×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

২৬ জানুয়ারি ২০২১ ই-পেপার

অখিলদের সঙ্গে চা-চক্রে বক্সী

নিজস্ব সংবাদদাতা
কোলাঘাট২৯ নভেম্বর ২০২০ ০৪:৫৫
—ফাইল চিত্র।

—ফাইল চিত্র।

গিয়েছিলেন পশ্চিম মেদিনীপুরে বৈঠকে। সেখান থেকে ফেরার পথে কোলাঘাটের হোটেলের ঘরে পূর্ব মেদিনীপুরের নেতা সঙ্গে বৈঠক সেরে ফেললেন তৃণমূলের রাজ্য সভাপতি সুব্রত বক্সী।

শনিবার মেদিনীপুর শহরে তৃণমূলের জেলা কমিটির বর্ধিত সভায় গিয়েছিলেন সুব্রত। সেখানে তিনি জানিয়েছেন, আগামী ৭ ডিসেম্বর মেদিনীপুর শহরের কলেজ-কলেজিয়েট মাঠে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সভায় পূর্ব মেদিনীপুরের তৃণমূল নেতৃত্বকেও ডাকা হবে। তবে মমতার সভায় পূর্বের নেতৃত্বদের ডাকার আগেই এ দিন তাঁদের সঙ্গে নিয়ে একপ্রস্থ বৈঠক সারলেন সুব্রত।

কলকাতায় ফেরার পথে কোলঘাটের একটি হোটেলে তৃণমূলের রাজ্য সভাপতির সঙ্গে দেখা করেন নন্দকুমারের বিধায়ক সুকুমার দে, রামনগরের বিধায়ক অখিল গিরি, চণ্ডীপুরে বিধায়ক অমিয় ভট্টাচার্য নন্দীগ্রামের নেতা শেখ সুফিয়ান পাঁশকুড়ার পুরসভার পুরপ্রধান নন্দ মিশ্র এবং হলদিয়া উন্নয়ন ব্লকের তৃণমূল যুব সভাপতি যশরাজ ব্রহ্মচারীর মতো একাধিক নেতা।

Advertisement

শুভেন্দুর মন্ত্রিত্ব ছাড়ার পরে বর্তমান পরিস্থিতিতে ওই বৈঠকে তাঁকে নিয়ে কোনও আলোচনা হয়েছে কি না, সে নিয়ে কোনও মন্তব্য করতে চাননি বৈঠকে হাজির নেতৃত্ব। তৃণমূল সূত্রের খবর, স্বাস্থ্যসাথী নিয়ে যে নতুন প্রকল্পের ঘোষণা করেছেন মুখ্যমন্ত্রী, সেই প্রকল্পটি সাধারণ মানুষের বাড়িতে বাড়িতে পৌঁছে দেওয়ার ব্যাপারে জেলার নেতাদের নির্দেশ দিয়েছেন রাজ্য সভাপতি। পাশাপাশি, পশ্চিম মেদিনীপুরে মুখ্যমন্ত্রীর সভায় উপস্থিত থাকার বার্তা দেওয়া হয়েছে প্রত্যেক বিধায়ককে।

রামনগরের বিধায়ক তথা জেলা আহ্বায়ক অখিল গিরি বলেন, ‘‘মেদিনীপুর থেকে ফেরার পথে সুব্রত বক্সী মহাশয়কে অনুরোধ করেছিলাম পূর্ব মেদিনীপুরে কয়েকজনের সঙ্গে কথা বলার জন্য। উনি দুয়ারে দুয়ারে স্বাস্থ্য সাথী কার্ড এবং রাজ্য সরকারের বিভিন্ন প্রকল্পগুলি জনপ্রতিনিধির মাধ্যমে পৌঁছে দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন। আগামী ৭ ডিসেম্বর মুখ্যমন্ত্রীর মেদিনীপুরের সভাতে পূর্ব মেদিনীপুরের বিধায়কদের মঞ্চে থাকার কথা বলেছেন। সেই নির্দেশ মত দলের সমস্ত বিধায়কদের মুখ্যমন্ত্রীর সভায় যাওয়ার জন্য আহ্বান জানাব।’’

বিধায়ক শুভেন্দু কে কি ওই সভায় উপস্থিত হওয়ার কথা বলা হয়েছে?

অখিলের জবাব, ‘‘ব্যক্তিগতভাবে আমার ওঁর সঙ্গে তেমন একটা কথা হয় না। কিন্তু নিশ্চয় কারও মারফত মুখ্যমন্ত্রীর সভায় উপস্থিত হওয়ার কথা ওঁকে জানানো হবে।’’

Advertisement