×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

১৯ জুন ২০২১ ই-পেপার

উলেন মৃত্যুতে ‘গান’-রহস্য

নিজস্ব সংবাদদাতা
শিলিগুড়ি ১০ ডিসেম্বর ২০২০ ০৫:৫২
মৃত বিজেপি কর্মী উলেন রায়। 

মৃত বিজেপি কর্মী উলেন রায়। 

শটগান, নাকি পাম্প অ্যাকশন গান— এই প্রশ্ন ঘিরে বুধবারও জারি থাকল চাপানউতোর। একই ভাবে বহালই রইল উলেন রায়ের মৃত্যু রহস্যও।

মঙ্গলবার বেশি রাতে বিজেপির তরফে একটি ভিডিয়ো ভাইরাল করা হয়। সেই ভিডিয়োয় দেখা যায়, পুলিশের পোশাক পরা এক ব্যক্তি একটি বন্দুকে গুলি ভরে তাক করেছেন। এটি দেখিয়ে দলের কেন্দ্রীয় সম্পাদক কৈলাস বিজয়বর্গীয়, আইটি সেলের প্রধান অমিত মালবীয় দাবি করেন, ওই শটগান থেকে গুলি চালিয়েছে পুলিশ। পুলিশকে সুপ্রিম কোর্ট অবধি নিয়ে যাওয়ার দাবিও করেন কৈলাস। ভিডিয়োটির সত্যতা যাচাই করেনি আনন্দবাজার। গুলি চালানো হয়েছিল কিনা, তা-ও স্পষ্ট নয়। বুধবার রাজ্য সরকারের তরফে পর্যটনমন্ত্রী পাল্টা দাবি করেন, একেবারেই মিথ্যা প্রচার। ছররা গুলির শটগান নয়, ভিডিয়োতে রবার বুলেট চালানোর পাম্প অ্যাকশন গানটি দেখা গিয়েছে। তিনি বলেন, রবার বুলেট ব্যবহারের কথা পুলিশ আগেই বলেছে। এতে কোনও নতুনত্ব নেই।

পুলিশ জানিয়েছে, পুলিশকর্মীদের সঙ্গে ছররা গুলির শটগান বা পেলেট গান থাকার কোনও প্রশ্নই নেই। পুলিশের হাতে যা যা ছিল, তা বারবার মাইকে ঘোষণা হয়েছে। তা হলে ছররা বন্দুক এল কোথা থেকে? কে বা কারা সেটা চালাল? বিজেপির দাবি, এই চক্রান্তের পিছনে তৃণমূলের ব্লক সভাপতি দেবাশিস প্রামাণিকের হাত রয়েছে। দেবাশিসবাবু অভিযোগ উড়িয়ে দিয়ে পাল্টা অভিযোগ করেন, অভিযানের আগের রাতেই বিহারের কিসানগঞ্জ, ঠাকুরগঞ্জ থেকে প্রচুর লোক এনে ফুলবাড়িতে রেখেছিল বিজেপি। তাঁর দাবি, ‘‘বিহার, উত্তরপ্রদেশ খেত পাহারার কাজে বেআইনি পেলেট গান বা শটগান ব্যবহার করা হয়। এখানেও বিজেপি সেই বন্দুক ব্যবহার করেছে।’’ জলপাইগুড়ির বিজেপি সাংসদ জয়ন্ত রায় আবার বলেন, ‘‘পুলিশ যদি বলে, ফুটেজে দেখানো বন্দুক ব্যবহার হয়নি, তা হলে পেলেটের আঘাত কোথা থেকে এল, জবাব তাদের দিতে হবে।’’

Advertisement

আরও পড়ুন: উলেনের মৃত্যুতে বিতর্ক অব্যাহত, জবাব দেরিতে, করা হল না ময়না-তদন্ত

আরও পড়ুন: বহিরাগতদের দেখলেই পুলিশে জানান: মমতা

পুলিশ অফিসারেরা আরও জানাচ্ছেন, প্রথম ময়না-তদন্তে বলা হয়েছে ১২ ফুট দূর থেকে উলেনের শরীরে গুলি লাগে। কিন্তু ভিডিয়োয় দেখা যাচ্ছে, দূরত্ব ১২ ফুটেরও বেশি।

Advertisement