Advertisement
১০ ডিসেম্বর ২০২২
Mahishadal

শরীরচর্চা করতে গিয়ে মাটিতে লুটিয়ে পড়ল একাদশ শ্রেণির পড়ুয়া! মহিষাদলে মৃত্যু ছাত্রের

মহিষাদলের একটি কেন্দ্রীয় সরকারি স্কুলে শরীরচর্চা করার সময় আচমকা অসুস্থ হয়ে পড়ে একাদশ শ্রেণির ছাত্র রাহুল গিরি। অস্বাভাবিক ভাবে মৃত্যু হয় তার।

স্কুলের বিরুদ্ধে গাফিলতির অভিযোগ তুলেছেন মৃত পড়ুয়ার বাবা।

স্কুলের বিরুদ্ধে গাফিলতির অভিযোগ তুলেছেন মৃত পড়ুয়ার বাবা। প্রতীকী চিত্র।

নিজস্ব সংবাদদাতা
মহিষাদল শেষ আপডেট: ০২ সেপ্টেম্বর ২০২২ ১৪:০০
Share: Save:

সাতসকালে স্কুলের মাঠে শরীরচর্চা করার সময় আচমকাই অসুস্থ হয়ে মৃত্যু হল একাদশ শ্রেণির এক আবাসিক ছাত্রের। পূর্ব মেদিনীপুরের মহিষাদলের কাপাসবেড়িয়ার কেন্দ্রীয় সরকারি স্কুলের ঘটনা। মৃত ছাত্রের নাম রাহুল গিরি। তার বাড়ি নন্দকুমার থানার সাওড়াবেড়িয়া জালপাই গ্রামে। কী ভাবে ওই ছাত্রের মৃত্যু হল তা এখনও পরিষ্কার নয়। মৃতদেহটি ময়নাতদন্তে পাঠানো হয়েছে। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

Advertisement

স্কুল সূত্রে খবর, শুক্রবার সকালে সহপাঠীদের সঙ্গে স্কুলের মাঠে শরীরচর্চা করতে আসে রাহুল। হঠাৎই অসুস্থ বোধ করতে থাকে সে। তড়িঘড়ি তাকে মহিষাদলের বাসুলিয়া গ্রামীণ হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসকরা মৃত বলে ঘোষণা করেন। কিন্তু ঠিক কী কারণে এমন তরতাজা তরুণের এ ভাবে মৃত্যু হল, তার স্পষ্ট কোনও কারণ জানা যায়নি। স্কুলের শিক্ষক সৌমেন মুখোপাধ্যায় বলেন, “শুক্রবার সকালে স্কুলের মাঠে শরীরচর্চার জন্য অন্যান্যদের সঙ্গে রাহুলও ছিল। পরে ওকে অসুস্থ বোধ করতে দেখে প্রাথমিক চিকিৎসা করা হয়। কিন্তু ওর শারীরিক পরিস্থিতি ক্রমশ খারাপ হয়। তড়িঘড়ি হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসকরা মৃত বলে জানান।’’

অন্য দিকে, পড়ুয়ার মৃত্যুতে স্কুলের বিরুদ্ধেই গাফিলতির অভিযোগ তুলেছে তার পরিবার। মৃত ছাত্রের বাবা অমলকুমার গিরি বলেন, ‘‘সকাল ৬টা নাগাদ স্কুল থেকে ফোন আসে যে, আমার ছেলের শরীর খারাপ হওয়ায় ওকে মহিষাদল গ্রামীণ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। হাসপাতালে এসে দেখি বেডে পড়ে রয়েছে মৃতদেহ! তবে হাসপাতালে শুনলাম, স্কুলেই মৃত্যু হয়েছে রাহুলের। এখন বিষয়টি আড়াল করার জন্যই তড়িঘড়ি তাকে হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়েছে। স্কুলের চরম অব্যবস্থার জন্যই এমনটা হয়েছে।” মহিষাদল থানা সূত্রে খবর, ওই ছাত্রের মৃত্যুর ঘটনায় পুলিশে কোনও লিখিত অভিযোগ দায়ের হয়নি। হলদিয়া মহকুমা হাসপাতালে মৃতদেহের ময়নাতদন্ত হয়েছে। মৃত্যুর প্রকৃত কারণ জানার পর পরবর্তী পদক্ষেপ করবে তারা।

Advertisement
(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.