×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

১৪ জুন ২০২১ ই-পেপার

নিমতিতা বিস্ফোরণের তদন্তের মধ্যেই সুতিতে মিলল বস্তাভর্তি গুঁড়ো, বারুদ বলে সন্দেহ

নিজস্ব সংবাদদাতা
বহরমপুর ২০ ফেব্রুয়ারি ২০২১ ১২:১৮
এখানেই মেলে ওই বস্তাটি।

এখানেই মেলে ওই বস্তাটি।
নিজস্ব চিত্র।

মুর্শিদাবাদের নিমতিতা স্টেশনে বোমা বিস্ফোরণ নিয়ে তদন্ত চলছে। তার মধ্যেই এ বার সুতির ঔরঙ্গাবাদ বাজারে মিলল বস্তাভর্তি রহস্যজনক গুঁড়ো। যা বারুদ বলে সন্দেহ করছেন স্থানীয় বাসিন্দারা। যদিও ওই পদার্থ বারুদ কি না, তা নিশ্চিত করেনি পুলিশ। তবে শনিবার সকালে এই ঘটনাকে ঘিরে চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে এলাকায়।

শনিবার সকালে ঔরঙ্গাবাদ বাজারে একটি চায়ের দোকানের পাশে মেলে ওই গুঁড়ো। যা একটি বস্তায় রাখা ছিল। স্থানীয় ব্যবসায়ীরা জানিয়েছেন, এলাকার শিশুরা বস্তা থেকে ছাইয়ের মতো দেখতে ওই গুঁড়ো বার করে খেলছিল। ওই গুঁড়ো থেকে বারুদের গন্ধ বেরোচ্ছিল বলেও অনেকের দাবি। যেখানে ওই বস্তাটি পাওয়া গিয়েছে, তার পাশেই রয়েছে ইলেকট্রিক অফিস। শনিবারের ঘটনায় এলাকা জুড়ে চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে।

সন্দেহ হওয়ায় সুতি থানায় খবর দেয় স্থানীয় বাসিন্দা এবং ব্যবসায়ীরা। পুলিশ এসে ওই বস্তাটি উদ্ধার করে নিয়ে যায়। উদ্ধার হওয়া ওই রহস্যজনক গুঁড়ো বারুদ কি না, তা পরীক্ষা করে দেখা হবে বলে পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে। বুধবার রাতে ঔরঙ্গাবাদ বাজার থেকে ৪ কিলোমিটার দূরে নিমতিতা স্টেশনের ২ নম্বর প্ল্যাটফর্মে বোমা বিস্ফোরণে জখম হন রাজ্যের শ্রম দফতরের প্রতিমন্ত্রী জাকির হোসেন। ওই ঘটনার তদন্ত চালাচ্ছে সিআইডি, এসটিএফ এবং সিআইএফ। গঠন করা হয়েছে বিশেষ তদন্তকারী দলও। বিষয়টির উপর নজর রয়েছে জাতীয় তদন্তকারী সংস্থা (এনআইএ)-র। তার মধ্যেই শনিবারের ঘটনা নতুন মাত্রা যোগ করল।

Advertisement

শুক্রবার রাতে পূর্ব মেদিনীপুরের খেজুরির হলুদবাড়ি এলাকার মুণ্ডমারাই গ্রামেও বেশ কিছু বোমা উদ্ধার হয়েছে। মাঠের পাশে ঝোপের মধ্যে মেলে দু’টি বড় পাত্র পাওয়া যায়। তার মধ্যে প্রায় ১৫টি বোমা মিলেছে বলে পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে। সেগুলি নিষ্ক্রিয় করা হয়েছে। ওই ঘটনাকে ঘিরে শুরু হয়েছে রাজনৈতিক চাপানউতর।

Advertisement