Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

১৫ অগস্ট ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

ছুটির দিনে ছোটাছুটি জঙ্গলমহলে

মিছিলে মোটরবাইক নিয়ে দলীয় কর্মীদের উপস্থিতি ছিল ব্যপক। সুব্রতবাবুর সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন রাইপুরের বিধায়ক ধীরেন্দ্রনাথ টুডু, সারেঙ্গা ব্লক তৃণম

নিজস্ব প্রতিবেদন
২২ এপ্রিল ২০১৯ ০০:৩৮
Save
Something isn't right! Please refresh.
হিড়বাঁধের মলিয়ানে বামেদের অমিয় পাত্র। নিজস্ব চিত্র

হিড়বাঁধের মলিয়ানে বামেদের অমিয় পাত্র। নিজস্ব চিত্র

Popup Close

কয়েক সপ্তাহ পরেই ভোট। কার শক্তি কতটা, তা নিয়ে আলোচনা চলছে সব মহলেই। রবিবাসরীয় প্রচারে নেমে বাঁকুড়ার খাতড়া মহকুমার বিভিন্ন ব্লকে ভিড় টানার প্রতিযোগিতা চলল বিভিন্ন দলের মধ্যে। বাঁকুড়া লোকসভা কেন্দ্রের তৃণমূল প্রার্থী সুব্রত মুখোপাধ্যায় চষে ফেললেন সারেঙ্গা ব্লক। এই কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থী ঘুরলেন রাইপুরে। সিপিএম মিছিল করল হিড়বাঁধে। তবে প্রচারে কিছুটা বিঘ্ন ঘটিয়েছে বিকেলের ঝড়বৃষ্টি।

এ দিন সকালে সারেঙ্গার পিড়রগাড়ি মোড় থেকে হুডখোলা গাড়িতে চড়ে প্রচার মিছিলে যোগ দেন সুব্রতবাবু। মিছিলে মোটরবাইক নিয়ে দলীয় কর্মীদের উপস্থিতি ছিল ব্যপক। সুব্রতবাবুর সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন রাইপুরের বিধায়ক ধীরেন্দ্রনাথ টুডু, সারেঙ্গা ব্লক তৃণমূল সভাপতি ধীরেন ঘোষ, জেলা যুব তৃণমূলের সভাপতি রাজীব ঘোষাল প্রমুখ। সারেঙ্গা বাজার এলাকায় গাড়ি থেকে নেমে স্থানীয় একটি গির্জায় গিয়ে প্রার্থনা করেন সুব্রতবাবু। বিকেলে সারেঙ্গার কয়েকটি পাড়ায় তাঁর বৈঠক ছিল। বৃষ্টির জন্য সেই কর্মসূচি ভেস্তে যায়।

রাইপুরে ব্লকে রোড শো করেন বিজেপি প্রার্থী সুভাষ সরকার। রাইপুরের মটগোদা মোড় থেকে সুভাষবাবুর রোড শো শুরু হয়ে রাইপুর ব্লকের বেশ কয়েকটি গ্রাম পরিক্রমা করে। হুড খোলা গাড়িতে চড়ে সাধারণ মানুষের কাছে করজোড়ে ভোট প্রার্থনা করছিলেন প্রার্থী। গাড়ির পিছনে বেশ কয়েকটি পিকআপ ভ্যানে দলীয় কর্মী এবং বাদ্যযন্ত্র বাজিয়েরা। রোড শোতে বিজেপি কর্মীরা মোটরবাইক নিয়ে শামিল হয়েছিলেন। সুভাষবাবু জানান, বিকেলের ঝড়বৃষ্টিতে প্রায় দেড় ঘণ্টা প্রচার বন্ধ রাখতে হয়েছিল। পরে সুচবাজারে প্রচার করেছেন।

Advertisement

এ দিন হিড়বাঁধের মলিয়ানে মিছিল করেন সিপিএম প্রার্থী অমিয় পাত্র। সামনের সারিতে ছিল ব্যাঞ্জো পার্টি। প্রায় চারশো সিপিএম কর্মী ও সমর্থক যোগ দিয়েছিলেন। মহিলাদের উপস্থিতি ছিল চোখে পড়ার মতো। রাজ্যে পালাবদলের পরেও ২০১৩ সালের পঞ্চায়েত নির্বাচনে হিড়বাঁধ ব্লকে ক্ষমতা ধরে রেখেছিল সিপিএম। সে বারের ভোটে হিড়বাঁধ পঞ্চায়েত সমিতি-সহ বেশ কিছু পঞ্চায়েতও দখলে রেখেছিল তারা। যদিও ২০১৮ সালের পঞ্চায়েত নির্বাচনের ফল বেরোতে দেখা যায়, এই ব্লক থেকে কার্যত মুছে গিয়েছে সিপিএম। তার পরেও এ দিনের মিছিলে ভিড় দেখে উজ্জীবিত বাম নেতা-কর্মীরা। বিকেলে খাতড়ার আড়কামা ও সুপুরে সভা বাতিল করতে হয় ঝড়বৃষ্টির জন্য।

রবিবাসরীয় প্রচারে সরগরম ছিল বিষ্ণুপুর লোকসভা কেন্দ্রও। সিপিএম প্রার্থী সুনীল খাঁ বিষ্ণুপুর শহরে প্রচারে নামেন। শহরের পোকাবাঁধা পাড় সংলগ্ন পার্টি অফিস থেকে মিছিল শুরু করেন সুনীলবাবু। শহরের বেশ কয়েকটি ওয়ার্ড পরিক্রমা করেন। মিছিলে কয়েকশো সিপিএম কর্মী উপস্থিত ছিলেন।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)


Something isn't right! Please refresh.

Advertisement