Advertisement
০৩ ডিসেম্বর ২০২২
toy train

বন্ধ শিলিগুড়ি থেকে দার্জিলিং টয় ট্রেন পরিষেবা, প্রবল বৃষ্টিতে ধস নামল রেললাইনে

শুক্রবার রাতে বৃষ্টি শুরু হয়েছে পাহাড়ে। তার জেরে টয় ট্রেনের লাইনে ধস নামে। রংটং এবং তিনধারিয়া স্টেশনের মাঝে রেলপথ ধসে বিপর্যস্ত। ফলে শিলিগুড়ি থেকে দার্জিলিং পর্যন্ত টয় ট্রেন যাত্রা বন্ধ।

আপাতত বন্ধ টয় ট্রেনের যাত্রা।

আপাতত বন্ধ টয় ট্রেনের যাত্রা। — ফাইল চিত্র।

নিজস্ব সংবাদদাতা
শিলিগুড়ি শেষ আপডেট: ০৩ সেপ্টেম্বর ২০২২ ১৪:৫৩
Share: Save:

প্রবল বৃষ্টিতে ধস নামল টয় ট্রেনের লাইনে। তার জেরে শনিবার থেকে অনির্দিষ্ট কালের জন্য বন্ধ হয়ে গেলে শিলিগুড়ি থেকে দার্জিলিং পর্যন্ত টয় ট্রেন পরিষেবা। এ কথা জানা গিয়েছে দার্জিলিং হিমালয়ান রেলওয়ে সূত্রে। লাইন মেরামত করে দ্রুত পরিষেবা চালু করা হবে বলে জানিয়েছেন রেলকর্তারা। টয় ট্রেন পরিষেবা বন্ধ হয়ে যাওয়ায় হতাশ পর্যটকরা।

Advertisement

শুক্রবার রাতে প্রবল বৃষ্টি শুরু হয় পাহাড়ে। তার জেরে টয় ট্রেনের লাইনে ধস নামে। রংটং এবং তিনধারিয়া স্টেশনের মাঝে রেলপথ ধসে বিপর্যস্ত হয়ে যায়। যার ফলে শনিবার শিলিগুড়ি থেকে দার্জিলিং পর্যন্ত টয় ট্রেন যাত্রা বন্ধ হয়ে যায়। এ নিয়ে দার্জিলিং হিমালয়ান রেলওয়ের সংযোগ আধিকারিক সব্যসাচী দে বলেন, ‘‘কবে আবার শিলিগুড়ি থেকে দার্জিলিংয়ের উদ্দেশে টয় ট্রেন রওনা দেবে, তা আপাতত বলা সম্ভব নয়। তবে দার্জিলিং থেকে কার্শিয়াং পর্যন্ত ছোট ছোট যে জয়রাইডগুলি রয়েছে তা চালু থাকছে। আমরা যত তাড়াতাড়ি সম্ভব পরিষেবা চালু করার চেষ্টা করছি।’’

শুক্রবার রাত ১০টা থেকে পাহাড়-সহ সমতলে প্রবল বৃষ্টি শুরু হয়েছিল। তার জেরে বিভিন্ন জায়গায় ধস নেমেছে। যেমন, ১০ নম্বর জাতীয় সড়ক এবং সিকিমগামী রাস্তায় ছোটখাটো ধস দেখা গিয়েছে। কিন্তু সবচেয়ে বড় ধস নেমেছে রংটং এবং তিনধারিয়া স্টেশনের মাঝে। কয়েক বছর আগেও ওই একই জায়গায় ধস নেমেছিল। তার জেরে কয়েক মাস বন্ধ ছিল টয় ট্রেন পরিষেবা। যদিও পরে ধসের ক্ষত সারিয়ে চাকা গড়ায় টয় ট্রেনের। কিন্তু এ বারও ওই একই জায়গায় বিপত্তি ঘটল। টয় ট্রেনের লাইনে ধস নতুন নয়। কিন্তু এ বার মেরামতির কাজে অনেক সময় লাগবে বলেই রেলকর্তাদের ধারণা। দার্জিলিং হিমালয়ান রেলওয়ে সূত্রে জানা গিয়েছে, ওই ধস তড়িঘড়ি সরানোর কাজ চলছে। শনিবার সকাল থেকে অবশ্য বৃষ্টি হয়নি পাহাড়ে। কিন্তু আকাশ মেঘলা। আরও বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। ফলে মেরামতির কাজ কতটা দ্রুত করা যাবে, তা নিয়ে ধোঁয়াশা রয়েছে।

Advertisement
(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.