×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

১২ এপ্রিল ২০২১ ই-পেপার

ভয় না পেয়ে চুপচাপ পদ্মে ভোট দিতে অনুরোধ রাজীবের

নিজস্ব সংবাদদাতা
ঝাড়গ্রাম ও মেদিনীপুর ১১ ফেব্রুয়ারি ২০২১ ১৮:৫৮
রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়।

রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়।

পানীয় জলের যোগান থেকে কর্মসংস্থান— বিজেপি-র পরিবর্তন রথযাত্রায় বেরিয়ে প্রতিশ্রুতিতে ভরিয়ে দিলেন রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়। তৃণমূল থেকে সদ্য বিজেপি-তে যাওয়া রাজ্যের এই প্রাক্তনমন্ত্রী বৃহস্পতিবার ঝাড়গ্রামের গোপীবল্লভপুরে একটি জনসভায় যোগ দেন। বিজেপির পরিবর্তন যাত্রারই অন্তর্গত এই জনসভা। লালগড় থেকে মঙ্গলবার বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জগৎ প্রকাশ নড্ডা যে পরিবর্তন রথযাত্রায় সূচনা করেছিলেন তারই পরবর্তী কর্মসূচি। সেখানে রাজীব জানান, বিজেপি ক্ষমতায় এলে পানীয় জল থেকে শুরু করে ভাঙ্গনরোধের কাজ, বাংলার খেটে খাওয়া মানুষ ও শ্রমিকদের জন্য ভালো ব্যবস্থা করা হবে। তবে তার জন্য ভয় না পেয়ে এগিয়ে আসতে হবে মানুষকে। ভোটের ময়দানে জবাব দিতে হবে। পরিবর্তন চাইলে বেছে নিতে হবে বিজেপিকেই।

বৃহস্পতিবার এই জনসভার আগে পদযাত্রায় অংশ নেন রাজীব। তাঁর সঙ্গে ছিলেন বিজেপির জেলা সভাপতি সুখময় শতপথী, জেলা সাধারণ সম্পাদক অবনী ঘোষ। ঝাড়গ্রাম থেকে পরিবর্তন যাত্রা এসে পৌঁছায় পশ্চিম মেদিনীপুর পর্যন্ত। কেশিয়াড়ি এলাকায় এসে থামে পরিবর্তন যাত্রার রথ। সেখানে হাজির ছিলেন পশ্চিম মেদিনীপুরের জেলা সভাপতি শমিত দাশ, জেলা সাধারণ সম্পাদক শঙ্কর গুছাইত, রাজ্য নেতা তুষার মুখোপাধ্যায়-সহ বিজেপি-র অন্য নেতারা।

সভায় লোকসমাগম কম হওয়া প্রসঙ্গে রাজীব বলেন, রাজ্যে আসলে ভয়ের পরিবেশ তৈরি হয়েছে। পরিবর্তন যাত্রায় অংশ নেওয়ার ইচ্ছে অনেকেরই আছে। কিন্তু তাঁরা ভয়ে অংশ নিতে পারছেন না। এ কথা বলেই রাজ্যবাসীর কাছে রাজীবের আবেদন, ‘‘দয়া করে ভয় পাবেন না। সর্বস্তরের মানুষের উদ্দেশে আমাদের একটাই স্লোগান, চুপচাপ পদ্মে ছাপ। আর অনুরোধ, চলুন পাল্টাই।’’

Advertisement
গোপীবল্লভপুরের জনসভায় রাজীব।

গোপীবল্লভপুরের জনসভায় রাজীব।


রাজীব বলেন, ‘‘আমরা চাই সত্যিকারের পরিবর্তন আসুক। যে পরিবর্তনে বেকারদের কর্মসংস্থান হবে। মা-বোনের নিরাপত্তা সুরক্ষিত হোক। প্রচুর সামাজিক কাজকর্ম হোক, যা মা-বোনেদের মাথা তুলে দাঁড়াতে সাহায্য করবে।’’

বিজেপি-র উপর আস্থা রাখতে বলে রাজীবের বক্তব্য, ‘‘পরিবর্তনের যে স্বপ্ন মানুষকে দেখাচ্ছি, আমার বিশ্বাস তা আগামী নির্বাচনে পরিবর্তন এলে পশ্চিমবঙ্গের মানুষ নিশ্চিত ভাবে দেখতে পাবে।’’ রাজীব বলেন, ‘‘চাকরি না পাওয়া যুবকদের হতাশা আমি দেখেছি, প্রথম দিন থেকেই তাঁদের নিয়ে কথা বলছি। পড়াশোনা করেও তারা চাকরি পাচ্ছেন না। অনেক ক্ষেত্রেই কাজের খোঁজে বাইরে যেতে হচ্ছে। অথচ বাংলায় আমরা প্রচুর শূন্যপদ রয়ে গিয়েছে।’’ জনসভা থেকে রাজ্যবাসীকে রাজীবের আশ্বাস, ‘‘আগামী দিনে স্থায়ী চাকরি যেমন দিতে হবে তেমন প্রচুর শিল্প কারখানা গড়ে তুলতে হবে। সেখানে বেকার যুবকরা কাজ পাবেন। বাংলার উন্নয়নের জন্য নরেন্দ্র মোদীর হাত শক্ত করতে হবে। তবেই সোনার বাংলা গড়ে উঠবে।’’

Advertisement