Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১ ই-পেপার

Fraud Arrest: ‘প্রেমের জাল’ বিছিয়ে জালে প্রতারক, কলকাতা পুলিশের অভিযানকে ‘দিশা’ তরুণী সাব ইনস্পেক্টরের

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ১৪ সেপ্টেম্বর ২০২১ ১৮:১৩
কলকাতা পুলিশের অভিযানে জালে প্রতারক।

কলকাতা পুলিশের অভিযানে জালে প্রতারক।
নিজস্ব চিত্র।

মিথ্যের জাল বুনে বারবার পুলিশকে বোকা বানিয়ে পালানোয় সিদ্ধহস্ত সে। লখনউ থেকে আমদাবাদ, হায়দরাবাদ থেকে পোর্ট ব্লেয়ার, সর্বত্র তার বিরুদ্ধে এক অভিযোগ। এ হেন প্রতারককে জেলে পুরল কলকাতা পুলিশ। তাও আবার রীতিমতো প্রেমের জাল বিছিয়ে।

গত অগস্ট মাসে গড়িয়াহাটের একটি স্বর্ণ বিপণি থেকে এক লক্ষ ৯০ হাজার গয়না নিয়ে টাকা না দিয়ে পালানোর অভিযোগ দায়ের হয় অঙ্গদ মেহতা নামে এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে। গড়িয়াহাট থানা সূত্রে খবর, গয়না একটি গেস্ট হাউজে ডেলিভারি হবে বলে জানান অঙ্গদ। সেই অনুযায়ী স্বর্ণ বিপণির কর্মীরা গয়না নিয়ে গেস্ট হাউসে পৌঁছন। অঙ্গদ নামের ওই ব্যক্তি তখন স্ত্রীকে গয়না দেখানোর নাম করে গয়নার বাক্স নিয়ে পালিয়ে যান।

তদন্তে নেমে কলকাতা পুলিশের সাব ইনস্পেক্টর দিশা মুখোপাধ্যায় পায়েল শর্মা নামে একটি নকল প্রোফাইল খুলে অঙ্গদের সঙ্গে যোগাযোগ করেন। তাঁকে প্রেমের জালে ফাঁসান। তার পর পায়েলের সঙ্গে দেখা করতে কলকাতার মিলেনিয়াম পার্কে আসেন অঙ্গদ মেহতা। সঙ্গে সঙ্গে পুলিশ তাঁকে গ্রেফতার করে।

পুলিশ সূত্রে খবর, কখনও হর্ষ ওবেরয়, কখনও অঙ্গদ মেহতা আবার কখনও সার্থক রাও বাবরস নামে দেশজুড়ে প্রতারণা চালাতেন ওই ব্যক্তি। এ জন্য একাধিকবার জেলও খেটেছেন তিনি। বিভিন্ন পাঁচতারা হোটেলে ভুয়ো পরিচয়ে ঘর ভাড়া নিয়ে টাকা না শোধ করেই পালাতেন ওই ব্যক্তি। সোনার গয়নার দোকানেও প্রতারণার অভিযোগ রয়েছে তাঁর বিরুদ্ধে। ভুয়ো পরিচয়পত্র দেখিয়েই কলকাতাতেও তিনি গয়না অর্ডার করেছিলেন বলে লালবাজার সূত্রে খবর।

Advertisement

আরও পড়ুন

More from My Kolkata
Advertisement