×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

১২ জুন ২০২১ ই-পেপার

ডাক্তারির ছাত্রদেরও কাজে লাগানো হবে করোনা মোকাবিলায়, জানালেন মুখ্যমন্ত্রী

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ০৬ মে ২০২১ ২০:৪০
মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বৃহস্পতিবার নবান্নে সাংবাদিক বৈঠকে।

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বৃহস্পতিবার নবান্নে সাংবাদিক বৈঠকে।
নিজস্ব চিত্র।

করোনা রোগীদের চিকিৎসায় কাজে লাগানো হবে ডাক্তারি পড়ুয়াদেরও। দরকার পড়লে ইন্টার্ন চিকিৎসক এমনকি নার্সরাও করবেন চিকিৎসার কাজ। জানাল রাজ্য সরকার। সংক্রমণের দ্বিতীয় ঢেউয়ের আবহে রাজ্যে যখন করোনা রোগীর সংখ্যা ক্রমে বাড়ছে এবং তার সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে চিকিৎসক এবং চিকিৎসা কর্মীদের সংখ্যায় কম পড়ার আশঙ্কা, ঠিক তখনই নবান্নে ওই ঘোষণা করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে শপথ নেওয়ার পর বৃহস্পতিবার মমতার দ্বিতীয় সাংবাদিক বৈঠক ছিল নবান্নে। সেখানে রাজ্যের করোনা পরিস্থিতিতে এবং চিকিৎসা পরিকাঠামো নিয়ে একাধিক নতুন সিদ্ধান্তের কথা জানান মুখ্যমন্ত্রী। মমতা বলেন, ‘‘এখন থেকে ডাক্তারির পড়ুয়াদেরও করোনা চিকিৎসার কাজে লাগানো হবে। ইন্টার্ন চিকিৎসক এবং নার্সরাও চিকিৎসার কাজ করবেন।’’ এমনকি প্রয়োজনে হাতুড়ে ডাক্তারদেরও চিকিৎসার কাজে ব্যবহার করা হবে বলে বৈঠকে জানান মমতা।

সংক্রমণের ধাক্কা সামলাতে রাজ্যের চিকিৎসা ব্যবস্থাতেও বেশ কিছু বদলের ঘোষণা করেন মমতা। অক্সিজেনের অভাবে ইতিমধ্যেই দেশের একাধিক রাজ্যে করোনা রোগীদের মৃত্যুর খবর সামনে এসেছে। বৃহস্পতিবার মমতা বলেন, ‘‘মেডিক্যাল কলেজে অক্সিজেন প্ল্যান্ট করা হবে।’’ এর পাশাপাশি সমস্ত হাসপাতালে শয্যা সংখ্যাও অন্তত ৪০ শতাংশ বাড়ানো হচ্ছে বলে জানান মুখ্যমন্ত্রী। তিনি বলেন, ‘‘শুধু সরকারি হাসপাতাল নয়, সমস্ত হাসপাতাল এবং নার্সিং হোমেই করোনা চিকিৎসার জন্য নির্দিষ্ট সংখ্যক শয্যা বরাদ্দ করতে হবে।’’

Advertisement
Advertisement