Advertisement
২৯ নভেম্বর ২০২২
Bidhannagar Police

Kolkata Police: বিধাননগর কমিশনারেটের নামে দরপত্র হেঁকে ৪৮ লক্ষ প্রতারণা, গ্রেফতার সিভিক পুলিশ, নজরে আরও ৩

বিধাননগর কমিশনারেটের দরপত্র পাইয়ে দেওয়ার নাম করে ঠিকাদারের কাছ থেকে ৪৮ লক্ষ হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ।

ধৃত সুমন ভৌমিক।

ধৃত সুমন ভৌমিক। —নিজস্ব চিত্র।

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ২৮ জুলাই ২০২১ ১০:৫৬
Share: Save:

ভুয়ো আইএএস, আইপিএস অফিসারের পর এ বার শহরে হদিশ মিলল ভুয়ো পুলিশের। পুলিশে সেজে খবরদারি চালানোই নয়, বিধাননগ কমিশনারেটের নামে দরপত্র হেঁকে ৪৮ লক্ষ টাকা জালিয়াতির অভিযোগ উঠল চার জনের বিরুদ্ধে। অভিযুক্তদের মধ্যে এক জন আবার সিভিক পুলিশ। তাঁকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

Advertisement

প্রতারণার শিকার হয়েছেন বলে সম্প্রতি চারু মার্কেট থানায় অভিযোগ দায়ের করেন পেশায় ঠিকাদার রাজদেও সিংহ। তিনি জানান, সম্প্রতি তাঁর সঙ্গে চার জনের পরিচয় হয়। নিজেদের এসআই, অতিরিক্ত ডেপুটি কমিশনারের মতো পদাধিকারী হিসেবে দাবি করেন তাঁরা। বিধাননগর কমিশনারেটের একটি দরপত্র পাইয়ে দেওয়ার নাম করে ৪৮ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নেন। কিন্তু পরে রাজদেও জানতে পারেন ওই দরপত্রই ভুয়ো।

বিষয়টি নিয়ে তদন্তে নেমে পুলিশ জানতে পারে ভুয়ো পরিচয় দিয়ে ওই ব্যক্তির সঙ্গে প্রতারণা করেছেন অভিযুক্তরা। বুধবার অভিযুক্তদের মধ্যে সুমন ভৌমিক নামের এক জনকে গ্রেফতার করে পুলিশ। বিধাননগর কমিশনারেটে এক সময় সিভিক ভলান্টিয়ার হিসেবে তিনি কর্মরত ছিলেন বলে জানা গিয়েছে। এসআই পরিচয় দিয়ে তিনিই বিধাননগর কমিশনারেটের নামে ভুয়ো দরপত্র হাঁকেন।

ধৃতের কাছ থেকে দু’টি ল্যাপটপ, দু’টি মোবাইল ফোন এবং ব্যাঙ্কের বেশ কিছু নথিপত্র উদ্ধার করেছে পুলিশ। কোথায়, কত টাকা লেনদেন হয়েছে, তা খতিয়ে দেখছে পুলিশ। তাঁর বয়ানের উপর ভিত্তি করেই বাকি অভিযুক্তদের নাগাল পাওয়ার চেষ্টা চলছে। অতিরিক্ত ডেপুটি কমিশনার হিসেবে পরিচয় দেওয়া অন্য এক অভিযুক্তের বাড়িতে তল্লাশি চলছে। গোটা বিষয়টির তদন্ত করছে কলকাতা পুলিশের গোয়েন্দা বিভাগের জালিয়াতি দমন শাখা।

Advertisement
(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.