×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

০৫ অগস্ট ২০২১ ই-পেপার

রাজগঞ্জে বিজেপি সাংসদ ও কর্মীদের মারধরের অভিযোগ তৃণমূলের বিরুদ্ধে, টুইট শুভেন্দুর

নিজস্ব সংবাদদাতা
রাজগঞ্জ ১১ জুন ২০২১ ২৩:১১


নিজস্ব চিত্র

ঘরছাড়াদের ফেরাতে গিয়ে তৃণমূলের দুষ্কৃতীদের হাতে আক্রান্ত হওয়ার অভিযোগ তুললেন জলপাইগুড়ির বিজেপি সাংসদ চিকিৎসক জয়ন্তকুমার রায়। তাঁকে ও বিজেপি কর্মীদের বাঁশ দিয়ে বেধড়ক মারধর করা হয়েছে বলে অভিযোগ করেন জয়ন্ত। ঘরছাড়াদের ফেরাতে গিয়ে তাঁর এই অবস্থা হয়েছে, জানিয়েছেন তিনি। ঘটনা নিয়ে টুইটারে একটি পোস্ট করেছেন বিধানসভার বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী। তিনি লিখেছেন, ‘রাজগঞ্জে ঘরছাড়া বিজেপি কর্মীদের ঘরে ফেরাতে গিয়ে আক্রান্ত জলপাইগুড়ির সাংসদ জয়ন্ত রায় ও ৪ বিজেপি কর্মী আহত। সকলকে চিকিৎসার জন্য উত্তরবঙ্গ মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে’। যদিও অভিযোগ সম্পূর্ণ অস্বীকার করেছেন এলাকার তৃণমূল বিধায়ক খগেশ্বর রায়। তিনি বলেছেন, ‘‘এটি একটি সাজানো ঘটনা।’’

অভিযোগ, জলপাইগুড়ি জেলার রাজগঞ্জ ব্লকের ভান্ডারীগছ এলাকার ১৩ জন বিজেপি কর্মী ১ মাসের ওপর ঘরছাড়া হয়ে একটি মন্দিরে ছিলেন। সাংবাদিকদের জয়ন্ত জানিয়েছে, পুলিশের সঙ্গে কথা বলার পর শুক্রবার বিকেল ৪ টা নাগাদ তাদের বাড়ি ফেরাতে যান তিনি। সেই সময়েই তার উপর তৃণমূলের দুষ্কৃতীরা চড়াও হন বলে অভিযোগ করেছেন তিনি। বলেছেন, ‘‘একজনকে তাঁর বাড়িতে ঢোকানোর পর আমি বাইরে বেরিয়ে দেখি, আমার দলের এক কর্মীকে তৃণমূল কর্মীরা বেধ়ড়ক মারধর করছে। সেই দেখে আমি এগিয়ে গিয়ে বাঁচাতে যাই। তখন আমাকেও মারধর করা হয়। পুরো ঘটনায় পুলিশ নীরব ছিল।’’

ঘটনার পর আহত বিজেপি কর্মীদের নিয়ে যাওয়া হয়েছে উত্তরবঙ্গ মেডিক্যাল কলেজে। সেখানে চিকিৎসকরা জানান, তাঁদের মধ্যে দু’জনের আঘাত গুরুতর। প্রাথমিক চিকিৎসা করা হয় সাংসদেরও।

Advertisement


Tags:

Advertisement