Advertisement
০৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৩
FirhadHakim

Firhad Hakim on CBI: দিল্লি বা শুভেন্দুর কথায় সিবিআই চললে ছেড়ে কথা বলব না, হুঁশিয়ারি ফিরহাদ হাকিমের

একই সুরে সিবিআই তদন্তকে সহযোগিতার বার্তা দিয়েও রাজনৈতিক ভাবে বিজেপি-কে আক্রমণ করেছেন তৃণমূল মুখপাত্র কুণাল ঘোষ। তিনি বলেন, ‘‘সিবিআই তদন্ত হলে তৃণমূল সহযোগিতা করবে। আদালত যখন তদন্তের নির্দেশ দিয়েছে, তখন তদন্ত হবেই। কিন্তু তদন্তের নামে যদি কোনও উদ্দেশ্যপ্রণোদিত কোনও রাজনৈতিক ঘটনা ঘটে, তবে তৃণমূল তাঁর জবাব রাজনৈতিক ভাবে দেবে।’’

 

দিল্লির নেতা বা শুভেন্দু অধিকারীর কথায় সিবিআই তদন্ত হলে জবাব দেবে তৃণমূল, জানালেন ফিরহাদ হাকিম।

দিল্লির নেতা বা শুভেন্দু অধিকারীর কথায় সিবিআই তদন্ত হলে জবাব দেবে তৃণমূল, জানালেন ফিরহাদ হাকিম। নিজস্ব চিত্র।

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ২৬ মার্চ ২০২২ ১৭:০৩
Share: Save:

কলকাতা হাইকোর্ট শুক্রবার বগটুই হত্যাকাণ্ডের তদন্তের দায়িত্ব সিবিআইয়ের হাতে তুলে দিয়েছে। আর শনিবার রামপুরহাটের ওই গ্রামে গিয়ে তদন্তের কাজও শুরু করে দিয়েছেন সিবিআই আধিকারিকরা। আর সেই দিনই তদন্ত নিয়ে রাজনৈতিক তরজাও শুরু হয়ে গেল। সিবিআই তদন্ত সংক্রান্ত এক প্রশ্নের উত্তরে বিজেপি নেতাদের হুঁশিয়ারি দিয়েছেন কলকাতার মেয়র ফিরহাদ হাকিম। তিনি বলেন, ‘‘বগটুইয়ে সিবিআইয়ের তদন্তে কারও লাভ নেই। আগে সিট এ বিষয়ে তদন্ত করছিল। এখন তদন্ত করছে সিবিআই। সিটের হাত থেকেই তো তদন্তভার নিচ্ছে সিবিআই। সিট যাঁদের গ্রেফতার করেছিল, তাঁদের হেফাজতে নিচ্ছে সিবিআই।’’ ফিরহাদের আরও বক্তব্য, ‘‘এ বার যদি দিল্লির নেতারা বা শুভেন্দু অধিকারী কথায় সিবিআই যদি আমাদের বিরুদ্ধে ক্ষমতার অপব্যবহার করে, তা হলে আমরা ছেড়ে কথা বলব না।’’

Advertisement

একই সুরে সিবিআই তদন্তকে সহযোগিতার বার্তা দিয়েও রাজনৈতিক ভাবে বিজেপি-কে আক্রমণ করেছেন তৃণমূল মুখপাত্র কুণাল ঘোষ। তিনি বলেন, ‘‘সিবিআই তদন্ত হলে তৃণমূল সহযোগিতা করবে। আদালত যখন তদন্তের নির্দেশ দিয়েছে, তখন তদন্ত হবেই। কিন্তু তদন্তের নামে যদি কোনও উদ্দেশ্যপ্রণোদিত কোনও রাজনৈতিক ঘটনা ঘটে, তবে তৃণমূল তাঁর জবাব রাজনৈতিক ভাবে দেবে।’’

কুণালের বক্তব্য, ‘‘বগটুইয়ের ঘটনার পর থেকে সিপিএম ও বিজেপি একটু বেশিই সক্রিয় হয়ে পড়েছে। তাঁরা যে রাজ্যে শাসনে আছেন, সেখানে কী রকম আইন শৃঙ্খলার ব্যবস্থা রয়েছে, তা সবাই জানে।’’ তিনি আরও বলেন, ‘‘তদন্তে প্রকৃত দোষীরা শাস্তি পাক। কিন্তু রাজনৈতিক স্বার্থ চরিতার্থ করতে যেন কোনও পদক্ষেপ না নেওয়া হয়।’’ বগটুইয়ের ঘটনার পর থেকেই একযোগে কংগ্রেস, সিপিএম ও বিজেপি সিবিআইয়ের দাবি করে আসছিল। কলকাতা হাইকোর্ট সিবিআই তদন্তের নির্দেশ দেওয়ায় তাঁরা মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের প্রতি আক্রমণ শানিয়েছে। জবাবে কুণাল বলেছেন, ‘‘যে মুখ্যমন্ত্রী নিজে গিয়ে ওই এলাকা ঘুরে সব রকম ব্যবস্থা করে এসেছেন, তাঁকেও আক্রমণ করছেন বিরোধিরা। তাঁদের সম্মিলিত চেহারা রাজ্যের মানুষ চিনে ফেলেছে।’’

Advertisement
(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.