Advertisement
২২ ফেব্রুয়ারি ২০২৪
Siliguri

Bomb: শিলিগুড়ি স্টেশনে পরিত্যক্ত স্যুটকেস ঘিরে বোমাতঙ্ক, তদন্তে সিআইডি

পুলিশ সূত্রে খবর, রবিবার সকাল সাড়ে ১১টা নাগাদ শিলিগুড়ির জংশন স্টেশনে একটি লাল রঙের পরিত্যক্ত স্যুটকেস ঘিরে বোমাতঙ্ক ছড়ায়।

প্রায় আট ঘণ্টার চেষ্টায় পরিত্যক্ত স্যুটকেসটি খোলা হয়।

প্রায় আট ঘণ্টার চেষ্টায় পরিত্যক্ত স্যুটকেসটি খোলা হয়। —নিজস্ব চিত্র।

নিজস্ব সংবাদদাতা
শিলিগুড়ি শেষ আপডেট: ২৪ জানুয়ারি ২০২২ ০৪:৫৭
Share: Save:

প্রজাতন্ত্র দিবসের প্রাক্কালে শিলিগুড়ি জংশন স্টেশনে একটি পরিত্যক্ত স্যুটকেস ঘিরে বোমাতঙ্ক ছড়াল। রবিবার ঘটনাস্থলে গিয়ে তদন্তে নামেন সিআইডি-র বম্ব স্কোয়াডের কর্মকর্তারা। প্রায় আট ঘণ্টার চেষ্টায় ওই স্যুটকেসটি খোলা হয়।

পুলিশ সূত্রে খবর, রবিবার সকাল সাড়ে ১১টা নাগাদ শিলিগুড়ির জংশন স্টেশনে একটি লাল রঙের পরিত্যক্ত স্যুটকেস ঘিরে বোমাতঙ্ক ছড়ায়। সকালে আলিপুরদুয়ার জংশন প্যাসেঞ্জার ট্রেন এসে পৌঁছলে ডি-৩ কোচে লাল রঙের একটি সুটকেস পড়ে থাকতে দেখা যায়। সেটি ঘিরে ছড়ায় বোমাতঙ্ক। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছয় রেলপুলিশ-সহ প্রধাননগর থানার পুলিশ, দমকল এবং সিআইডি-র বম্ব স্কোয়াড। প্রথমেই ১ নম্বর প্লাটফর্মটিকে যাত্রীদের জন্য সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ করে দেওয়া হয়। প্যাসেঞ্জার ট্রেনের অন্য কামরাগুলিকে ডি-৩ বগি থেকে সরিয়ে নেন সংশ্লিষ্ট আধিকারিকেরা।

রবিবার সন্ধ্যার পর ডি-৩ বগিটিকে নিয়ে যাওয়া হয় গুলমা স্টেশনের কাছে। এর পর জঙ্গল লাগোয়া পরিত্যক্ত জায়গায় কামরা থেকে স্যুটকেসটিকে নামিয়ে ফেলা হয়। বিধিনিষেধ মেনে স্যুটকেসটিতে বিস্ফোরণ ঘটায় সিআইডি-র বম্ব স্কোয়াড।

সিআইডি সূত্রে খবর, ওই স্যুটকেসটি থেকে কাপড় ছাড়া সন্দেহভাজন কোনও বিস্ফোটকের সন্ধান মেলেনি। তবে বিস্ফোরণকে কেন্দ্র করে ব্যাগে থাকা সামগ্রী নিয়ে সন্দেহ রয়েছে বম্ব স্কোয়াডের কর্মকর্তাদের। বিস্ফোরণের ধরণ সন্দেহজনক বলেই মনে করছেন তাঁরা। সেখান থেকে নমুনা সংগ্রহ করে নিয়ে গিয়েছে বম্ব স্কোয়াড। স্যুটকেসে আদৌ কী ছিল, তা খতিয়ে দেখা হবে বলে জানিয়েছে সিআইডি।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE