্ষেরও বেশি রেশন কার্ড বাতিল করে দিল কেন্দ্রীয় সরকার। প্রতীকী ছবি।

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ২৭ জুন ২০২২ ১৫:২৭
Share: Save:

রাজ্যের ৬৮ লক্ষেরও বেশি রেশন কার্ড বাতিল করে দিল কেন্দ্রীয় সরকার। সম্প্রতি এক বিজ্ঞপ্তি জারি করে গোটা দেশের রেশন কার্ড বাতিলের পরিসংখ্যান জানিয়েছে খাদ্য বণ্টন মন্ত্রক। সেই তালিকায় পশ্চিমবঙ্গের ৬৮ লক্ষ ৬২ হাজার ৩৭১টি রেশন কার্ড বাতিল করার কথা জানানো হয়েছে। রেশন কার্ড বাতিল করতে কেন্দ্রের তরফে রাজ্যগুলিতে বেশ কিছু নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল। সেই নির্দেশ মতো কাজ শুরু করেছিল রাজ্য খাদ্য দফতর। খাদ্য দফতর সূত্রে খবর, গত বছর জুন মাসে রাজ্যে রেশন কার্ডের সংখ্যা ছিল সাড়ে ১০ কোটি। ওই ৬৮ লক্ষ কার্ড বাতিল হওয়ার পর সাড়ে নয় কোটির কিছু বেশি কার্ড সক্রিয় রয়ে গিয়েছে।

রেশন কার্ডে আধার সংযোগের জন্য মে মাস পর্যন্ত সময় দিয়েছিল খাদ্য দফতর। সেই কাজ করতে গিয়েই মৃত ব্যক্তিদের নামে চালু থাকা এবং ভুয়ো রেশন কার্ড চিহ্নিত করেছে খাদ্য দফতর। সেই রিপোর্ট হাতে পাওয়ার পরেই রেশন কার্ডগুলি বাতিল করা হয়েছে। খাদ্য দফতরের এক আধিকারিকের কথায়, ‘‘এই পদ্ধতির ফলে রাজ্যের রেশন পরিষেবা প্রদানের ক্ষেত্রে স্বচ্ছতা আসবে। এবং যাঁরা রেশন পাওয়ার যোগ্য, তাঁরাই রেশন পাবেন।’’

দীর্ঘ দিন রেশনের সামগ্রী না-নেওয়া ও আধার সংযোগ না হওয়ায় রাজ্যে ১.১২ কোটি কার্ড নিষ্ক্রিয় রাখা হয়েছে। আধার সংযুক্তির পরে বায়োমেট্রিক পদ্ধতিতে তা যাচাই (ই-কেওয়াইসি) করলে নিষ্ক্রিয় থাকা কার্ডগুলি চালু করার সুযোগ এখনও রয়েছে বলেই খাদ্য দফতর সূত্রে খবর। খাদ্য দফতরের আধিকারিকরা মনে করছেন, নিষ্ক্রিয় হয়ে যাওয়া কার্ডগুলির গ্ৰাহকদের অনেকেই এখন অস্তিত্বহীন। এই ধরনের কার্ডগুলি নিষ্ক্রিয় হওয়ায় সরকারের বিপুল আর্থিক সাশ্রয় হচ্ছে। এর মাধ্যমে বছরে সরকারের এক হাজার কোটি টাকার বেশি বাঁচবে বলে মনে করছে খাদ্য দফতর। তাই কার্ড বাতিল হওয়ার তালিকা কেন্দ্রীয় সরকার ঘোষণা করে দিলেও, রাজ্যের তরফে এখনও সেই কাজ চলবে বলেই ইঙ্গিত মিলেছে।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE