Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৮ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

লক্ষ্য ভোট, বদলে গেল পিকে-র ‘গ্রুপ আইকন’

আইপ্যাক হল ভোটকুশলী প্রশান্ত কিশোরের সংস্থা। লোকসভায় বিপর্যয়ের পরে এই সংস্থার সঙ্গেই গাঁটছড়া বেঁধেছে তৃণমূল। 

বরুণ দে
মেদিনীপুর ১০ নভেম্বর ২০১৯ ০১:০৫
সেই আইকন। ছবি: সংগৃহীত

সেই আইকন। ছবি: সংগৃহীত

লক্ষ্য খড়্গপুর উপ-নির্বাচনে তৃণমূলকে জেতানো। সেই ভোটের মুখে আচমকা বদলে গেল আইপ্যাকের একটি হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপের ‘গ্রুপ আইকন'- এর ছবি। আইপ্যাক হল ভোটকুশলী প্রশান্ত কিশোরের সংস্থা। লোকসভায় বিপর্যয়ের পরে এই সংস্থার সঙ্গেই গাঁটছড়া বেঁধেছে তৃণমূল।

‘গ্রুপ আইকন’- এর ছবি বদলে দেওয়ার ব্যাপারটি ঠিক কী?

আগেই বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমের পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার প্রতিনিধিদের নিয়ে হোয়াটসঅ্যাপে একটি গ্রুপ চালু করেছে আইপ্যাক। ‘দিদিকে বলো’ কর্মসূচি শুরুর পরপরই গ্রুপটি চালু করা হয়েছে। এই গ্রুপে তৃণমূলের বিভিন্ন কর্মসূচির তথ্য, ছবি দেওয়া হয়। বিশেষ করে যে কর্মসূচিগুলি সংস্থার পরামর্শে হয়। শুরু থেকেই এই হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপের ‘গ্রুপ আইকন’- এত দিন ‘দিদিকে বলো’ কর্মসূচির লোগো ছিল। সম্প্রতি তা বদলে খড়্গপুরের উপ-নির্বাচনকে সামনে রেখে তৈরি করা একটি লোগো দেওয়া হয়েছে।

Advertisement

নতুন এই লোগোয় তৃণমূলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ও দলের প্রার্থী প্রদীপ সরকারের ছবি রয়েছে। তৃণমূলের প্রতীকের ছবিও রয়েছে। সঙ্গে লেখা রয়েছে, ‘দিদির সাথে খড়্গপুর সদর।’ পশ্চিম মেদিনীপুরে আপাতত ‘দিদিকে বলো’ নয়, পিকে-র সংস্থার ‘পাখির চোখ’ যে খড়্গপুরের উপ-নির্বাচন, ‘গ্রুপ আইকন’- এর ছবি বদলে সেই বার্তাই স্পষ্ট করা হয়েছে বলে মনে করছেন রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকেরা।

নামপ্রকাশে অনিচ্ছুক পিকে-র সংস্থার এক কর্মী মানছেন, ‘‘খড়্গপুরে তৃণমূলের পালে হাওয়া এনে দেওয়াই এখন আমাদের একমাত্র লক্ষ্য। এ জন্য আমরা নানা পদক্ষেপ করছি।’’ রেলশহরে তৃণমূলের নির্বাচনী কৌশল রচনার কাজ করছেন এই সংস্থার লোকজনেরা। একেবারে কর্পোরেট ধাঁচে। সংস্থার একটি দল সেই ভোট ঘোষণার পর থেকেই খড়্গপুরে ঘাঁটি গেড়ে রয়েছে। আপাতত দলটি শহরে থাকবে। ভোট মিটলে দলটি শহর ছাড়বে বলেই তৃণমূলের এক সূত্রে খবর।

বিজেপি অবশ্য এ সব নিয়ে এতটুকুও ভাবছে না। বিজেপির রাজ্য সম্পাদক তুষার মুখোপাধ্যায়ের কটাক্ষ, ‘‘তৃণমূলের নৌকা ফুটো হয়ে গিয়েছে। কেউ তৃণমূলের পালে হাওয়া এনে দিতে পারবে না। খড়্গপুরের মানুষ বিজেপির সঙ্গে রয়েছেন।’’

আরও পড়ুন

Advertisement