Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২০ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

সরকারি শ্রমিক মেলার সামনে সিটুর প্রতিবাদ, দলের পতাকা হাতে বাধা দেওয়ার অভিযোগ তৃণমূলের বিরুদ্ধে

নিজস্ব সংবাদদাতা
কোন্নগর ২৭ জানুয়ারি ২০২১ ১৫:৪২
সিটুর প্রতিবাদ মিছিলে বাধা দেওয়ার অভিযোগ ঘিরে উত্তেজনা।

সিটুর প্রতিবাদ মিছিলে বাধা দেওয়ার অভিযোগ ঘিরে উত্তেজনা।
নিজস্ব চিত্র।

শ্রমিক মেলা শুরুর আগে মেলা প্রাঙ্গণে সিপিএমের শ্রমিক সংগঠনর সিটুর প্রতিবাদ মিছিল। আর এই প্রতিবাদ মিছিলে তৃণমূলের বাধা দেওয়ার অভিযোগ ঘিরে উত্তেজনা হুগলির কোন্নগরে এসি দেব স্ট্রিটে শ্রীরামপুর মহকুমা শ্রমিক মেলায়। সিটুর অভিযোগ, এই রাজ্য সরকারের আমলে শ্রমিকরা সব দিক থেকে বঞ্চিত। শ্রমিকরা উপযুক্ত মজুরি, পিএফের সুবিধা, কিছুই পাচ্ছেন না।

সিটুর হুগলি জেলা কমিটির সদস্য তীর্থঙ্কর রায়ের অভিযোগ, "চটকলগুলো বন্ধ হয়ে পড়ে রয়েছে। অসংগঠিত শ্রমিকরা কোনও রকম সামাজিক সুরক্ষা পাচ্ছেন না। এমনকি পুরসভার সাফাই কর্মীদেরও বসিয়ে দেওয়া হচ্ছে।" এরই প্রতিবাদে শ্রমিক মেলা বয়কট করে প্রতিবাদ জানাতে আসেন তাঁরা। তিনি আরও বলেন, " সরকারি টাকায় সরকারি মেলায় তৃণমূল কংগ্রেস দলের পতাকা নিয়ে শ্রমিকদের বাধা দিতে নেমেছে। আসলে এটাই তৃণমূলের সংস্কৃতি। আর এ ক্ষেত্রে তৃণমূল বিজেপির মধ্যে তফাৎ নেই। শ্রমিকদের দাবি, আগে কল কারখানা খোলার ব্যবস্থা হোক, তার পর মেলার জন্য টাকা খরচ করুক সরকার।"

মেলার সামনে সিটু মিছিল করে প্রতিবাদ জানাতে এলে তৃণমূলের সঙ্গে তাদের বচসা শুরু হয়। অভিযোগ, তৃণমূলের পতাকা নিয়েই কিছু কর্মী সমর্থক মিছিলে বাধা দেন। গণ্ডগোলের খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে হাজির হয় উত্তরপাড়া থানার পুলিশ। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

Advertisement

ধনিয়াখালির বিধায়ক তৃণমূল নেত্রী অসীমা পাত্র সেই সময় শ্রমিক মেলার মঞ্চে উপস্থিত ছিলেন। পরে তিনি বলেন, “৩৪ বছর সিপিএম ক্ষমতায় ছিল। ওরা দেওয়াল লিখত ‘কৃষি আমাদের ভিত্তি, শিল্প আমাদের ভবিষ্যৎ’ কিন্তু শ্রমিক কৃষক উভয়েরই সর্বনাশ করেছে। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় গত ১০ বছরে শ্রমিকদের সুরক্ষা দেওয়া থেকে নানা উন্নয়ন মূলক পদক্ষেপ করেছেন। সেটাই ওদের সহ্য হচ্ছে না।”

আরও পড়ুন

Advertisement