Advertisement
২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৪
Extortion

Extortion: কেএলও-এর নামে ৫ লক্ষ টাকা দাবি করে চিঠি ধূপগুড়ির ব্যবসায়ীকে

ধূপগুড়ির ১২ নম্বর ওয়ার্ডের নতুনপাড়ার বাসিন্দা তথা কাপড় ব্যবসায়ীর রঞ্জিত বিশ্বাসের কাছে ৫ লক্ষের দাবি করা হয়েছে।

প্রতীকী ছবি।

প্রতীকী ছবি।

নিজস্ব সংবাদদাতা
ধূপগুড়ি শেষ আপডেট: ২৬ জুলাই ২০২২ ২২:৪৩
Share: Save:

কেএলও জঙ্গির নাম করে ধূপগুড়ির এক ব্যবসায়ীর কাছে থেকে ৫ লক্ষ টাকা চাওয়া হল। সাদা খামে ভরা একটি চিঠিতে এই দাবি করা হয়েছে। পাঁচ লক্ষ টাকা অনাদায়ে ব্যবসায়ীর ছেলেমেয়ের ক্ষতি করার হুমকিও দেওয়া হয়েছে বলে দাবি ওই ব্যবসায়ীর। ওই চিঠি ঘিরে আতঙ্ক ছড়িয়েছে ধূপগুড়িতে। ঘটনার তদন্তে নেমেছে ধূপগুড়ি থানার পুলিশ।

ধূপগুড়ির ১২ নম্বর ওয়ার্ডের নতুনপাড়ার বাসিন্দা তথা কাপড় ব্যবসায়ীর রঞ্জিত বিশ্বাসের কাছে ৫ লক্ষের দাবি করা হয়েছে। রঞ্জিতের অভিযোগ, সোমবার বাড়ির সামনে কে বা কারা হুমকিভরা ওই চিঠিটি ঝুলিয়ে দিয়ে গিয়েছে। এর পরই পুলিশের দ্বারস্থ হয়েছেন তিনি।

সূত্রের খবর, সাদা খামে ভরা অসংখ্য ভুলে ভরা ওই চিঠিটি একটি সাদা সুতো দিয়ে বাঁধা অবস্থায় রঞ্জিতের বাড়ির সামনে রাখা ছিল। চিঠিতে কেএলও-র নাম করে নীল কালির একটি অস্পষ্ট সিলও রয়েছে। চিঠিটি পাওয়ার পর পুলিশে অভিযোগ করায় সোমবার রাত থেকে তাঁর বাড়ির সামনে পুলিশ পাহারা বসানো হয়। পাশাপাশি, এলাকায় চলছে পুলিশি টহলদারি। এমনকি, ওয়ার্ড কাউন্সিলর মুনমুন বসু মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৬টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত ওই ব্যবসায়ীর বাড়িতে থাকেন। পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে কথা বলে তাঁদের অভয়ও দেন। যদিও এ বিষয়ে মুনমুনকে ফোন করা হলে তিনি কোনও মন্তব্য করতে চাননি।

এর আগে ভিডিয়োবার্তায় হুমকি দিতে দেখা গিয়েছে কেএলও (কামতাপুর লিবারেশন অর্গানাইজেশন)-কে। তবে ওই জঙ্গি সংগঠনটি চিঠি দিয়ে এমন কাণ্ড ঘটিয়েছে বলে শোনা যায়নি। আদতে এটি কেএলও-র কাজ কি না, তা খতিয়ে দেখছে পুলিশ। ধূপগুড়ি পুলিশ সূত্রে খবর, চিঠিটি থানায় জমা রয়েছে। পাশাপাশি, তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE