Advertisement
০৪ অক্টোবর ২০২২
son in law

Attack: অপছন্দের জামাইকে চোর বলে ধাওয়া করে গণপিটুনি খাওয়াল শ্বশুরবাড়ি

জলঙ্গির এক তরুণ ‘বিয়ে’ করেন এক তরুণীকে। কিন্তু মানতে নারাজ মেয়ের বাড়ি। এ জন্য থানায় সালিশি বসানো হয়। সেখানে মারধরের অভিযোগ।

‘জামাই’কে চোর বলে তাড়া করে মার।

‘জামাই’কে চোর বলে তাড়া করে মার। প্রতীকী চিত্র।

নিজস্ব সংবাদদাতা
জলঙ্গি শেষ আপডেট: ০৩ জুলাই ২০২২ ১৫:১৬
Share: Save:

তরুণ-তরুণীর ‘বিয়ে’ মেনে নেয়নি পরিবার। দুই পরিবারকে ডেকে থানায় সালিশি বসানো হয়। কিন্তু তাতেও কোনও রফাসূত্র বার হয়নি। এর মাঝেই ‘আক্রান্ত’ হওয়ার আশঙ্কায় পালাচ্ছিলেন সদ্যবিবাহিত ওই দম্পতি। সে সময় ‘ছাগল চোর’ বলে তাড়া করে তাঁদের মারধর করার অভিযোগ উঠল শ্বশুরবাড়ির লোকজনের বিরুদ্ধে। এই ঘটনা মুর্শিদাবাদের জলঙ্গির সাগরপাড়ার।

জলঙ্গির সাগরপাড়ার এক তরুণের দাবি, সম্প্রতি তিনি বিয়ে করেছেন এক তরুণীকে। কিন্তু সেই ‘বিয়ে’ মানতে নারাজ তাঁর শ্বশুরবাড়ির লোকজন। বিষয়টি মিটমাট করার জন্য শনিবার সন্ধ্যায় দুই পরিবারকে জলঙ্গি থানায় ডাকা হয়। শুরু হয় আলোচনা। কিন্তু সালিশিসভায় পরিস্থিতি উত্তপ্ত হয়ে ওঠে। পরিস্থিতি ‘বিপজ্জনক’ হতে পারে তা আঁচ করেই সদ্য বিবাহিত স্ত্রীকে নিয়ে গাড়িতে চড়ে পালানোর চেষ্টা করেন ওই যুবক। তাঁর অভিযোগ, সেই সময় শ্বশুরবাড়ির লোকজন তাঁকে ‘ছাগল চোর’ বলে লোকজন জুটিয়ে তাড়া করেন। তাঁদের গাড়ি থামিয়ে ধরে ফেলে। এর পর গণধোলাই দেওয়া হয় বলে অভিযোগ। পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

যুবকের দাবি, ‘‘আমার বিয়ে হয়েছে ওই তরুণীর সঙ্গে। আমরা দু’জনেই প্রাপ্তবয়স্ক। কিন্তু বিয়ে মানতে চাইছেন না মেয়ের বাবা এবং মেয়ের পরিবার।’’

অন্য দিকে, মেয়ের পরিবারের এক সদস্যের পাল্টা দাবি, ‘‘বিয়ের ব্যাপারে কোনও কথা হয়নি। ওই ছেলেটি মেয়েকে অপহরণ করে পালাচ্ছিল। এলাকার লোকজন দেখতে পেয়ে বাধা দিয়েছেন।’’

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.