Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

০৩ ডিসেম্বর ২০২১ ই-পেপার

কাজ চেয়ে হাসপাতালে বিক্ষোভ

নিজস্ব সংবাদদাতা
পুরুলিয়া ১৮ অক্টোবর ২০১৬ ০২:১৫
পুরুলিয়া সুপার স্পেশ্যালিটি হাসপাতালের সামনে স্থানীয় বাসিন্দারা।—নিজস্ব চিত্র।

পুরুলিয়া সুপার স্পেশ্যালিটি হাসপাতালের সামনে স্থানীয় বাসিন্দারা।—নিজস্ব চিত্র।

পুরুলিয়া সুপার স্পেশ্যালিটি হাসপাতালে নিয়োগের দাবিতে ফের পথে নামলেন স্থানীয় বাসিন্দারা।

পুরুলিয়া শহরের উপকন্ঠে পুরুলিয়া মফস্সল থানার হাতোয়াড়া গ্রামের কাছে গড়ে উঠেছে এই হাসপাতাল। যদিও এই হাসপাতালে এখনও পরিষেবা শুরু হয়নি। কিন্তু এই হাসপাতালে নিয়োগে তাঁদের অগ্রাধিকার দিতে হবে, এই দাবিতে চলতি মাসের প্রথম থেকেই ‘হাতোয়াড়া গ্রামোন্নয়ন কমিটি’ গড়ে আন্দোলনে নেমেছেন স্থানীয় বাসিন্দারা। গত ১ অক্টোবর হাসপাতালের সামনে এই দাবিতে বিক্ষোভ দেখান কমিটির সদস্যেরা। পুজো মিটতেই ফের একই দাবি নিয়ে সোমবার পথে নামলেন তাঁরা।

এ দিন সকালে কমিটির ব্যানারে শতাধিক লোকজন হাসপাতালের সামনে বিক্ষোভ দেখাতে বসে পড়েন। মাইকে ঘনঘন স্লোগান ওঠে— ‘হাসপাতালে স্থানীয়দের কাজে নিয়োগ করতে হবে’। খবর পেয়ে পুলিশ আসে। কমিটির মুখপাত্র সন্তোষ বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ‘‘এই হাসপাতালে নিয়োগের ক্ষেত্রে গ্রামের লোকজনকে অগ্রাধিকার দিতে হবে। আমরা এই দাবি নিয়েই আন্দোলনে নেমেছি। এ থেকে সরবো না।’’ তাঁর দাবি, নিরাপত্তারক্ষী-সহ চতুর্থ শ্রেণির কর্মীর পদে স্থানীয় লোকজনদের নিয়োগে অগ্রাধিকার দিতে হবে।

Advertisement

বেশ কিছুক্ষণ বিক্ষোভ চলার পরে হাসপাতালের নিরাপত্তারক্ষীদের সঙ্গে আলোচনার পরে বিক্ষোভ তুলে নেন আন্দোলনকারীরা। জেলা মুখ্যস্বাস্থ্য আধিকারিক অনিল দত্ত বলেন, ‘‘এ দিন কিছু মানুষ ওই হাসপাতালের সামনে বিক্ষোভ দেখিয়েছেন বলে শুনেছি। কিন্তু ওখানে নিয়োগের বিষয়টি জেলা স্বাস্থ্য দফতর দেখছে না। পুরোটাই দেখভাল করছে রাজ্য মেডিক্যাল সার্ভিস কর্পোরেশন।’’ পুরুলিয়া জেলা পরিষদের সভাধিপতি সৃষ্টিধর মাহাতোও বলেন, ‘‘যোগ্যতার ভিত্তিতেই নিয়োগ করা হবে। কেউ যদি দাবি করেন যে তাঁকেই নিতে হবে, তা অযৌক্তিক।’’ তিনি জানান, ওই হাসপাতালে বেসরকারি সংস্থা কিছু ক্ষেত্রে পরিষেবা দেওয়ার দায়িত্বে থাকছে। ওই সব সংস্থা কাদের নিয়োগ করবে তা তারাই ঠিক করবে।

হাসপাতালের দায়িত্ব পাওয়া বেসরকারি নিরাপত্তারক্ষী সংস্থার প্রতিনিধি সঞ্জিত সাউ জানান, আন্দোলনকারীদের দাবি ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের কাছে পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে।

আরও পড়ুন

Advertisement