Advertisement
১৮ মে ২০২৪
online games

অনলাইন গেমের নেশায় মত্ত যুবক, ছাদ থেকে ঝাঁপ! আশঙ্কাজনক অবস্থায় ভর্তি মুর্শিদাবাদের হাসপাতালে

বন্ধুদের দাবি, বাড়ির সামনে গাড়ি এসে দাঁড়ালে বাড়ির মালিক এসেছেন মনে করে নয়ন এবং তাঁর সঙ্গীরা হুড়োহুড়ি শুরু করে দেন। সেই সময় ছাদ থেকে লাফ দিয়ে নামতে গিয়ে বেকায়দায় পড়ে যান নয়ন।

— Representative Image

— প্রতীকী চিত্র।

আনন্দবাজার অনলাইন সংবাদদাতা
ডোমকল শেষ আপডেট: ২১ এপ্রিল ২০২৪ ১৪:৩৩
Share: Save:

রোজই বন্ধুরা মিলে মোবাইলে ‘গেম’ খেলেন। আর সেই ‘গেম’ খেলতে গিয়েই ঘটে গেল অঘটন। নির্মীয়মাণ বাড়ির ছাদে বসে বন্ধুদের সঙ্গে মোবাইলে ‘গেম’ খেলছিলেন ২২ বছরের নয়ন শেখ। আচমকাই নির্মীয়মাণ বাড়ির সামনে একটি গাড়ি এসে দাঁড়ায়। তাতে নয়নরা ভয় পেয়ে এ দিক ও দিক ছোটাছুটি শুরু করেন। ছাদ থেকে লাফ দিয়ে নামতে গিয়ে বেকায়দায় পড়ে যান নয়ন। বর্তমানে আশঙ্কাজনক অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি। ঘটনাটি ঘটেছে মুর্শিদাবাদের ডোমকলে।

স্থানীয় সূত্রে খবর, আর পাঁচটা দিনের মতো বন্ধুদের সঙ্গে রাস্তার পাশে একটি নির্মীয়মাণ বাড়ির ছাদে উঠেছিলেন নয়ন। সেখানে বসে মোবাইলে ‘ফায়ার গেম’ খেলছিলেন তাঁরা। নয়নের বন্ধুদের দাবি, সেই সময় হঠাৎ তাঁরা খেয়াল করেন যে, বাড়ির সামনে একটি গাড়ি এসে দাঁড়িয়েছে। বাড়ির মালিক এসেছেন মনে করে তাড়াহুড়ো করে নয়ন ও তার সঙ্গীরা পালানোর জন্য হুড়োহুড়ি শুরু করে দেন। সেই সময় ছাদ থেকে লাফ দিয়ে নামতে গিয়ে অসাবধানতাবশত বেকায়দায় পড়ে যান নয়ন। গুরুতর চোট পান। সঙ্গে সঙ্গে স্থানীয় বাসিন্দারা ওই যুবককে উদ্ধার করে নিয়ে যান হাসপাতালে। নয়নকে প্রথমে নিয়ে যাওয়া হয় ডোমকল মহকুমা হাসপাতালে। কিন্তু অবস্থার অবনতি হতে থাকায় তাঁকে সেখান থেকে বহরমপুর মেডিক্যাল কলেজে স্থানান্তরিত করানো হয়। আপাতত সেখানেই চিকিৎসাধীন যুবক।

আহত যুবকের আত্মীয় করিমুল শেখ বলেন, ‘‘ওরা সবাই মিলে সন্ধ্যার পর মোবাইলে গেম খেলত। বাড়ির সামনে গাড়ি এসে দাঁড়াতেই ওরা ভয় পেয়ে নীচে ঝাঁপ দিতে শুরু করে। অসাবধানতাবশত পড়েই গিয়ে গুরুতর চোট পেয়েছে ভাইপো নয়ন।’’

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)

অন্য বিষয়গুলি:

Injury police
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE