Advertisement
২০ জুলাই ২০২৪
Kolkata Metro

মেট্রোর বিদ্যুৎবাহী লাইনে বদল আসছে, সিঙ্গাপুর, লন্ডনের মতো পরিষেবা মিলবে কলকাতাতেও!

মেট্রো চলাচলের জন্য দু’টি লাইনের সমান্তরালে তৃতীয় যে বিদ্যুৎবাহী লাইনটি থাকে, ব্লু লাইনে তা ইস্পাতের তৈরি। এর ফলে বিদ্যুৎ খরচ বেশি হয়। সেই লাইনে অ্যালুমিনিয়াম ব্যবহার করা হবে।

—ফাইল চিত্র।

আনন্দবাজার অনলাইন সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ১৩ জুন ২০২৪ ২০:৪৭
Share: Save:

কলকাতা মেট্রোর ব্লু লাইন (দক্ষিণেশ্বর থেকে কবি সুভাষ)-এ পরিবর্তন আসছে। বিদ্যুৎবাহী তৃতীয় লাইন (থার্ড রেল) ইস্পাতের পরিবর্তে অ্যালুমিনিয়াম ব্যবহারের বন্দোবস্ত করা হচ্ছে। এই কাজ সম্পন্ন হলে কলকাতা মেট্রোয় সিঙ্গাপুর, লন্ডনের মতো বড় শহরের মতো পরিষেবা পাওয়া যাবে বলে আশাবাদী মেট্রো কর্তৃপক্ষ।

মেট্রো রেলের তরফে বৃহস্পতিবার একটি বিবৃতি দিয়ে জানানো হয়েছে, মেট্রো চলাচলের জন্য দু’টি লাইনের সমান্তরালে যে তৃতীয় বিদ্যুৎবাহী লাইনটি থাকে, তা ইস্পাতের তৈরি। এর ফলে বিদ্যুৎ খরচ বেশি হয়। আগামী দিনে ইস্পাতের পরিবর্তে মেট্রোর তৃতীয় লাইনে অ্যালুমিনিয়াম ব্যবহার করা হবে। তাতে বিদ্যুৎ খরচ অনেকটা বাঁচবে। শুধু তা-ই নয়, মেট্রো কর্তৃপক্ষ জানিয়েছেন, এই কাজ শেষ হলে সিঙ্গাপুর, লন্ডন, মস্কো, বার্লিন, মিউনিখ, ইস্তানবুলের মেট্রো পরিষেবার পর্যায়ে পৌঁছবে কলকাতা মেট্রোও। কারণ, ওই সকল শহরে ইতিমধ্যে অ্যালুমিনিয়ামের বিদ্যুৎবাহী লাইন বসানো হয়েছে।

একটি জার্মান সংস্থাকে এই কাজের টেন্ডার দিয়েছে মেট্রো। বৃহস্পতিবার নোয়াপাড়া স্টেশনে অ্যালুমিনিয়ামের বিদ্যুৎবাহী লাইন বসানোর কাজ শুরু হয়েছে। মেট্রো কর্তৃপক্ষের দাবি, আগামী দু’বছরের মধ্যে ব্লু লাইনে অ্যালুমিনিয়ামের লাইন বসানোর কাজ সম্পন্ন হবে। যে সংস্থাকে এই কাজের বরাত দেওয়া হয়েছে, ইতিমধ্যে বিশ্বের বড় বড় ২০টি শহরে মেট্রোর লাইন বসানোর কাজ করে এসেছে সেই সংস্থাটি। তাই তারা দ্রুত এই কাজ কলকাতাতেও শেষ করবে বলে আশাবাদী কর্তৃপক্ষ।

মেট্রো জানিয়েছে, কলকাতার ব্লু লাইন সবচেয়ে পুরনো। যে সময়ে এই লাইন বসানোর হয়েছিল, সেই সময়ে অ্যালুমিনিয়ামের বিদ্যুৎবাহী লাইন বসানোর প্রচলন ছিল না। পরে কলকাতা মেট্রোয় যখন ইস্ট-ওয়েস্ট গ্রিন লাইন কিংবা জোকা-তারাতলা পার্পল লাইন তৈরি হল, সেখানে বিদ্যুৎবাহী লাইনে অ্যালুমিনিয়ামই ব্যবহার করা হয়েছে। কেবল ব্লু লাইনেই পুরনো ইস্পাতের ব্যবহার রয়ে গিয়েছে।

ইস্পাতের লাইন হওয়ায় মেট্রো চলার সময়ে রেকের সঙ্গে তার ঘর্ষণে যে বিদ্যুৎ উৎপন্ন হয়, তাতে খরচ অনেক বেশি। অ্যালুমিনিয়ামের লাইন বসলে বিদ্যুৎ খরচ কমবে অন্তত ৮৪ শতাংশ। সেই সঙ্গে ক্ষতিকর কার্বন উৎপাদনও অনেক কমে যাবে। অন্তত ৫০ হাজার টন কার্বন উৎপাদন কমবে এর ফলে। মেট্রো কর্তৃপক্ষের দাবি, অ্যালুমিনিয়ামের লাইন বসলে বিদ্যুৎ খরচ বাবদ বছরে প্রতি কিলোমিটারে এক কোটি টাকা বাঁচবে। এতে মেট্রো পরিষেবার খরচ অনেক কমবে। সেই সঙ্গে পরিষেবা আরও দ্রুত হবে।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)

অন্য বিষয়গুলি:

Kolkata Metro Metro service aluminium
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE